বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ১০:৪৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল থেকে বাচ্চা চুরির ১ ঘন্টার মধ্যে উদ্ধার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার কালো দিবসের আলোচনা ॥ তারেক জিয়ার মৃত্যুদন্ড দাবি করেছেন এমপি আবু জাহির বাহুবলে প্রকাশ্য দিবালোকে চা শ্রমিকদের ॥ ভাতার ১২ লাখ টাকা ছিনতাই অভিযানে অর্ধেক টাকা উদ্ধার বানিয়াচঙ্গে হত্যা মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান সহ ৪ আসামী বিরুদ্ধে নারাজীর আবেদনের শুনানীর তারিখ পিছিয়েছে কুলাউড়ায় ট্রাক-সিএনজি সংঘর্ষে ॥ চুনারুঘাটের ১ ব্যক্তি নিহত ॥ স্ত্রী-সন্তান আহত নবীগঞ্জে দু’দলের সংঘর্ষে আহত ৪ চুনারুঘাটে সাংবাদিক নাছিরের উপর হামলা ॥ প্রতিবাদে সভা শায়েস্তাগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে মোটরসাইকেল আটক হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বারাপইলে দুধ ব্যবসায়ীর উপর প্রতিপক্ষের হামলা ॥ নগদ টাকা ও মোবাইল লুট মাধবপুরে ২শ পিস ইয়াবা সহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
বাহুবলে ওড়না পেঁচিয়ে নববধুর আত্মহত্যা

বাহুবলে ওড়না পেঁচিয়ে নববধুর আত্মহত্যা

বাহুবল প্রতিনিধি ॥ বাহুবলে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে এক নববধূ আত্মহত্যা করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের ফদ্রখলা গ্রামের তার স্বামীর বাড়িতে ঘরের তীরে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে দেখতে পেয়ে পরিবারের লোকজন পুলিশকে খবর দেয়। বাহুবল মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আলমগীর হোসেন ও এসআই সহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
জানা যায়, বাহুবল উপজেলার ফদ্রখলা গ্রামের শেখ শামছুল আলমের পুত্র এনামুল হক রুমন সাতক্ষীরা জেলা সদরের বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের মৃত আতিকুর রহমানের কন্যা গার্মেন্টস কর্মী খাদিজা খাতুন (২১) কে ভালবেসে বিয়ে করেন। বিয়ে পর নববধূ খাদিজা খাতুনকে বাড়িতে রেখে স্বামী রুমন ঢাকা সাভারে হামিম কোম্পানিতে শ্রমিকের কাজে যোগ দেয়। বিয়ের পর থেকে তাদের সংসার সুন্দর ভাবেই চলছিল। রুমন ২/১ মাস পরপর ঢাকা থেকে ছুটিতেও আসতো। এর মাঝে বৃহস্পতিবার খাদিজা খাতুন গলা ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।
উল্লেখ্য, রুমনের পিতা শামছুল আলম সুনামগঞ্জ জেলায় ফার্মেসী ব্যবসা করেন। অন্যদিকে তার মা দীর্ঘদিন পূর্রে মারা গেছেন। সংসারে তার স্ত্রী খাদিজা খাতুন, এক ছোট ভাই ও এক ছোট বোন রয়েছে। ঘটনার দিন সকালে খাদিজাকে ঘরে রেখে রুমনের ছোট ভাই আলিম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবিগঞ্জে ও ছোট বোন আলিফ সোবহান চৌধুরী সরকারি কলেজে যায়। ঘটনার খরব পেয়ে তারা বাড়িতে আসলে তাদের ভাবী খাদিজা খাতুনকে ঘরের তীরের সাথে ওড়না পেছানো অবস্থায় দেখতে পায়।
এ ব্যাপারে বাহুবল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাসুক আলী বলেন, খাদিজার আত্মহত্যার বিষয়টি থানায় অপমৃত্যু হিসেবে রুজু করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com