বুধবার, ১৭ Jul ২০১৯, ১২:৩৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
মাধবপুরে ১৯ মাদক মামলার আসামী আকবর কারাগারে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অফিসে পিস্তল টেকিয়ে মোটর সাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা আদালতেও নিরাপত্তা জোরদার নবীগঞ্জে বন্যাাশ্রয়কেন্দ্রসহ ১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্লাবিত বন্ধ ঘোষণা, ত্রাণ বিতরণ বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শনে নবীগঞ্জে আসছেন দুই মন্ত্রী ক্যান্সার আক্রান্তদের মাঝে চিকিৎসা সহায়তার চেক বিতরণ করলেন এমপি আবু জাহির পৌর কর্মকর্তাদের অবস্থানের কারণে নাগরিক সেবা বন্ধ নবীগঞ্জে ছাত্রদল নেতা রায়েছ চৌধুরীরমুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল নবীগঞ্জে খালিক মঞ্জিলের স্বত্ত্বাধিকারীবেলাল চৌধুরীকে বিদায় সংবর্ধনা বানিয়াচং থেকে চোরাই মোটরসাইকেল সহ যুবক আটক
লন্ডনের লুটন শহরে ব্যতিক্রর্মী ঈদ আড্ডা

লন্ডনের লুটন শহরে ব্যতিক্রর্মী ঈদ আড্ডা

অলিউর রহমান, লন্ডন থেকে ॥ প্রতি বছর ঈদ আসে ঈদ যায়। পিতা, মাতা, আত্মীয় স্বজন ও বন্ধু-বান্ধব থেকে বিচ্ছিন্ন সোনার হরিণের পিছু ধাওয়াকারী প্রবাসীরা ঈদের দিনে কর্মস্থলে বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি না থাকার কারনে ঈদের আমেজ বা আনন্দ থেকে বঞ্চিত থাকেন। অথচ দেশে ফেলে আসা আপনজনদেরকে সুন্দর ও আনন্দঘন পরিবেশে ঈদ করার জন্য প্রবাসীরা সাধ্যানুযায়ী সব কিছুরই জোগান দিয়ে থাকেন। বিলাত তৃতীয় বাংলা হিসাবে পরিচিত। তারপরও ঈদের দিনে আনন্দ উৎসব করা থেকে প্রবাসীরা হয় বঞ্চিত। উপরুন্ত দেশে অবস্থানরত আপনজনদের জন্য উৎকন্ঠায় থাকেন। প্রবাসীদের জীবনে এটাই যেন নিয়তি! ঈদের আমেজ, আনন্দ, উৎসব থেকে বঞ্চিত প্রবাসী বন্ধু-বান্ধব ও সমাজকর্মে নিবেদিত সৃজনশীল সতীর্থদেরকে নিয়ে হবিগঞ্জ অ্যালায়েন্স লুটন ইউকে গত ৪ জুলাই মঙ্গলবারে ঈদোত্তর একটি জমকালো আড্ডার আয়োজন করেছিল। এতে মিডল্যান্ড সহ ব্রিটেনের পূর্ব-পশ্চিম, উত্তর-দক্ষিনের শহরগুলো থেকে হবিগঞ্জের আর্ত-মানবতার সেবায় নিয়োজিত অসংখ্য কমিউনিটি সংগঠনের সৃজনশীল নেতৃবৃন্ত শতস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহন করেন। হবিগঞ্জ লুটন অ্যালায়েন্সের সম্মানীত সভাপতি ফজিলত আলী খান ও সাধারন সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী হীরু সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন শহর থেকে আগত নেতৃবৃন্দকে উষ্ণ স্বাগত জানান।  দীর্ঘদিন পরে একে অপরের সাথে সাক্ষাত হওয়ায় ঈদের আনন্দে সকল অংশগ্রহনকারীগণ ঈদের আনন্দে উদ্বেলিত হন। একে অপরের সাথে কুলা-কুলি ও ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের দৃশ্য ছিল আবেগপূর্ণ যা পরবর্তীকালে একটি
ব্যাতিক্রমধর্মী আনন্দ উৎসবে রূপ ধারন করে এবং সমাবেশস্থল এক খন্ড হবিগঞ্জের রূপায়ীত হয়। লুটন শহরে বসবাসকারী হবিগঞ্জবাসীর হৃদয় নিংড়ানো ভালবাসা ও আতিথিয়তায় দীর্ঘদিন পর ঈদের আমেজ অনুভূত হলে ঐতিহাসিকভাবে স্বিকৃত লুটন শহরের আতিথিয়তা প্রীতির ইতিহাস মনে পরে যায়।
