বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
সাতছড়িতে বিজিবির অভিযান রকেট লাঞ্চারের ১৮টি গোলা উদ্ধার হবিগঞ্জে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ম্যারাথন এর উদ্বোধন সাতছড়ি উদ্যানে পূর্বের ৬ অভিযানে যা যা মিলেছে উদ্ধার হওয়া রকেট লাঞ্চারের গোলাগুলো খুব বিপজ্জনক আলোচনায় কাহালু ও চট্টগ্রামের ১০ ট্রাক অস্ত্র নোয়া হাটি সংবর্ধনা সভায় মেয়র সেলিম ॥ আমি হবিগঞ্জ পৌরবাসীর ভালবাসা কুড়িয়ে নিতে চাই হবিগঞ্জ পৌরসভার নব-নির্বাচিত ২ কাউন্সিলরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নবীগঞ্জে মাদকাসক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা ॥ হুমকির মুখে নিরিহ পরিবার পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়রের সঙ্গে ব্যাংকারদের শুভেচ্ছা বিনিময় নবীগঞ্জে শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ প্রতিযোগীতায় ॥ ২৩ বিজয়ী
বাহুবলে চার শিশু হত্যা \ এসআই বরখাস্ত \ ওসি তদন্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ

বাহুবলে চার শিশু হত্যা \ এসআই বরখাস্ত \ ওসি তদন্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ

স্টাফ রিপোর্টার \ হবিগঞ্জের বাহুবলে চার শিশু হত্যার ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে বাহুবল থানার উপপরিদর্শক জিয়াউর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি একই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রহমানকে বরখাস্ত করার জন্য রোববার দুপুরে পুলিশ সদর দফতরকে চিঠি দিয়েছেন পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্র। বাহুবলের সুন্দ্রাটিকি গ্রামের চার শিশু হত্যার ঘটনায় পুলিশের দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ ওঠার পর বিষয়টি তদন্ত করতে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী ছিলেন হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. শহীদুল ইসলাম। গত বৃহস্পতিবার কমিটি পুলিশ সুপার বরাবর প্রতিবেদন জমা দেয়। তদন্ত করতে গিয়ে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তার গাফিলতির প্রমাণ পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে বাহুবল মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) আব্দুর রহমান ও তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. জিয়াউদ্দিনের গাফিলতি পাওয়ার কথা উলে­খ করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্র জানান, ১২ ফেব্র“য়ারি বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রাম থেকে চার শিশু নিখোঁজ হওয়ার পর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা ওসি (তদন্ত) আব্দুর রহমান সাধারণ ডায়রি গ্রহণ করেননি। পরদিন সকালে তিনি গ্রহণ করেন। পাশাপাশি এ ব্যাপারে তার তৎপরতা সন্তোষজনক ছিল না। জিডি হওয়ার পরও তা তদন্তের দায়িত্বে থাকা এসআই জিয়াও বিষয়টি নিয়ে আশানুরূপ তৎপরতা দেখাননি। তিনি আরো বলেন, দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে। এসআই জিয়াকে বরখাস্ত করার এখতিয়ার আমার আছে। সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নিয়েছি। ওসি-তদন্ত আব্দুর রহমানকে বরখাস্ত ও ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ সদর দফতরে চিঠি দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com