রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জে স্কুল ব্যাংকিং কনফারেন্স অনুষ্ঠিত ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি’র নির্বাচন ॥ শামছুল হুদা-আলমগীর প্যানেলের নিঙ্কুশ বিজয় নবীগঞ্জের ঘোলডোবা এম সি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি বিলুপ্ত মাধবপুরে দোকান থেকে ১১ বস্তা ভিজিডির চাল জব্দ যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি ব্যবহারে গ্যাসের ভূমিকা শীর্ষক কনফারেন্সে এমপি আবু জাহির শহরের পুরাতন খোয়াই নদীতে ২৫০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ সামাজিক সংগঠন ‘বন্ধু মেলা’ এর আহ্বায়ক কমিটি গঠন মাধবপুরে দু’মাদক পাচারকারীকে ভ্রাম্যমান আদালতের কারাদন্ড অসাধু বিদ্যুৎ কর্মচারীদের সহযোগিতায় শহরের অর্ধশতাধিক অবৈধ টমটম গ্যারেজ নবীগঞ্জে বিয়ের প্রস্তাবে সম্মতি না দেয়ায় দুই বোনকে পিঠিয়ে আহত
রাষ্ট্রীয় পিষ্টপোষকতায় সন্ত্রাস দেখলো হবিগঞ্জবাসী-গউছ

রাষ্ট্রীয় পিষ্টপোষকতায় সন্ত্রাস দেখলো হবিগঞ্জবাসী-গউছ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ॥ হবিগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী ও হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব জি কে গউছ এক বিবৃতিতে বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাষ্ট্রীয় পিষ্টপোষকতার সন্ত্রাস দেখলো হবিগঞ্জবাসী।
জনগণ প্রত্যাশা করেছিল, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাদের রায়ের প্রতিফলন হবে, ভোটাধিকার প্রয়োগ করার সুযোগ পাবে, আবারও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হবে। কিন্তু রাষ্ট্রযন্ত্রের কাছে জনগণের পরাজয় হয়েছে। জনগণের বিজয় ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে, গণতন্ত্র হত্যা করা হয়েছে, আওয়ামীলীগের বিজয় হয়েছে, আর গণতন্ত্রের পরাজয় হয়েছে। যার মাধ্যমে সারা জাতিকে অন্ধকারে ঠেলে দেয়া হয়েছে।
হবিগঞ্জের মানুষ লক্ষ্য করেছে- একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই হবিগঞ্জ সদর, লাখাই ও শায়েস্তাগঞ্জ এলাকায় বিএনপি নেতাকর্মীদের গণ গ্রেফতার করা হয়েছে। ধানের শীষের কর্মী সমর্থকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পুলিশ হয়রানী করেছে, ভয়ভীতি দেখিয়েছে, ধানের শীষের প্রচারণায় হামলা করা হয়েছে। এত প্রহসনের পরও হবিগঞ্জের মানুষ স্বতস্ফুর্তভাবে ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হয়েছিলেন ভোট দেয়ার জন্য। কিন্তু সকাল ১০টার পর থেকেই হবিগঞ্জ সদর, লাখাই ও শায়েস্তাগঞ্জ এলাকার ভোট সেন্টারগুলো রাষ্ট্রীয় পিষ্টপোষকতায় দখল করে নেয়া হয়। ভোট সেন্টারগুলোতে ধানের শীষের এজেন্ট থাকতে দেয়া হয়নি। জেলা রিটার্নিং অফিসারসহ প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের অবহিত করা হলেও আমরা ন্যায় বিচার পাইনি।
তিনি বলেন, হবিগঞ্জ সদর, লাখাই ও শায়েস্তাগঞ্জবাসীর নিকট চিরকৃতজ্ঞ, আজীবনের জন্য ঋণী হয়ে থাকব, জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও তাদের পাশে থাকবো। সকল বাঁধা বিপত্তি উপেক্ষা করে মানুষ ভোট দিতে সেন্টারে গিয়েছিলেন, দেশের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে ভোট দেয়ার চেষ্টা করেছেন, আমাদের পাশে দাড়িয়েছিলেন। তবে ইতিহাস সাক্ষি, গণতন্ত্র বারবার হোচট খেয়েছে, বাঁধাগ্রস্থ হয়েছে, যারাই গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছে, তারা ইতিহাসের আস্তকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে। বাংলাদেশে একদিন গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হবে, আবারও জনগণের বিজয় নিশ্চিত হবে, ইনশাআল্লাহ।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com