লন্ডনের অদূরে অবস্থিত লুটন শহর একটি মাল্টিকালচারাল, মাল্টি রিলিজিয়াস বহুরুপে ও গুনে সমৃদ্ধ একটি শহর। যে শহরে কয়েক হাজার বাংলাদেশী, ভারতীয়, পাকিস্তানী, মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকা, অশিয়ান, ইউরোপিয়ান, মেডিটারিয়ান, কানাডিয়ান, অষ্ট্রেলীয়ান ও আমেরিকান সহ অসংখ্য অভিবাসীদেরকে সাদরে গ্রহন করেছে। আশ্রয় দিয়েছে। কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে। এই শহরে শতাধিক বিভিন্ন ভাষা-ভাষী অভিবাসীদের আবাসস্থল। বরফগলা শীত মৌসুমে তুষারপাত থেকে মানুষের মাথা রক্ষা ও উষ্ণতা প্রদান এবং গ্রীস্মকালে প্রখর রৌদ্রের মাঝে মাথায় শীতল ছায়া প্রদানকারী হ্যাট বা ক্যাপ তৈরীর কারখানা সহ বক্সহল মটর গাড়ীর প্রোডাকশন প্ল্যান্টের কারনে লুটন শহরটি সর্বাধিক পরিচিত।
লুটন শহরে বসবাস করার কারনে এবং শহরের বৈশিষ্টতায় আমাদের হবিগঞ্জবাসী তথা হবিগঞ্জ অ্যালায়েন্সের লুটনের নেতৃবৃন্দের অকৃত্রিম ভালবাসা ও আতিথিয়তায় বিভিন্ন শহর থেকে আগত হবিগঞ্জের বিভিন্ন প্রবাসী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ আভিভূত হয়েছেন। উল্লেখ ঈদের আড্ডাকে সফল ও মনোমুগদ্ধকরে তোলার জন্য অংশগ্রহনকারী নেতৃবৃন্দ নিজ নিজ শহর থেকে নিয়ে আসা সুস্বাদু মিষ্টান্ন এবং কেকের আয়োজন ছিল চোখে পরার মত।
পরিশেষে হবিগঞ্জের আর্ত-সামাজিক উন্নয়ন কল্পে ও জেলার বৃহত্তর স্বার্থে যুক্তরাজ্যে বিদ্যমান হবিগঞ্জের সকল প্রবাসী সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধ করে একটি সমন্বীত অ্যালায়েন্স করার উপর সকল নেতৃবৃন্দই গুরুত্ব আরোপ করেন। একই সাথে প্রবাসীদের সেতু বন্ধন, অধিকার রক্ষা, জানমালের নিরাপত্তা তথা আর্ত-মানবতার উন্নয়ন কল্পে স্ব-স্ব উদ্যোগে কোন কর্মসূচী নিলেও তাতে অন্যান্য সকল সংগঠনকে অংশগ্রহন ও কার্যকরি ভূমিকা রাখার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। বিশেষ করে একটি ব্যতিক্রমধর্মী ঈদ পরবর্তি আড্ডায় সৃজনশীল সমাজ কর্মীদের সমাবেশ, হবিগঞ্জকে নিয়ে সদূর প্রসারি ভাবনা সমূহ এক মোহনায় আলিঙ্গনের পরিবেশ তৈরী করার উদ্যোগ গ্রহন ও আয়োজনের জন্য আড্ডায় অংশগ্রহনকারী সকল নেতৃবৃন্দ হবিগঞ্জ অ্যালায়েন্স লুটন (ইউকের) সকল নেতা/কর্মীদেরকে আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান। একইসাথে লুটনের পথ ধরে বিভিন্ন শহরে আরো ঈদ পরবর্তি আড্ডার আয়োজন করা সম্ভব হলে হবিগঞ্জের সৃজনশীল সমাজ কর্মীদের মাঝে সেতু বন্ধন স্থাপন করা সম্ভব হবে বলে সকল নেতৃবৃন্দ আশা মতামত ব্যক্ত করেন। ঈদ আড্ডায় অংশগ্রহনকারী সকল নেতৃবৃন্দ হবিগঞ্জ লুটন অ্যালায়েন্সের অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকা ও সফলতা কামনা করেন।
মধ্যরাত পর্যন্ত চলা এই ম্যারাথন
আড্ডায় অংশগ্রহন করেন সর্বজনাব
