শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
ভারতীয় নাগরিকের পিটুনীতে বাংলাদেশী খুন ॥ লাশের অপেক্ষায় স্বজনরা বানিয়াচংয়ের বিভিন্ন বাজারে সেনাবাহিনীর জনসচেতনতামূলক প্রচারাভিযান শ্রীমঙ্গলে ৬৭ টি মামলায় ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা নবীগঞ্জে সরকারের অর্থ সহায়তার তালিকায় নারী কাউন্সিলরের পরিবারের ৬ সদস্যের নাম শচীন্দ্র লাল সরকারের সমাধীতে জেলা সিপিবি, উদীচী, কিবরিয়া ফাউন্ডেশন, সচেতন নাগরিক কমিটি ও মাতৃছায়া কেজি এন্ড হাইস্কুলের পুষ্পস্তবক অর্পন দৈনিক খোয়াই পত্রিকার সার্কুলেশন ম্যানেজার সাইফুলের পিতার ইন্তেকাল নবীগঞ্জে ভাতিজার হাতে চাচা খুন শ্রীমঙ্গলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শ্রীমঙ্গল পৌরসভার কাউন্সিলর আব্দুল আহাদের মৃত্যু বানিয়াচঙ্গের হাওর থেকে অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার হবিগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১
ছিনতাইয়ের আগে তিন আসামি পুলিশের মোবাইলে কথা বলেছেন

ছিনতাইয়ের আগে তিন আসামি পুলিশের মোবাইলে কথা বলেছেন

এক্সপ্রেস ডেস্ক ॥ জেএমবির ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত তিন আসামি ছিনতাই হওয়ার আগেই পুলিশের মোবাইল দিয়ে কথা বলেছেন বলে মন্ত্রিসভায় বিষয়টি আলোচনা হয়েছে। মন্ত্রিসভায় বলা হয়েছে, জেএমবির ফাঁসির আসামিদের কাশিমপুর কারাগার থেকে ময়মনসিংহ আদালতে নিয়ে যাওয়ার সময় আসামিরা পুলিশের মোবাইলফোনে তাদের দলের অন্য সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। মোবাইলফোনে তাদের অবস্থান সম্পর্কে অবগত হন ছিনতাইকারী সদস্যরা। গতকাল সোমবার মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মন্ত্রী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মন্ত্রী বলেন, গতকাল ময়মনসিংহের ঘটনাটি নিয়ে মন্ত্রিসভায় আলোচনা হয়। প্রধানমন্ত্রীসহ বেশ কয়েকজন মন্ত্রী এ আলোচনায় অংশ নেন। তিনি বলেন, বৈঠকে ওই ঘটনার জন্য প্রধানমন্ত্রী দুঃখ প্রকাশ করেছেন। নিরাপত্তা দুর্বলতা নাকি অন্য কোনো কারণে এ ঘটনা ঘটেছে সে বিষয়ে তদন্ত করে দেখতেও নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ‘ছিনতাই হওয়া দুই আসামিকে গ্রেফতারের অগ্রগতি ভালো। অল্প সময়ের মধ্যে বাকিরা ধরা পড়বেন বলেও মন্ত্রিসভার বৈঠকে আলোচনা হয়’ বলে ওই মন্ত্রী জানান। তিনি বলেন, চারজন পুলিশ দিয়ে এ তিন আসামিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিলো। ঘটনার সময় পুলিশের মোবাইল দিয়ে আসামিরা কথা বলেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, ফোনে কথা বলার মাধ্যমে জঙ্গিরা তাদের সহযোগীদের অবস্থান সম্পর্কে অবহিত করেছেন। বৈঠকে স্বর্ষ্ট্রা প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল উপস্থিত ছিলেন না বলে জানা গেছে। প্রসঙ্গত, রোববার কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বন্দি জেএমবি সদস্য সালাউদ্দিন সালেহীন, জহিদুল ইসলাম ওরফে বোমা মিজান এবং রাকিবুল হাসান পুলিশ প্রহরায় ময়মনসিংহ আদালতে হাজিরা দেয়ার জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় ত্রিশালে পৌঁছালে তাদের সহযোগীরা পুলিশকে আক্রমণ করে জেএমবি সদস্যদের নিয়ে পালিয়ে যায়। এতে একজন পুলিশ নিহত হন। পালিয়ে যাওয়া তিনজনের মধ্যে রাকিবকে ওইদিন বিকেলে আটক করা হয়। পরে সোমবার ভোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রাকিব নিহত হন। ঘটনায় চার সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com