মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:২৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জের নদী খোকোদের তালিকা প্রকাশ ॥ শীঘ্রই উচ্ছেদ অভিযান মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের পিটুনীতে বড় ভাই খুন এমপি আবু জাহিরের প্রচেষ্টায় হবিগঞ্জ সদর ও শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ ॥ আজ এক যোগে উদ্বোধন নবীগঞ্জে সন্ত্রাসী মুছা ১০ দিনেও অধরা কর আদায়ের উপর নির্ভর করে পৌরসভার উন্নয়ন-মেয়র ছাবির চৌধুরী নবীগঞ্জে নারী প্রতারক গ্রেপ্তার মানুষ বাঁচে তার কর্মে, বয়সের মধ্যে নয়-মিলাদ গাজী এমপি নবীগঞ্জে সাবেক ইউপি সদস্যের দাফন সম্পন্ন ॥ শোক প্রকাশ ‘হবিগঞ্জের মানুষ অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-মেয়র মিজান দুর্নীতি আর লুটপাটের মহাসাগরে নিমজ্জিত আওয়ামীলীগের পতন হবেই- জিকে গউছ
নবীগঞ্জের ৭টি সড়কে ২ মাস ধরে সিএনজি চলাচল বন্ধ

নবীগঞ্জের ৭টি সড়কে ২ মাস ধরে সিএনজি চলাচল বন্ধ

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ প্রায় দুই মাস ধরে নবীগঞ্জের ৭টি সড়কে সিএনজি (অটোরিক্সা) চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে ওই সড়ক গুলোতে চলাচলকারী কয়েক হাজার যাত্রী সাধারণকে পোহাতে হচ্ছে সীমাহীন দুর্ভোগ। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ-উপজেলার কাজীর বাজার ও বানিয়াচং উপজেলার মার্কুলী সিএনজি শ্রমিকদের সংগঠনের কমিটি ও আউশকান্দি বাজার থেকে নবীগঞ্জ শহর হয়ে বানিয়াচং ও মার্কুলী সড়কে সিএনজি চলাচলে নবীগঞ্জ শহরের শ্রমিকদের বাধা প্রদানকে কেন্দ্র করে উভয় উপজেলার শ্রমিকদের মধ্যে চরম বিরোধ দেখা দিয়েছে। এর জের ধরে গত দুই মাস ধরে কাজীর বাজার-মার্কুলী, আউশকান্দি-নবীগঞ্জ, ইনাতগঞ্জ-নবীগঞ্জ, কুর্শি-বাংলা বাজার-নবীগঞ্জ, আউশকান্দি-মার্কুলী, আউশকান্দি-বানিয়াচং ও গোপলার বাজার-নবীগঞ্জ এই ৭টি সড়কে সিএনজি (অটোরিক্সা) চলাচল বন্ধ রয়েছে। প্রতিদিন এসব সড়কে হাজার হাজার জন সাধারণ সিএনজি দিয়ে চলাচল করে থাকেন। এসব সড়কে বিকল্প কোন যান বাহন না থাকায় জন সাধারণ চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। অনেকেই রোগী নিয়ে বা জরুরী কাজে কোথায় যেতে চাইলে চুক্তি ভাড়ায় এসব সড়কে সিএনজি পাওয়া যাচ্ছে না। এতে রোগী নিয়ে পড়তে হয় বিপাকে। সাধারণ শ্রমিকরা র্দীঘদিন ধরে সিএনজি না চালানোর কারনে তারা অর্থাভাবে ভূগছেন। অনেক শ্রমিক এখন বেকার হয়ে পড়েছেন। এদিকে সিএনজি মালিকদের মধ্যে বিরাজ করছে চরম হতাশা। আবার কোন জরুরী কাজে কেউ সিএনজি নিয়ে এসব সড়কে বাহির হলে প্রতিপক্ষরা ভাংচুর করছে।
এব্যাপারে উপজেলা প্রশাসন নিরব ভূমিকা সবাইকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছে। আইন শৃংখলা কমিটিতে আলাপ হলেও কোন সুরাহা হচ্ছে না। এসব সংযোগ সড়কগুলোতে যাতায়াত অবস্থা ভাল থাকায় প্রতিদিন শত শত যাত্রী ওই সড়কগুলো দিয়ে মহাসড়কের শেরপুর কিংবা আউশকান্দি বাজার এসে বাসযোগে রাজধানী ঢাকা, সিলেটসহ বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে থাকেন। ওই সড়কগুলোতে সিএনজি না চলায় যাত্রীদের দুর্ভোগ চরম আকার ধারন করেছে। বিরোধটি সমাধানের লক্ষে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বার বার উদ্যোগ নিয়েও ব্যর্থ হয়েছেন। এলাকাবাসী অবিলম্বে বিরোধ মীমাংসা করে যাত্রী সাধারনের দুর্ভোগ লাঘবে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
এব্যাপারে আউশকান্দি-নবীগঞ্জ সড়কের সিএনজি শ্রমিক সমিতির সভাপতি খালেদ আহমদ জজ বলেন, আমাদের সিএনজি গুলো নবীগঞ্জ শহরে গেলেই ভাংচুর ও শ্রমিকদের মারধর করা হচ্ছে। নবীগঞ্জ শহর দিয়ে আমরা বানিয়াচং, মার্কুলী ও কাজির বাজার, ইনাতগঞ্জ যেতে পারছি না। আমরা বাধ্য হয়ে সিএনজি বন্ধ রেখেছি বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। কিন্তু কোন কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। এব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি এসএম আতাউর রহমান বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমরা উভয় শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের সাথে আলাপ করেছি। কিছুদিনের মধ্যে বিরোধ মিমাংসা হবে।
নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তোহিদ বিন হাসান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সিএনজি (অটোরিক্সা) শ্রমিকদের কোন বৈধ সংগঠন আমার জানামতে নেই। তাই এই সমস্যা নিয়ে কার সাথে আমরা বসবো। আমরা এসব রোডে বিকল্প বাস সার্ভিস চালু করা যায় কি না চিন্তা করছি। অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ নিয়ে আমি মে দিবসে সব শ্রমিকদের সাথে কথা বলবো। বিষয়টি উপজেলার জন সাধারনের দুর্ভোগ হলেও অটোরিক্সার আইনগত কোন ভিত্তি নেই।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com