সংবাদ শিরোনাম : 

 **  বানিয়াচঙ্গে নিহত ইউপি সদস্য ময়না মিয়ার দাফন সম্পন্ন ॥ জানাযার নামাজে হাজারো মানুষের ঢল ॥ হত্যার রহস্য উদঘাটনে মাঠে কাজ করছে পুলিশের একাধিক টীম **  শহরের জিশান ইলেক্ট্রনিক্সে আবারো চুরি ৪০ লাখ টাকার মোবাইল ফোন গায়েব **  শায়েস্তাগঞ্জ জহুর চান বিবি মহিলা কলেজে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও মুক্তিযোদ্ধা বৃত্তি প্রদান **  হবিগঞ্জে কওমী শিক্ষা বোর্ডের প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত **  নবীগঞ্জে দেওয়ান ফরিদ গাজী স্মৃতি সংসদ ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন **  নবীগঞ্জ আদর্শ সামাজিক সংস্থার কৃতি-শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্টিত **  হবিগঞ্জে ১ হাজার ৪৪০ জন দম্পতির জন্য একজন কর্মী **  শায়েস্তাগঞ্জে নিখোঁজ ছাত্রের সন্ধানে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন **  আজ গউছ’র মাতা আলহাজ্ব মঞ্জিলা বেগমের মৃত্যুবার্ষিকী **  বানিয়াচঙ্গে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ **  বর্তমান সরকারের আমলে সকল ধর্মের মানুষ সমান সুবিধা ভোগ করে-এমপি আবু জাহির **  নদী ও খালখনন প্রকল্প প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুগান্তকারী পদক্ষেপ শাহনওয়াজ মিলাদ গাজী এমপি **  নবীগঞ্জে ঠাকুর অনুকুল চন্দ্রের ১৩১ তম জন্ম উৎসবেরব পুনর্মিলনী **  নবীগঞ্জের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে শেরপুরে বাস থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

নবীগঞ্জে মায়ারুনের সদস্যপদ বহাল রেখে সুপ্রিম কোর্টের স্থিতাবস্থার আদেশ প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নবীগঞ্জে দীর্ঘদিন আইনী লড়াইয়ের পর সরকারিভাবে ইউপি সদস্য হিসেবে গত ২৮ ফেব্র“য়ারি শপথ গ্রহন করেছিলেন মায়ারুন আক্তার। শপথ গ্রহনের পরপরই মায়ারুনের সমর্থকরা মিছিল বের করলে ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এড. মোঃ জাবিদ আলী তাতে বাধা প্রদান করে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের পরামর্শ দেন। এতে সন্তোষ্ট হয়ে উপস্থিত সকলেই ইউপি চেয়ারম্যান এর প্রশংসা করে তার পরামর্শ মেনে নেন।
এদিকে গত ১৪ ফেব্র“য়ারী হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে মোছাঃ হোসনা বেগম সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার জজে আপিল দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি মোঃ নুরুজ্জামান গত রবিবার মোছাঃ মায়ারুন আক্তার এর সদ্যপদ বহাল রেখে স্থিতাবস্থার আদেশ প্রদান করেন।
মোছাঃ মায়ারুন আক্তারের পক্ষে হাইকোর্ট ও সুপ্রিমকোর্টে মামলা পরিচালনা করেন এড. ফয়েজ আহমদ। অপরদিকে হবিগঞ্জের নির্বাচন ট্রাইব্যুনাল ও নির্বাচন আপিল ট্রাইব্যুনালে মামলা পরিচালনা করেন এড. মোঃ জসিম উদ্দিন (৩) ও হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. মোঃ আব্দুল হান্নান।
উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ২৮মে দেবপাড়া ইউনিয়নের নির্বাচনে ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে মায়ারুন আক্তার এবং হোছনা বেগম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচন শেষে প্রিজাইডিং অফিসার ৮নং ওয়ার্ডের কেন্দ্র দেবপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৯নং ওয়ার্ডের কেন্দ্র দিনারপুর আইনগাঁও মাদ্রাসা কেন্দ্রে ভোট গণনা হলেও কেন্দ্রে ফলাফল ঘোষণা করেননি। কিন্তু এজেন্ট থেকে প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী নির্বাচনে প্রথমে মায়ারুন আক্তার বিজয়ী হিসেবে তার পক্ষে আনন্দ মিছিলও করা হয়। পরবর্তীতে হবিগঞ্জ রিটার্নিং অফিসার হোসনা বেগমকে বিজয়ী দেখিয়ে ফলাফল ঘোষণা করেন। এই ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে মায়ারুন আক্তার বাদী হয়ে ২০১৬ সনের ৩০ জুন হবিগঞ্জ নির্বাচন ট্রাইব্যুনাল জজ আদালত ও সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করেন।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, বিজ্ঞ আদালত গত বছরের ১৬ মে ট্রাইব্যুনালের তত্বাবধানে ওই ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের ভোট পুনঃগণনা করা হয়। এতে প্রাপ্ত ভোট অনুযায়ী ৩টি কেন্দ্রে মায়ারুন আক্তার ১ হাজার ৬৬৮ ভোট এবং হোসনা বেগম ১ হাজার ৬৪৫ ভোট পান। এতে ২৩ ভোটের ব্যবধানে মায়ারুন আক্তারকে দেবপাড়া ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসন-৩ (৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ড) এ নির্বাচিত বলে ট্রাইব্যুনালের বিজ্ঞ বিচারক তানভীর আহমেদ মামলার রায় প্রদান করেন। মোছাঃ হোছনা বেগম ওই রায়ের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আপীল ট্রাইব্যুনালে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় দীর্ঘ শুনানী শেষে উভয় পক্ষের আইনজীবির সামনে পূনরায় ভোট গণনা করা হয়। এতে মায়ারুন আক্তার ৫ ভোট বেশি পান। পরে নির্বাচনী আপীল ট্রাইব্যুনাল হবিগঞ্জের বিজ্ঞ বিচারক ও যুগ্ম জেলা জজ ১ম আদালত সাইফুর রহমান সিদ্দিক ও নির্বাচনী আপীল ট্রাইব্যুনালের বিচারক এবং হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়া মায়ারুন আক্তারকে বিজয়ী ঘোষণা করে রায় প্রদান করেন। আদেশে উল্লেখ করা হয়, অত্র নির্বাচনী আপীল মোকদ্দমাটি প্রার্থী রেসপনডেন্ট পক্ষের বিরুদ্ধে দোতরফা বিনা খরচায় নামঞ্জুর হয়।

Powered by WordPress | Designed by: search engine rankings | Thanks to seo services, denver colorado and locksmiths

Design & Developed BY PopularServer.Com