বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

নবীগঞ্জে র‌্যাব এর নাম ব্যবহার করে এক লোক’কে ফাঁসানোর চেষ্টা ॥ আটক ১

নবীগঞ্জে র‌্যাব এর নাম ব্যবহার করে এক লোক’কে ফাঁসানোর চেষ্টা ॥ আটক ১

এটিএম সালাম, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জ উপজেলার ভরপুর গ্রামের র‌্যাব এর সোর্স পরিচয় দিয়ে আলী হায়দার নামের এক লোকের নিকট থেকে ৫০ হাজার টাকা নিতে এসে নিজেই ফেঁসে গেলেন কতিথ সোর্স আব্দুল আউয়াল। স্থানীয় জনতা আটক করলেও পরে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় চলছে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের মৃত আব্দুল্লাহ’র ছেলে আলী হায়দার ও তার খালাতো ভাই আবু তাহের এর মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গত শুক্রবার র‌্যাব (সিলেট) পরিচয় দিয়ে আলী হায়দার এর ০১৭২৫ ১১৪৪৩১ নম্বরে ফোন দেয়া হয়। ফোনে হায়দরকে জানানো হয় র‌্যাব অফিসে তার বিরুদ্ধে মাদকসহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে। এ সব অভিযোগ থেকে বাচঁতে গেলে তাদের সাথে যোগাযোগ করতে বলা হয়। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার পানিউন্দা গ্রামের ইসমাইল উল্লার ছেলে আব্দুল আউয়াল ভরপুর আলী হায়দারের বাড়িতে এসে র‌্যাব অফিস থেকে পাঠানো হয়েছে, মামলা থেকে বাচঁতে গেলে ১ লাখ টাকা দিতে হবে। নিরীহ আলী হায়দার কতিথ র‌্যাবের সোর্স আউয়াল কে ৫০ হাজার টাকা দেয়ার প্রস্তুতি নিয়ে বিষয়টি স্থানীয় মেম্বার ও মুরুব্বীয়ানদের সাথে যোগাযোগ করলে মেম্বারসহ লোকজন ছুটে আসে। এ সময় আব্দুল আউয়ালের কথাবার্তায় সন্দেহ সৃষ্টি হলে তাকে আটক করে রাখা হয়। লোকজনের জিজ্ঞাসাবাদে আউয়াল তার প্রতারনার কথা স্বীকার করে বলেও জানান স্থানীয়রা।
এদিকে গত শুক্রবার থেকে র‌্যাব সিলেট অফিসের পরিচয় দিয়ে একাধিকবার ফোন দিতে দিতে অতিষ্ট করে তোলে আলী হায়দার। এই ফোনের পর থেকে আলী হায়দার ছিল চরম আতংকে। এ ব্যাপারে বাউসা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু সিদ্দীক বলেন, পানিউন্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের জিম্মায় তাকে দেয়া হয়েছে। পানিউন্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইজাজুর রহমান জানান, তিনি আউয়াল’কে জিম্মায় নেননি। এ ব্যাপারে আলী হায়দারের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, র‌্যাব পরিচয়ের ফোন পাওয়ার পর থেকে আতংকে দিন কাটাচ্ছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com