সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আগস্ট মাস আসলেই মনে দাগ কাটে-মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ পইলে ৭৭টি গরু কুরবানী বাড়িয়ে দিল ঈদের আনন্দ নবীগঞ্জ অপহরণের ৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুল ছাত্রী মাধবপুরে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত দুর্ধর্ষ ডাকাত এরশাদ আলী গ্রেপ্তার শায়েস্তাগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে এক ডাকাতকে গণধোলাই হবিগঞ্জ জেলা পুলিশ বনাম জেলা খেলোয়ার কল্যাণ সমিতির মধ্যে ফুটবল টুর্নামেন্ট কাশ্মিরী মুসলমানদের অধিকার অবিলম্বে ফিরিয়ে দিন ॥ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত সমন্বয় পরিষদ জ্যোতির্বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. দীপেন ভট্টাচার্য্যরে ॥ বক্তৃতা শুনে বিজ্ঞান চর্চায় আগ্রহ বেড়েছে হবিগঞ্জের শিক্ষার্থীদের ধুলিয়াখাল-মাহমুদপুর বাইপাস সড়ক টমটম চুরির অভিযোগে যুবক আটক হবিগঞ্জে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির রক্তদান কর্মসূচী ও শোক সভা
আজ মাথা নোয়াবার দিন মস্তক লজ্জায় অবনত

আজ মাথা নোয়াবার দিন মস্তক লজ্জায় অবনত

জালাল উদ্দিন রুমি ॥
কালের যাত্রাপথে সময় বহমান। দিন, মাস, বছর চলমান। সময়কে সাথে করে, সময়ের হাত ধরে আজ বাংলাদেশ বিশ^ পরিমন্ডলে মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে। আমরা গর্ব বোধ করছি। অহংকারে বুক টানটান।
আজ মাথা নোয়াবার দিন। মস্তক লজ্জায় অবনত। বাকরুদ্ধ ! কেন ? আমাদের এই পরিনতি। যে দেশের মানুষের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্তানের জন্য আমৃত্যু যুদ্ধ করে গেলেন দেশ-বিদেশের সাথে। নিজ স্বার্থকে পায়ে ঠেলে বঙ্গের মানুষের অধিকার আদায়ের চিৎকার। বাংলার এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে ছুটে বেড়িয়েছেন দিন-রাত। অবশেষে কাংঙ্খিত সেই দিন বাঙ্গালির কাছে ধরা দিল। হায়রে হতভাগা জাতি। কালের শ্রেষ্ঠ কণ্ঠের স্বর্ণ সন্তান বাঙ্গালী জাতির অহংকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করল বিপদগামী একদল সেনা সদস্য। নিভিয়ে দিল জীবন প্রদীপ। ১৫ আগষ্টের ভয়াল সেই রাত বাঙ্গালী জাতির কলঙ্ক অধ্যায়ের রাত। এই একটি রাত আজও আমাদের কাঁদায়। কান্নাই কেবল শেষ নয়, আজীবনকাল এই অপরাধের ঘানি বাঙ্গালী জাতি টানবে।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তনয়া বঙ্গনেত্রী শেখ হাসিনা আজ বাংলার প্রধানমন্ত্রী। অর্জনের খাতায় বহুমাত্রিক বাংলাদেশ। ক্রমাগত ভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে। সম্ভাবনার দ্বার উন্মুক্ত বিশ^দৃষ্টিতে। যে কাজটি অথবা যে সম্ভাবনাটি হয়তো আরও অনেক আগেই সম্ভব ছিল সেটি আমরাই করতে দেইনি। আজ আবাল-বৃদ্ধ-বনিতার কাছে ৪৭ বছর পর নানাবিধ প্রশ্ন। কেন আমরা এই অপরাধটির সাথে জড়িত হলাম। অবুঝ স্বপ্œডানার সেই শিশুটিকে হত্যা করলাম? হয়তো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবরের থেকেও আরও বড় কোন শেখ মুজিব হয়ে উঠতে পারতেন সেই শিশুটি। আমাদের মাঝে আমাদের এই বঙ্গের জন্য কাজ করতেন। আমরা তাঁকে হত্যা করি। ধিক আমাকে, আমি এই জাতীর সন্তান। যে মানুষটি স্বপ্ন দেখেছিল সোনার বাংলার, যে স্বপ্ন তাঁকে ঘুমাতে দিত না। যে স্বপ্নের বীজ বুনতেন এই বঙ্গের মাটি ও মানুষের জন্য। আমরা সেই স্বপ্নকে ধুলিস্বাৎ করে দেই টিয়ার সেলের ছুড়ে দেয়া সেই বুলেটে। নিঃস্তব্ধ করে দেই বাংলার মুখ।
কালের স্রোতধারায় আমরা আজ বিভিন্ন কারনেই শ্রেষ্টত্বের আসনে। আমি মনে করি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কোন দলের বা পরিবারের নন। তিনি জাতির পিতা। কখনো কখনো কেউ বঙ্গবন্ধুকে সংকীর্ণ দৃষ্টিকোন থেকে দেখার চেষ্ট করেন, যা অদৌ কাম্য নয়। দলমতের উর্ধ্বে থেকে দেশ ও জাতীর অহংকার হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে গন্য কারা উচিৎ। আজ তার মহাপ্রয়ান দিবসে বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি। আল্লাহ তার মৃত্যুকে কবুল করুন শহীদী মৃত্যু হিসেবে। সর্বোত্তম বেহেস্তে তার স্থান হইক, আমিন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com