সোমবার, ০৬ Jul ২০২০, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন

বানিয়াচং উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ॥ ভোট গ্রহনের ১৬ ঘন্টা আগে আমির হোসেন মাস্টারকে আ’লীগের একক প্রার্থী ঘোষণা

বানিয়াচং উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ॥ ভোট গ্রহনের ১৬ ঘন্টা আগে আমির হোসেন মাস্টারকে আ’লীগের একক প্রার্থী ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবশেষে বানিয়াচং উপজেলা নির্বাচনে নাটকীয় মোড় নিয়েছে। ভোট গ্রহণের মাত্র ১৬ ঘন্টা আগে বানিয়াচং উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আমির হুসেন মাস্টারকে আওয়ামীলীগের একক প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে।
গতকাল হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে অনুষ্টিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপজেলা নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সিলেট বিভাগীয় সমন্বয়কারী এম ইছহাক ভূইয়া। তবে তিনি আওয়ামীলীগের অপর ৩ প্রার্থীর অবস্থান সম্পর্কে কোন মন্তব্য করেননি। ভোট গ্রহনের ১৬ ঘন্টা আগে এমন ঘোষণায় দলের নেতাকর্মীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। এ ঘোষনায় কেউ মিষ্টি বিতরণ করেন আবার কেউ নির্বাচনের আগের দিন এ ঘোষণা তোয়াক্কাই করছেন না। তবে কেন্দ্রীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সিলেট বিভাগের সমন্বয়ক এম ইসহাক ভূইয়া গতকাল এমন বার্তা নিয়ে হবিগঞ্জ ও বানিয়াচংয়ের তার মুঠো ফোনে তৃণমূল নেতাকমীদের আশ্বস্থ করেন যে, নির্বাচন পরিচালনা কমিটি সিদ্ধান্তে তিনি হবিগঞ্জ এসেছেন। তিনি বানিয়াচং সহ বিভিন্ন স্থানে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী আমির হুসেন মাস্টারকে সমর্থন দেওয়া হয়েছে বলে অবগত করেন।
গতকাল বিকালে জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে ঘোষনাকালে উপস্থিত ছিলেন, হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সালেহ উদ্দিন আহমেদ, এডভোকেট লুৎফুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা সজীব আলী, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি শাহ আরজু মিয়া, বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শাহজাহান, উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আশরাফ সোহেল, ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী তোফায়েল রেজা সোহেলসহ জেলা উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের শতাধিক নেতাকর্মী। এসময় তারা আওয়ামীলীগের একক প্রার্থী হিসেবে আমীর হোসেন মাষ্টারকে বিজয়ী করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীর প্রতি আহবান জানানো হয়।
উল্লেখ্য, বানিয়াচং উপজেলা নির্বাচনী তপসীল ঘোষনার পর থেকে একক প্রার্থী মনোনয়নে উপজেলা ও জেলা আওয়ামীলীগ একাধিক বৈঠক করে ব্যর্থ হয়। পরে বিষয়টি কেন্দ্রের উপর ন্যাস্ত করা হয়। কিন্তু কোন সিদ্ধান্ত না দেয়ায় আওয়ামীলীগের ৪ নেতা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দাখিল করে বিজয়ের লক্ষ্যে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যান। চষে বেড়ান গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে। দীর্ঘ প্রচারনার ১৬ ঘন্টার পর যখন উপজেলার প্রায় ২ লাখ ভোটার তাদের রায় প্রদান শুরু করবে ঠিক সেই মুহর্তে মাত্র ১৬ ঘন্টা আগে আমির হোসেন মাষ্টারকে একক দলীয় প্রার্থী ঘোষণা দেয়ায় জেলা সদর সহ উপজেলার সর্বত্র শুরু হয় কানা ঘোষা। কেউ উল্লাসে ফেটে পড়েন। কেউ শুরু করেন সমালোচনা। এর বাতাস গিয়ে লাগে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও তার সমর্থকদের গায়ে। শুরু হয় নতুন করে ভোটের হিসেব নিকেশ।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com