রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৫৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জে স্কুল ব্যাংকিং কনফারেন্স অনুষ্ঠিত ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি’র নির্বাচন ॥ শামছুল হুদা-আলমগীর প্যানেলের নিঙ্কুশ বিজয় নবীগঞ্জের ঘোলডোবা এম সি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি বিলুপ্ত মাধবপুরে দোকান থেকে ১১ বস্তা ভিজিডির চাল জব্দ যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি ব্যবহারে গ্যাসের ভূমিকা শীর্ষক কনফারেন্সে এমপি আবু জাহির শহরের পুরাতন খোয়াই নদীতে ২৫০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ সামাজিক সংগঠন ‘বন্ধু মেলা’ এর আহ্বায়ক কমিটি গঠন মাধবপুরে দু’মাদক পাচারকারীকে ভ্রাম্যমান আদালতের কারাদন্ড অসাধু বিদ্যুৎ কর্মচারীদের সহযোগিতায় শহরের অর্ধশতাধিক অবৈধ টমটম গ্যারেজ নবীগঞ্জে বিয়ের প্রস্তাবে সম্মতি না দেয়ায় দুই বোনকে পিঠিয়ে আহত
হবিগঞ্জে বিড়ির উপর শুল্ককর প্রত্যাহার করার দাবিতে বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের বিক্ষোভ মিছিল

হবিগঞ্জে বিড়ির উপর শুল্ককর প্রত্যাহার করার দাবিতে বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের বিক্ষোভ মিছিল

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ॥ বিড়ির উপর বৈষম্যমূলক শুল্ককর আরোপ প্রত্যাহার করার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশন হবিগঞ্জ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজ এলাকায় ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিল শেষে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিড়ি ফেডারেশনের হবিগঞ্জ জেলা নেতা মোঃ আশরাফ সিদ্দিকী, মতিউর রহমান মাসুদ, আব্দুস শহীদসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। বক্তারা বলেন, বিড়ি বাংলাদেশের একটি ঐতিহ্যবাহী শিল্প। বিড়ি কোম্পানীর ফ্যাক্টরীগুলো গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ও নদী ভাঙ্গা এলাকায় অবস্থিত। এই বিড়ি শিল্পটি দেশের গ্রাম কেন্দ্রিক হওয়ায় গ্রাম অঞ্চলের হতদরিদ্র, স্বামী পরিত্যক্তা, বিধবা ও প্রতিবন্ধী শ্রমিকদের জীবন জীবিকার একমাত্র কর্মস্থল। পক্ষান্তরে সিগারেট ফ্যাক্টরী যন্ত্রচালিত ও বিদেশী মালিক হওয়ায় গ্রামের হতদরিদ্র শ্রমিকরা কাজ পায় না। যুগ যুগ ধরে বিদেশী সিগারেট কোম্পানীগুলো গ্রামাঞ্চলের লাখ লাখ হতদরিদ্র শমিকদের কর্মসংস্থান বন্ধ করে তাদের স্বার্থ রক্ষার ষড়যন্ত্র করে আসছে। কিন্তু অর্থমন্ত্রী অন্যায় ভাবে বিড়ির উপর সিগারেট থেকে বেশি কর আরোপ করেন। যা যুক্তি সংঙ্গত নয়। এছাড়াও অর্থমন্ত্রী সম্প্রতি বিভিন্ন মিডিয়ার বলেছেন, দু’এক বছরের ভিতরে বিড়ি শিল্পকে বিদায় দেয়া হবে। অর্থমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে বিড়ি শিল্প ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ বিক্ষোব্ধ হয়ে উঠেন। সভায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবুল মুহিতের পদত্যাগের দাবি করা হয় এবং বিড়ি শিল্পকে বাচাঁতে শুল্ককর আরোপ না করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানানো হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com