বৃহস্পতিবার, ০৪ Jun ২০২০, ০৭:০৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
বাহুবলে বোনকে বিয়ে করার কথা বলায় স্কুল ছাত্রকে লিঙ্গ কেটে হত্যা ॥ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

বাহুবলে বোনকে বিয়ে করার কথা বলায় স্কুল ছাত্রকে লিঙ্গ কেটে হত্যা ॥ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাহুবলে বোনকে বিয়ে করার কথা বলায় চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্রকে লিঙ্গ কেটে হত্যার দায় স্বীকার করেছ শামীম মিয়া (১৮) নামের এক যুবক। ১৬৪ ধারায় হত্যাকান্ডের লোমহর্ষক বর্ণনা দেয় ওই যুবক। সোমবার (১২ ফেব্র“য়ারী) রাত ৮টায় জবানবন্দি দিয়েছে ঘাতক। হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। বাহুবল সার্কেলের এএসপি মোঃ নাজিম উদ্দিন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘাতক শামীম মিয়ার বোনকে ডিষ্টার্ব ও বিয়ের কথা বলায় ক্ষিপ্ত হয়ে সে তার লিঙ্গ কেটে হত্যা করে। ঘাতক শামীম উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের খুজারগাও গ্রামের আমির আলীর ছেলে। নিহত স্কুল ছাত্র একই গ্রামের আব্দুল হান্নানের ছেলে হাবিব মিয়া (১২)। সে স্থানীয় বিহারীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্র। এ ঘটনায় নিহতের পিতা আব্দুল হান্নান বাদী হয়ে বাহুবল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
গতকাল বাহুবল সার্কেলের এএসপি নাজিম উদ্দিন, ওসি মাসুক আলীর নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালিয়ে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত খোঁজারগাঁও গ্রামের শামীম মিয়া (১৮), শাহজাহান (১২) ও জুয়েল মিয়া (১২) গ্রেফতার করে। তন্মধ্যে শামীম আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেছে। প্রসঙ্গত, গত শনিবার বিকালে বানিয়াগাও মাদ্রসায় তাফসির মাহফিল শুনতে যান নিহত হাবিব সহ তার তিন বন্ধু। এক পর্যায়ে তাকে রাতের আধারে তার লিঙ্গ কেটে হত্যা করা হয়। পরদিন রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় বানিয়াগাও বন থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এর পরপরই পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার বন্ধু সহ ৫ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করায় শামীম মিয়া নামের এক যুবককে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরন করে পুলিশ।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com