শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস নবীগঞ্জে সিএনজি-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে গৃহবধূ নিহত ॥ ৩ জন আহত শায়েস্তাগঞ্জে ও মিরপুরে ট্রেন থেকে আবারও তেল চুরির হিড়িক ভাষা শহীদদের প্রতি হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন মুজিববর্ষ উপলক্ষে সম্প্রাসারিত বিট পুলিশিংয়ের আলোচনা সভা ॥ অপরাধ দমনে আন্তরিক ভাবে কাজ করছে পুলিশ-পুলিশ সুপার লন্ডনে দীঘলবাক ইউনিয়ন ডেভেলাপম্যান্ট এসোসিয়েশন ইউকের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত নাতিরাবাদকে পাঁচ উইকেটে হারিয়ে নাইট ক্রিকেট চ্যাম্পিয়ন অনন্তপুর আজমিরীগঞ্জে চুলার আগুনে ঝলসে গেছে দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীর শরীর মরণব্যাধি করোনা ভাইরাস সম্পর্কে হবিগঞ্জ ছাত্র সমন্বয় ফোরাম এর সচেতনতামূলক সেমিনার ও মাস্ক বিতরণ শহীদ মিনারে হবিগঞ্জ জেলা পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন
হবিগঞ্জ পৌরবাসী এখন পরিশোধ করবেন মিটার অনুযায়ী পানির বিল

হবিগঞ্জ পৌরবাসী এখন পরিশোধ করবেন মিটার অনুযায়ী পানির বিল

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ॥ পানির গ্রাহকের ভোগান্তি লাঘবের জন্য হবিগঞ্জ পৌরসভা পৌরএলাকায় চালু করছে মিটার অনুযায়ী বিল পরিশোধ পদ্ধতি। পৌরপরিষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নাগরিকদের উন্নত সেবা প্রদানের অংশ হিসেবে এ পদ্ধতি চালু করা হচ্ছে। হবিগঞ্জ পৌরসভা ও তৃতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ সেক্টর প্রকল্পের যৌথউদ্যোগে গ্রাহকদের মাঝে পানির সংযোগ পাইপে মিটার স্থাপন কাজ শুরু হয়েছে। এ মিটার স্থাপনের ফলে গ্রাহকরা যতটুকু পানি ব্যবহার করবেন ঠিক ততটুকু পানির বিল পরিশোধ করার সুযোগ পাবেন। অতিরিক্ত বিলের বোঝা বহন করতে হবে না। পানি না পেলে মাস শেষে নির্ধারিত মাসিক বিল পরিশোধ করতে হবে না।
হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোঃ মিজানুর রহমান জানান, ‘হবিগঞ্জ পৌরসভা ও ইউজিআইআইপি-৩ আব্যশ্যিকভাবে সম্পূর্ন বিনামূল্যে আবাসিক ও বাণিজ্যিক পানির সংযোগে মিটার স্থাপন করে দিবে। চলমান মিটার স্থাপনকাজ প্রকল্প শেষে হয়ে গেলে বিনামূল্যে মিটার স্থাপন করা হবে না।’ ফলে নির্ধারিত সময়ের মাঝেই মিটার স্থাপনের কাজ সেরে নিতে গ্রাহকদের পরামর্শ দেন তিনি।
তিনি আরো জানান, প্রতিমাসে পৌরসভার কর্মচারীবৃন্দ মিটার রিডিং সংগ্রহ করবেন ও সংযোগ লাইন নিয়মিত মনিটরিং করবেন। মাস শেষে প্রতি গ্রাহকের মিটার দেখে মাসের বিল পৌছে দেয়া হবে। গ্রাহকরা পূর্বের মতো ব্যাংকে বিল জমা দিতে পারবেন।
মেয়র বলেন, পানির বিলও গ্রাহকদের সহনীয় পর্যায়ে রাখা হয়েছে। ১ ইউনিট হলো ১ ঘন মিটার। প্রতি ঘনমিটারে ১ হাজার লিটার। আবাসিক সংযোগে প্রতি ইউনিটে গ্রাহকরা পরিশোধ করবেন ১০ টাকা এবং বাণিজ্যিক সংযোগে প্রতি ইউনিটে গ্রাহকরা পরিশোধ করবেন ২০ টাকা। সেই হিসেবে একটি আবাসিক পরিবার মাত্র ৩০০ টাকা দিয়ে ব্যবহার করতে পারবেন ৩০ হাজার লিটার পানি।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com