মঙ্গলবার, ২৩ Jul ২০১৯, ১১:৩২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে ॥ ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা ॥ প্রতিবাদে হবিগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হবিগঞ্জ সিভিল সার্জনের মৃত্যু মির্জাপুর থেকে প্রেমিক জুটি আটক ॥ কারাগারে প্রেরণ ১০ ইউপি চেয়ারম্যান উপস্থিত না হওয়ায় নবীগঞ্জ উপজেলা সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়নি বার্মিংহামে হবিগঞ্জ নাগরিক সমাজের সাথে মতবিনিময়কালে এমপি আবু জাহির ॥ দেশবিরোধী চক্রান্তকারীদের ব্যাপারে সতর্ক থাকার আহবান মাধবপুরে রাষ্ট্রদূতের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার ১ নবীগঞ্জ ও বাহুবলে অসুস্থ রোগীদেরকে চিকিৎসা সহায়তা দিলেন এমপি মিলাদ গাজী চুনারুঘাটে নিখোঁজ প্রেমিক যুগল প্রেমিকের মা-সহ ৩ জন আটক নবীগঞ্জের দেবপাড়ায় নিহা ফ্যাশন উদ্বোধন করলেন এমপি মিলাদ গাজী বানিয়াচঙ্গে ২৮ মাস বেতন না পেয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন প্রধান শিক্ষক
চুনারুঘাটের পুলিশ কর্মকর্তা ঢাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

চুনারুঘাটের পুলিশ কর্মকর্তা ঢাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকায় দায়িত্ব পালনকালে চুনারুঘাটের এক পুলিশ কর্মকর্তা কাভার্ডভ্যান চাপায় নিহত হয়েছেন। তিনি কাঁচপুর হাইওয়ে থানায় এসআই পদে কর্মরত ছিলেন। গতকাল শুক্রবার ভোরে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের বন্দর মালিবাগ এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতের নাম ফরিদ আহাম্মেদ। তিনি চুনারুঘাটের গেরারুক গ্রামের মানিক জমাদারের ছেলে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁওয়ে বুধবার দিনগত রাত থেকে পিকআপভ্যানে দায়িত্ব পালন করছিলেন এসআই ফরিদ। শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মহাসড়কের লাঙ্গলবন্দ এলাকায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অষ্টমী স্নান উৎসব উপলক্ষে যানজটের সৃষ্টি হয়। এ সময় বন্দরের মালিবাগ ক্যাসেল এলাকায় যানজটে আটকে যাওয়া এক ট্রাকের চালক গাড়িতেই ঘুমিয়ে পড়েন। এতে যানজট আরও তীব্র আকার ধারণ করতে থাকে। পরে যানজট নিরসনে নিহত ফরিদ আহাম্মেদ পায়ে হেঁটে রাস্তা পার হয়ে ঘুমিয়ে পড়া ওই ট্রাকচালককে ডেকে তুলেন ও গাড়ি চালানোর জন্য বলেন। একপর্যায়ে ওই ট্রাকচালক গাড়ি চালানো শুরু করলে পেছন থেকে একটি কাভার্ডভ্যান (এমকে এন্টারপ্রাইজ (ঢাকা-মেট্টো-ট-১৮-৭০৪০) এসআই ফরিদ আহম্মেদকে চাপা দেয়। এ সময় ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
এ ঘটনায় পুলিশ ঘাতক কাভার্ডভ্যানটি আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছেন।
গতকালই লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হলে বেলা ৩ টায় নিহত এস আই ফরিদ মিয়ার লাশ তার গ্রামের বাড়ি গেরারুক গ্রামে পৌছলে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারনা হয়। ছেলের লাশ দেখে বৃদ্ধা মাতা বার বার মুর্ছা যাচ্ছিলেন। ৪ বছরের একমাত্র মেয়ে বার বার বাবার লাশে দিকে তাকিয়েছিল। বাবা মারা গেছে এ বোধও তার হয়নি। বিকেল ৫টায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com