বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ০৩:২৯ পূর্বাহ্ন

শহরের নিউ মুসলিম কোয়ার্টার সিনেমা হল ও স্টাফ কোয়ার্টার এলাকার অবৈধ দখল উচ্ছেদ

শহরের নিউ মুসলিম কোয়ার্টার সিনেমা হল ও স্টাফ কোয়ার্টার এলাকার অবৈধ দখল উচ্ছেদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহরের পুরাতন খোয়াই নদীর অবৈধ স্থাপনা অব্যাহত উচ্ছেদ অভিযান চলছে। গতকাল মঙ্গলবার শহরের নিউ মুসলিম কোয়ার্টার, সিনেমা হল এলাকা ও স্টাফ কোয়ার্টার এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। উচ্ছেদ অভিযান চলাকালে বেশ কয়েকটি অবৈধ স্থাপনা ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। এছাড়াও মাছুলিয়া এলাকায় অবৈধ দখলকৃত একটি খাল উদ্ধার করা হয়েছে। প্রায় ৪০টি পরিবার ওই খালটিতে মাটি ভরাট করে দখল করেছিল। ওই খাল উদ্ধার করে পানি নিস্কাশনের গতি পথ করে দেয় প্রশাসন। এর ফলে এলাকার পানি নিস্কাশন এখন সহজ ভাবে হবে। গতকাল হবিগঞ্জ সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা এবং সহকারি কমিশনার শামসুদ্দিন মোঃ রেজার নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। সিলেমা হল, নিউমুসলিম কোয়ার্টার ৫/৬টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। এ ব্যাপারে সহকারি কমিশনার শামসুদ্দিন মোঃ রেজা জানান, শহরের নিউ মুসলিম কোয়ার্টার, সিনেমা হল এলাকা ও স্টাফ কোয়ার্টার এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। মাছুলিয়া এলাকায় অবৈধ দখলকৃত একটি খাল উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি বলেন-উদ্ধারকৃত খালটি দিয়ে ওই এলাকার পানি নিস্কাশন হতো। কিন্তু প্রায় ৪০টি পরিবার খালটি অবৈধ ভাবে দখল করে মাটি ভরাট করে ফেলে, যার ফলে পানি নিস্কাশনের পথ বন্ধ হয়ে যায়। গতকাল ওই খালটি উদ্ধার করে খনন করে দেয়া হয়েছে। এর ফলেএলাকার মানুষের পানি নিস্কাশনের পথ সুগম হলো। তিনি বলেন-প্রশাসনের এ উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে। প্রতিদিনই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে। প্রসঙ্গত, হবিগঞ্জ শহরকে নান্দনিক শহর হিসেবে প্রতিষ্ঠা ও জলাবদ্ধতা দূরীকরণের লক্ষ্যে এমপি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহিরসহ শহরের বিশিষ্টজনদের উপস্থিতিতে গত রমজানের ঈদের রাতে সার্কিট হাউজে জেলা প্রশাসনের নৈশভোজের অনুষ্ঠানে পুরাতন খোয়াই নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ গত ১৫ সেপ্টেম্বর তাঁর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি উচ্ছেদের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক বলেছিলেন শহরকে নান্দনিক করার জন্য ২ হাজার কোটি টাকার উপরে ‘খোয়াই রিভার সিস্টেম উন্নয়ন প্রকল্প’ গ্রহণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দিয়েছেন। সে অনুযায়ী হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ড প্রকল্প বাস্তবায়নের স্ক্যাচম্যাপ তৈরি করে। প্রকল্পের মাধ্যমে নদী পুনখনন, তীর রক্ষা ও বনায়নের মাধ্যমে নান্দনিক রূপ দেয়া হবে। উচ্ছেদ অভিযানে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। ১৬ সেপ্টেম্বর ডায়াবেটিকস হাসপাতালের পেছন থেকে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com