শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৪:১৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
প্রসঙ্গ নিম্বর টাওয়ার ॥ ৫০ লাখ টাকা ঘুষ দাবি! নবীগঞ্জের ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আবিদ আলী বরখাস্ত হবিগঞ্জে জমে উঠেছে ঈদ বাজার ॥ স্বাস্থ্যবিধি পালনে প্রশাসন কঠোর বাংলাদেশি-আমেরিকান দুই ভাই তীর্থ ও তন্ময়ের সাফল্য খোশ আমদেদ মাহে রমজান ॥ আজ ২৫ রমজান লোকড়ায় অর্থ সহায়তা বিতরণ করলেন এমপি আবু জাহির বানিয়াচংয়ের ঐতিহ্যবাহী ঠাকুরানী দিঘী রক্ষায় এলাকাবাসীর অভিযোগ ॥ ড্রেজার মেশিন জব্দ খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় জেলা যুবদলের দোয়া ও ইফতার মাহফিল বানিয়াচংয়ে অভ্যন্তরীণ বোরে ধান সংগ্রহের উদ্বোধন রিচি গ্রামে ট্রাক্টরের চাপায় স্কুল ছাত্র নিহত শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজে বাস উল্টে ১৫ জন যাত্রী আহত
মাহে রমজানে তারাবিহ ও জুম্মার নামাযে ১০ শর্তের প্রজ্ঞাপন জারি

মাহে রমজানে তারাবিহ ও জুম্মার নামাযে ১০ শর্তের প্রজ্ঞাপন জারি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মহামারি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ রোধ কার্যক্রমের মধ্যে শুরু হতে যাওয়া পবিত্র রমজান মাসে জুমা ও তারাবিহ নামাজ আদায় করার বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়কে ১০ দফা নির্দেশনায় সম্বলিত প্রজ্ঞাপনের এ কথা বলা হয়। প্রজ্ঞাপনে আগামী ১৪ এপ্রিল (বুধবার) ভোর ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত জারি করা কঠোর বিধিনিষেধ দেয়া হয়। প্রজ্ঞাপন জারির পরপরই এক জরুরি বৈঠকে বসেছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়। ওই আদেশে সংক্রমণ রোধ নিশ্চিত করতে মসজিদের ওযু খানায় সাবান/হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখার কথা বলা হয়। মসজিদে নামাজ আদায় করার সময় নিজ নিজ জায়নামাজ নিজে আনতে হবে। মসজিদের জায়নামাজ থাকা ব্যবহার করা যাবে না বলেও উল্লেখ করা হয়। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জুমা ও তারাবিহর নামাজ আদায়ে বেশ কিছু নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ইতিপূর্বে গত সোমবার (৫ এপ্রিল) ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া ১০ নির্দেশনা গুলো হল ::- ১, মসজিদের প্রবেশদ্বারে হ্যান্ড স্যানিটাইজার/হাত ধোয়ার ব্যবস্থাসহ সাবান-পানি রাখতে হবে এবং মুসল্লিকে অবশ্যই মাস্ক পরে মসজিদে আসতে হবে। ২. প্রত্যেককে নিজ নিজ বাসা থেকে ওযু ও সুন্নাত নামাজ আদায় করে মসজিদে আসতে হবে এবং ওযু করার সময় কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে।
৩. মসজিদে কার্পেট বিছানো যাবে না। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের পূর্বে সম্পূর্ণ মসজিদ জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে, মুসল্লিদের নিজ দায়িত্বে জায়নামাজ নিয়ে আসতে হবে।
৪. কাতারে নামাজে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে। ৫. শিশু, বয়বৃদ্ধ, যেকোনো অসুস্থ ব্যক্তি এবং অসুস্থদের সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তিকে জামাতে অংশগ্রহণ করা হতে বিরত থাকবে হবে। ৬. সংক্রমণ রোধে নিশ্চিতকল্পে মসজিদের ওযুখানায় সাবান/হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে। মসজিদে সংরক্ষিত জায়নামাজ ও টুপি ব্যবহার করা যাবে না। ৭. সর্বসাধারণের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ, স্থানীয় প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনীর নির্দেশনা অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে। ৮. মসজিদে ইফতার ও সেহরির আয়োজন করা যাবে না। ৯. করোনাভাইরাস মহামারি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য নামাজ শেষে মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে খতিব ও ইমামরা দোয়া করবেন। ১০. মসিজদের খতিব, ইমাম এবং মসজিদ পরিচালনা কমিটি বিষয়গুলো বাস্তবায়ন নিশ্চিত করবেন। এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান এসব নির্দেশনা মানার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এই নির্দেশনা মানাতে গণ-প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে এবং এসব নির্দেশনা মানার ক্ষেত্রে এবার মসজিদ কমিটি, ইমাম, খতিবদের বেশি দায়িত্ব নিশ্চিত করতে হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com