সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:৩৫ পূর্বাহ্ন

ব্যানার ছিড়ে মাটিতে ফেলায় ১ হাজার কোটি টাকার মানহানী ॥ আজমিরীগঞ্জ ইউএনও’র বিরুদ্ধে যুবলীগ নেতার মামলা দায়ের

ব্যানার ছিড়ে মাটিতে ফেলায় ১ হাজার কোটি টাকার মানহানী ॥ আজমিরীগঞ্জ ইউএনও’র বিরুদ্ধে যুবলীগ নেতার মামলা দায়ের

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আজমিরীগঞ্জের ইউএনও পুলক কান্তি চক্রবর্তীসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে এক হাজার কোটি টাকার মানহানী মামলা দায়ের করেছেন যুবলীগ নেতা জয়দীপ রায় জনি। গতকাল বুধবার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত আজমিরীগঞ্জে তিনি মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় আরো যাদের আসামী করা হয়েছে তারা হলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী ও এলজিইডির কার্যসহকারি মোঃ সাকারিয়া (জাকারিয়া)। বিজ্ঞ বিচারক রাজিব আহমেদ তালুকদার মামলাটি আগামী ৬ ফেব্র“য়ারী বাদী ও বাদীর সাক্ষ্য গ্রহণ করে পরবর্তী আদেশ প্রদান করেবন বলে সুত্রে জানা গেছে।
মামলায় বাদী উল্লেখ করেন, আজমিরীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড জনসাধারণের নিকট প্রচারের নিমিত্তে ডিজিটাল ব্যানার, ফ্যাস্টুন ও ক্যালেন্ডারের মাধ্যমে উপজেলার ওয়ার্ড থেকে ইউনিয়ন ও থানা পর্যায়ে ব্যাপকভাবে প্রচার করে আসছে। গত ১১ জানুয়ারি সারা দেশের ন্যায় আজমিরীগঞ্জে তিন দিন ব্যাপি উন্নয়ন মেলা শুরু হয়। মেলায় আসা দর্শনার্থীদের নিকট শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড প্রচারের লক্ষ্যে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মমিনুর রহমান সজীব মেলা হতে ৫০/৬০ ফুট দূরে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ আজমিরীগঞ্জ উপজেলার উন্নয়ন সম্বলিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনি, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্ঠা সজীব ওয়াজেদ জয়, স্থানীয় এমপি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান ও জেলা যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম এবং সাধারণ সম্পাদক বুরহান উদ্দিন চৌধুরীর ছবি সম্বলিত একটি ডিজিটাল ব্যানার স্থাপন করা হয়। ১৩ জানুয়ারি আজমিরীগঞ্জের ইউএনও পুলক কান্তি চক্রবর্তী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী ও এলজিইডির কার্যসহকারি মোঃ সাকারিয়াসহ ৮/১০ জনকে নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে বলেন, আমার উপজেলা কমপ্লেক্সের ভেতরে সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সাথে রাজনীতি সম্পৃক্ত কোন ব্যানার থাকবে না। যুবলীগ নেতা বাবলু রায় এর প্রতিবাদ করলে তিনি হুমকি দিয়ে বলেন আমার সামনে এখনি এই ব্যানারগুলো খুলে ছিড়ে ফেল। ইউএনও’র নির্দেশ পেয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী ও এলজিইডির কার্যসহকারি মোঃ সাকারিয়া ব্যানার ছিড়ে মাটিতে ফেলে দেন। এতে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দের ১ হাজার কোটি টাকার মানহানী হয়েছে। ঘটনার পরপরই আজমিরীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ইউএনওর অপসারণ ও শাস্তি দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।
প্রসঙ্গত, আজমিরীগঞ্জে তিন দিনব্যাপি উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় কয়েকটি ব্যানার লাগান উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মমিনুর রহমান সজিব। ব্যানারে তিনি স্থানীয় এমপি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান ও জেলা যুবলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের ছবি ব্যবহার করেন এবং এমপি আব্দুল মজিদ খানের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের ছবি ব্যবহার করেন। পরে নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে সকল দলীয় ব্যানার মেলা ও অফিস প্রাঙ্গণ থেকে অপসারণ করা হয়।
উন্নয়ন মেলায় ব্যক্তিগত ব্যানার অপসারণ করায় যুবলীগ নেতার হাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কান্তি চক্রবর্তী লাঞ্ছিত হন। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়। আজমিরীগঞ্জ থানায় মামলাটি দায়ের করেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী। মামলায় আজমিরীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক বাবুল রায় ও যুগ্ম-আহবায়ক মমিনুর রহমান সজিবের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১০/১২জনকে আসামী করা হয়। মামলা দায়েরের পরপরই পুলিশ যুবলীগ কর্মী উকেদ মিয়াকে আজমিরীগঞ্জ বাজার থেকে গ্রেফতার করে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com