বিলেতের হবিগঞ্জের বিশিষ্ট মুরুব্বি, বীর মুক্তিযোদ্ধা, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের সভাপতি এম এ আজিজ, মিডল্যান্ডের বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব, হবিগঞ্জ সোসাইটি ইউকের উপদেষ্টা, সাবেক সভাপতি রানা মিয়া চৌধুরী, লুটনের বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের সভাপতি ফজিলত আলী খান, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট মোমিন আলী, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের সমাজ বিষয়ক সম্পাদক শহীদুল আলম চৌধুরী বাচ্চু, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের কার্যকরি সদস্য কবি দেওয়ান হাবিব চৌধুরী, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের উপদেষ্টা হান্নান চৌধুরী, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের কার্যকরি সদস্য ও বৃন্দাবন সরকারী কলেজ এক্স-ষ্টুডেন্ট এসোসিয়েশন ইউকের সাবেক সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের কার্যকরি সদস্য ও ইয়ুথ এসোসিয়েশন ইউকের সাবেক সভাপতি নুরুদ্দিন চৌধুরী বুলবুল, কমিউনিটি নেতা জালাল উদ্দিন, হবিগঞ্জ সোসাইটি ইউকের সফল সাধারণ সম্পাদক এম এ মোন্তাকিম, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের কার্যকরি সদস্য ও বৃন্দাবন সরকারী কলেজ এক্স-ষ্টুডেন্ট এসোসিয়েশন ইউকের সভাপতি সালেহ আজহার খান পাপ্পু, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের কার্যকরি সদস্য সৈয়দ মোস্তাক আহমেদ, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের কার্যকরি সদস্য শাহ আশফাকুল কবির, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের কার্যকরি সদস্য মোতাকাব্বির বাচ্চু, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের নেতা সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের যুগ্ম সম্পাদক মারুফ চৌধুরী, লুটনের উদীয়মান কমিউনিটি নেতা, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী হিরু, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের নেতা মোঃ মারুফ, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মান্নান চৌধুরী, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের সাংগঠনিক সম্পাদক এ রহমান অলি, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের কার্যকরি সদস্য কাজী তাজউদ্দিন আকমল, হবিগঞ্জ ডিষ্ট্রীক্ট ওয়েলফেয়ার ইউকের সদস্য বিষয়ক সম্পাদক কামাল চৌধুরী, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের উপদেষ্টা খুরুম শফিক চৌধুরী, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের উপদেষ্টা সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের নেতা শাহ রসিদ জুয়েল, হবিগঞ্জ সোসাইটি ইউকের সাংগঠনিক সম্পাদক এ বি চৌধুরী অপু, হবিগঞ্জ সোসাইটি ইউকের ট্রেজারার জিয়া তালুকদার, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের সহ সাধারণ সম্পাদক কাজী আজমত, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের ট্রেজারার আবুল হোসেন, হবিগঞ্জ এলায়েন্স লুটনের নেতা মোঃ সেলিম আহমেদ প্রমুখ।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com