শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:৩০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস নবীগঞ্জে সিএনজি-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে গৃহবধূ নিহত ॥ ৩ জন আহত শায়েস্তাগঞ্জে ও মিরপুরে ট্রেন থেকে আবারও তেল চুরির হিড়িক ভাষা শহীদদের প্রতি হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন মুজিববর্ষ উপলক্ষে সম্প্রাসারিত বিট পুলিশিংয়ের আলোচনা সভা ॥ অপরাধ দমনে আন্তরিক ভাবে কাজ করছে পুলিশ-পুলিশ সুপার লন্ডনে দীঘলবাক ইউনিয়ন ডেভেলাপম্যান্ট এসোসিয়েশন ইউকের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত নাতিরাবাদকে পাঁচ উইকেটে হারিয়ে নাইট ক্রিকেট চ্যাম্পিয়ন অনন্তপুর আজমিরীগঞ্জে চুলার আগুনে ঝলসে গেছে দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীর শরীর মরণব্যাধি করোনা ভাইরাস সম্পর্কে হবিগঞ্জ ছাত্র সমন্বয় ফোরাম এর সচেতনতামূলক সেমিনার ও মাস্ক বিতরণ শহীদ মিনারে হবিগঞ্জ জেলা পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন
গরীব-দুঃখী মানুষের প্রতিনিধি হয়ে বেঁচে থাকতে চাই-আবু জাহির

গরীব-দুঃখী মানুষের প্রতিনিধি হয়ে বেঁচে থাকতে চাই-আবু জাহির

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হবিগঞ্জ-৩ (সদর-লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগ ও মহাজোট মনোনীত সংসদ সদস্য প্রার্থী বর্তমান এমপি এডঃ মোঃ আবু জাহির বলেছেন, জনসেবাকে ইবাদত মনে করে ছাত্রজীবন থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত রাজনীতি করে যাচ্ছি। হবিগঞ্জ-লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জবাসীর জীবনমান উন্নয়নে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। আমার লক্ষ্য একটাই, এলাকার মানুষ কিভাবে সর্বোচ্চ সুবিধা ভোগ করতে করতে পারে। সংসদ সদস্য হিসেবে গত ১০ বছরে আশপাশের জেলাগুলোর তুলনায় হবিগঞ্জে অনেক বেশি উন্নয়ন কাজ সম্পাদন করেছি। নিজের হাতে তুলে দিয়েছি ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সহায়তা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, স্বামী পরিত্যক্তা নারীদের ভাতা, শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তিসহ সাধারণ মানুষের জন্য শেখ হাসিনার উপহার। সাধারণ মানুষের জন্য কিছু করতে পারলে আমি আনন্দ পাই। ভবিষ্যতেও গরীব-দুঃখী এবং মেহনতি মানুষের প্রতিনিধি হয়ে বেঁচে থাকতে চাই।
মহান বিজয় বিজয় দিবস উপলক্ষে গতকাল দিনব্যাপী সদর উপজেলার তেঘরিয়া এবং গোপায়া ইউনিয়নে পৃথক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
এমপি আবু জাহির আরো বলেন, আপনাদের নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে বিগত ১০টি বছর ঘুম, খাওয়া এবং নামাজের সময় বাধে বাকী সময় জনগণের পাশে থেকেছি। ভবিষ্যতেও থাকতে চাই। সারাবছর জনগণের পাশে না থেকে নির্বাচন আসলেই কিছু লোক ভোটের জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে যায় এবং উন্নয়নের মিথ্যা আশ্বাস দেয়। নির্বাচন চলে গেলেই তাদের আর কোনও খবর থাকে না। এসব লোককে নির্বাচিত করলে এলাকার উন্নয়ন হবে না। তারা ব্যস্ত থাকবে নিজেদের আখের গোছানো নিয়ে।
তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত যতবার ক্ষমতায় এসেছে দেশকে নিয়ে গেছে ধ্বংসের দিকে। বাংলাদেশ হয়েছে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন। হবিগঞ্জেও তখন ভোট ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। গরীবের সাহায্য লুটপাট হয়েছে। টেন্ডারবাজী হয়েছে। কিন্তু বর্তমান সরকারের বিগত দুই আমলে হবিগঞ্জকে আমরা একটি শান্তিপূর্ণ এলাকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছি। কোনও টেন্ডারবাজি হয়নি। এই এলাকাকে কেউ আর অবহেলিত বলতে পারে না। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, শিল্পসহ সকল ক্ষেত্রের উন্নয়ন মিলিয়ে আমরা এখন একটি আলোকিত অঞ্চলের মানুষ হিসেবে পরিচিত পেয়েছি। ভবিষ্যতেও এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। এছাড়াও ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকায় ভোট দেয়ার অনুরোধ জানান। এ সময় পৃথক জনসভায় উপস্থিত লোকজন দলমত নির্বিশেষে এমপি আবু জাহিরকে নির্বাচিত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন এবং হাত তুলে তার বক্তৃতার প্রতি সমর্থন জানান।
সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান শামীম, শামীম, আহমেদ, এডঃ আব্দুল আহাদ ফারুক, জেলা যুবলীগের সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম, আব্দুর রশিদ তালুকদার ইকবাল, মোহাম্মদ ইসমাঈল হোসেন, মোঃ আক্তার হোসেন, মোঃ আনু মিয়া, সাহেব আলী, জালাল উদ্দিন মেম্বার, সভাপতি মীর হোসেন, উত্তম রায়, বিশিষ্ট মুরুব্বী সিরাজ চৌধুরী, আব্দুল মোছাব্বির তালুকদার, সাবেক মেম্বার আব্দুর রহিম, সদর উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি তাজুল ইসলাম, শিবলু মিয়া, হাজী শফর আলী, শেখ সেবুল, মনির হোসেন সুমন প্রমুখ। এছাড়াও আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং উভয় এলাকার বিশিষ্ট মুরুব্বীয়ান বক্তব্য রাখেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com