সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ নবীগঞ্জের দেবপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন ॥ কে হাসবেন বিজয়ের হাসি? চুনারুঘাটে ভারতে পাচারকালে ১২শ’ কেজি রসুন জব্দ ইমামবাড়ীতে জমি বিক্রি করে দলিল করে না দেয়ায় আদালতে মামলা আবরার হত্যার প্রতিবাদে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির জনসমাবেশ শহরের আমিরচান এলাকায় দূর্বৃত্তদের হামলা ॥ মারপিট ১৫ ভরি স্বর্ণালংকার ছিনতাই বৃন্দাবন ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রফিক ইয়াবাসহ গ্রেফতার নাঈমা ফিলিং স্টেশনের স্বত্ত্বাধিকারী ইংল্যান্ড প্রবাসী মাহতাবুর রহমানের ইন্তেকাল নবীগঞ্জে কর্মরত সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবির মুরাদ-এর সাথে জেলা সাংবাদিক ফোরামের সৌজন্য সাক্ষাত মাধবপুরে স্কুল ছাত্রী অপহরণের অভিযোগ
শায়েস্তাগঞ্জ গোলচত্ত্বর নতুন নতুন নামকরণ ॥ দেশ-বিদেশে বিভ্রান্তি

শায়েস্তাগঞ্জ গোলচত্ত্বর নতুন নতুন নামকরণ ॥ দেশ-বিদেশে বিভ্রান্তি

মোহাম্মদ আলী মমিন ॥ ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও হবিগঞ্জ-চুনারুঘাট সড়ক এর কুটিরগাও’র চৌরাস্তার চত্ত্বরটি “শায়েস্তাগঞ্জ গোল চত্ত্বর” নামে পরিচিত। দেড় যোগের মধ্য ৩টি নামকরণ সম্বলিত সাইন বোর্ড দেশ-বিদেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করে ফেলেছে। সব চেয়ে বেশি বিভ্রান্তিতে পড়েছে মহাসড়কে চলাচলকারী দেশি-বিদেশী যানবাহন ও পরিবহনের যাত্রী, চালক, শ্রমিকরা। মহাসড়কে নির্মাণের শুরুতে শায়েস্তাগঞ্জ গোল চত্ত্বর নামীয় সাইন বোর্ড এ্যারোতে হবিগঞ্জ অপর দিকে চুনারুঘাট নিদের্শক চিহ্ন দেখা যেত। ২০০০ সালের পরই সেই নিদের্শক সাইন বোর্ডটি গোল চত্ত্বরে দেখা যায়নি। কয়েক বছর চত্ত্বরের ৪ দিকে দেখা গেল মেজর জেনারেল এম এ রব গোল চত্ত্বর। এর পর খোয়াই চত্ত্বর, নিচে একটি সংগঠনের নাম। ইদানিংকালে দুদিকে এনামুল হক মোস্তফা শহীদ চত্ত্বর নামীয় একটি সাইন বোর্ড ওই চত্ত্বরে দৃশ্য মান রয়েছে। গত ৩ সেপ্টেম্বর শায়েস্তাগঞ্জ গোল চত্ত্বর নিকট দিয়ে এ প্রতিনিধি ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী মমিন চলাচলকালে বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হয় এবং এ সংক্রান্ত ফেইসবুকে স্টেস্টাস দেয়া হয়। ১২ দিনে গোল চত্ত্বর বিষয়ে ৩ শতাধিক মন্তব্য পাওয়া যায়। ফেইসবুক ফ্রেন্ডস ১শ ৭২ জন মেজর জেনারেল রব গোল চত্ত্বর, ৭৩ জন শায়েস্তাগঞ্জ গোল চত্ত্বর, ২৫ জন এনামুল হক মোস্তফা শহীদ গোল চত্ত্বর, ২৫ জন খোয়াই চত্ত্বর, ৩ জন বিপিন পাল গোল চত্ত্বর ও ৩ জন সিপাহ সালার নাছিরুদ্দিন গোল চত্ত্বর নাম করণের পক্ষে যুক্তিসহ মন্তব্য করেন।
এ বিষয়ে ২ দিন পূর্বে যোগদানকারী হবিগঞ্জ সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সেলিম আজাদ খান এর মন্তব্য চাইলে তিনি সদ্য যোগদানের কারণ দেখিয়ে সংশ্লিষ্ট সহকারী প্রকৌশলীর মন্তব্য গ্রহণের অনুরোধ করেন। এসডিই মোঃ হামিদুল ইসলাম বলেন, হাইওয়ের প্ল্যান ডিজাইন প্রস্তুতকালে “শায়েস্তাগঞ্জ গোল চত্ত্বর” নাম করণ করা হয়েছিল, যা অব্যাহত। সড়ক ও জনপদ বিভাগের সব কাজেই শায়েস্তাগঞ্জ গোল চত্ত্বরই লিখতে হয়। বিভিন্ন নামকরণ বিষয়ে কোন মন্তব্য না করে এক প্রশ্ন উত্তরে তিনি বলেন, জনস্বার্থে বিভ্রান্তি নিরসন কল্পে শিঘ্রই গোল চত্ত্বরে দিক নিদের্শনামূলক আকর্ষণীয় সাইন বোর্ড প্রতিস্থাপন করা হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com