বৃহস্পতিবার, ১৮ Jul ২০১৯, ০৭:১৪ পূর্বাহ্ন

সদর হাসপাতালে দালালদের দৌড়াত্ব বৃদ্ধি ॥ ভোগান্তীর শিকার রোগীর স্বজন

সদর হাসপাতালে দালালদের দৌড়াত্ব বৃদ্ধি ॥ ভোগান্তীর শিকার রোগীর স্বজন

স্টাফ রিপোট ॥ হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে মন্ত্রীর আদেশ উপেক্ষা করে আবারো দালালদের দৌড়াত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এ সব দালালদের মমদ দিচ্ছে হাসপাতালের কতিপয় ডাক্তার ও কর্মচারীরা। গত শনিবার দুপুরে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক সদর হাসপাতালের কর্মচারীদেরকে নিয়ে এক সভায় বেসাময়ীক বিমান মন্ত্রী এডঃ মাহবুব আলী এমপি সদর হাসপাতাল দালাল মুক্তসহ সার্বিক উন্নয়নের আশ্বাস প্রদান করেন। কিন্তু তিনি যাওয়ার পর থেকেই আবারো দালালদের দৌড়াত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। জরুরী বিভাগে ও বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রকাশ্যে চলছে তাদের আদিপত্য বিস্তার। দালালদের খপ্পরে পরে গ্রামগঞ্জ থেকে আসা সহজ-সরল মানুষ সবর্স্ব হারিয়ে বাড়ি ফিরছে। আবার কেউ-কেউ ফার্মেসীতে গিয়ে অতিরিক্ত টাকা দিতে হচ্ছে। শুধু তাই নয় বিভিন্ন রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি সিট পাইয়ে দেয়ার কথা বলে তা না দিয়ে টাকা পয়সা হাতিয়ে নেয়। গত সোমবার আজমিরীগঞ্জ উপজেলার পাহাড়পুর গ্রামের আমির আলী নামে এক রোগী ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে সদর হাসপাতালে আসে। এ সময় দালাল শাহিন তাকে সিট পাইয়ে দিবে বলে ৫শ টাকা হাতিয়ে নেয়। কিন্তু ওই রোগী সিট না পেয়ে বারান্দায় আশ্রয় নেয়। এ রকম আরো অনেক রোগীর অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মিলে দালালদের একটি তালিকা তৈরি করে। পুলিশ ইতিমধ্যে কয়েক জনকে আটক করে কারাগারে প্রেরন করলেও তাদের মমদ দাতারা আইনের ফাঁক-ফোকর দিয়ে ছাড়িয়ে এনে তাদের আবারো একই পেশায় জড়িত করেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাদিক দালাল জানান, যত দুষ নন্দঘোষ, আমরা তো সামান্য টাকার জন্য দালালী করি, কিন্তু হাসপাতালের কতিপয় কিছু ডাক্তার ও ব্রাদাররা আমাদেরকে দিয়ে দালালী করিয়ে ফায়দা হাসিল করে। আর আমাদেরকে নুন্যতম কমিশন দিয়ে থাকে। এই টাকা দিয়ে আমরা কোনরকম জিবিকা নির্বাহ করে থাকি।
হবিগঞ্জ জেলার একমাত্র ভরসা এই হাসপাতাল যদি এ রকম করে চলতে থাকে তাহলে মানুষের আস্তা হারিয়ে যাবে।
ভুক্তভোগী কয়েজন রোগীরা জানান, জরুরী বিভাগে আসা মাত্রই চিকিৎসা পত্র লেখার সাথে সাথে দালালরা হাতিয়ে নিয়ে যায়। তখন রোগীরা বাধ্য হয়েই দালালদের দিয়ে চিকিৎসা করাতে হয়।
এ ব্যাপারে সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক রতীন্দ্র চন্দ্র দেব জানান, ইতি পূর্বে আমরা দালালদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি, আবারো নিব।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com