সংবাদ শিরোনাম : 

 **  তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে রসুলগঞ্জ বাজার রণক্ষেত্র ॥ আহত ৩০ **  আজ মহাষষ্ঠী ॥ মাতৃশক্তির উদ্বোধনের মহামঙ্গল মুহূর্ত **  বাহুবল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন ৪ নভেম্বর **  নবাগত জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও লন টেনিস ক্লাবে আনুষ্ঠানিক বরণ **  বানিয়াচঙ্গের দুর্ধর্ষ ডাকাতি ॥ স্বর্নালংকাসহ ৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট **  আ’লা হযরত ইমাম আহমদ রেযা (রাঃ) ফাউন্ডেশন হবিগঞ্জের নতুন কমিটি গঠন **  শায়েস্তাগঞ্জ জহুর চান বিবি মহিলা কলেজের গভর্নিং বডির সভা **  জেলা যুবলীগের বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি আবু জাহির ॥ সকল ধর্মের মানুষের কল্যাণে কাজ করছে আওয়ামী লীগ সরকার **  বহুলা গ্রামে গাঁজার আসরে অভিযান ॥ ৫ গাঁজাসেবীকে ভ্রাম্যমান আদালতে অর্থদণ্ড **  পানিকর প্রদানে ৩ মাস বিলম্ব হলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত হবিগঞ্জ পৌরসভার **  ভারত সফর উপলক্ষে প্রনব দেবকে উপজেলা তাঁতীলীগের সংবর্ধনা **  বৃন্দাবন কলেজে প্রবাসী মোসাব্বির হোসেন রতনের বৃক্ষরোপন **  শায়েস্তানগর আবাসিক এলাকায় আরসিসি রাস্তা ঢালাই কাজের উদ্বোধন **  সুভাষ চন্দ্র দেবের মৃত্যুতে হবিগঞ্জ রোটারী ক্লাবের শোক **  যাদবপুরে বিষাক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু **  মাধবপুরে সোহাগ হত্যাকাণ্ড খুনীদের গ্রেফতারের দাবিতে ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদ সমাবেশ

চুনারুঘাটে ওয়ারিশানদের বঞ্চিত করতে একটি মহলের তৎপরতা

চুনারুঘাট প্রতিনিধি ॥ চুনারুঘাটে মাইনরটি এক সম্প্রদায়ের যিনি পরবর্তীতে মুসলিম ধর্মগ্রহণ করেছিলেন সেই মহিলার বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি থেকে ওয়ারিশানদের বঞ্চিত করার মানসে আট-ঘাট বেঁধে মাঠে নেমেছে একটি প্রভাবশালী মহল। প্রয়াত হিন্দু ওই মহিলার সম্পত্তি নামে-বেনামে এখন প্রভাবশালীদের দখলে রয়েছে। এ নিয়ে আদালতে মামলা চললেও প্রভাবশালী মহলটি ওই জমি দখলে রাখতে মরিয়া। এলাকাবাসীরা জানান, উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের ঘনশ্যামপুর গ্রামের মৃত গোবিন্দ চরণ নাথের মেয়ে শ্রীমতি কাছনি নাথ ইসলাম ধর্মগ্রহণ করে একই গ্রামের জমশের উল্লাহর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। জমশের উল্লাহর ঔরশে ও কাছনির গর্ভে  জন্ম নেন একে একে পাঁচ সন্তান। ওই কাছনি নাথ যিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে রূপচাঁন বিবি নাম ধারণ করে প্রায় আঠার কেয়ার জমি রেখে মৃত্যুবরণ করলে নানা কৌশলে ঐ সম্পত্তি প্রভাবশালীরা দখলে নেয়। এদিকে, কাছনি নাথের গর্ভের সন্তানরা প্রাপ্ত বয়স্ক হবার পর মৃত মায়ের ঐ সম্পত্তি ফিরে পেতে আদালতের দ্বারস্থ হন এবং আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের তৎকালীন চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ ২০১০ সালের ১৫ জুন কাছনি নাথের ওয়ারিশান হিসাবে তাদের সনদ প্রদান করেন। পরবর্তীতে, ২০১২ সালের ১৭ জুন ওই পাঁচ জনকেই একই সনদ প্রদান করেন বর্তমান চেয়ারম্যান আবেদ হাসনাত চৌধুরী সনজু। এদিকে, আদালতের রায়ে কাছনি নাথ ওরফে রূপচাঁন বিবির সন্তানদের পক্ষে রায় চলে আসার সংবাদ গুজব হিসেবে ছড়িয়ে পড়লে দখলবাজ ও তাদের পরে লোকজনকে সাথে নিয়ে ১৬ জুলাই রবিবার চেয়ারম্যান সনজু চৌধুরীর বিরুদ্ধে ভূঁয়া ওয়ারিশান সনদ প্রদানের দোহাই তুলে মানববন্ধন করে। কাছনি নাথের পুত্র চুনু মিয়া বলেন, প্রাক্তণ চেয়ারম্যানের প্ররোচনায় একটি স্বার্থান্বেষী মহল মায়ের সম্পত্তি থেকে আমাদেরকে বঞ্চিত করার হীন ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। চেয়ারম্যান সনজু চৌধুরী এক প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে বলেন, প্রাক্তণ চেয়ারম্যানের ওয়ারিশান সনদের উপর ভিত্তি করে আমি সনদ প্রদান করেছি তবে, যেদিন থেকে উপজেলা পরিষদে নির্বাচনে অংশগ্রহণের ঘোষণা দিয়েছি সেদিন থেকে রাজৈনতিক প্রতিপক্ষরা আমার বিরুদ্ধে নানান অপপ্রচার চালাচ্ছে এবং ষড়যন্ত্র করছে। আমি জননেত্রী কর্তৃক নৌকার মনোনয়ন পেলে যত ষড়যন্ত্রই হউক জনগণকে সাথে নিয়ে তা মোকাবেলা করতে প্রস্তুত আছি।

Share This:

Powered by WordPress | Designed by: search engine rankings | Thanks to seo services, denver colorado and locksmiths

Design & Developed BY PopularServer.Com