বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জের জালালসাফ গ্রামে একটি পরিবারকে সমাজচ্যুত রাস্তাঘাটে চলাফেরা ও হাট-বাজারে যাওয়া বন্ধ

নবীগঞ্জের জালালসাফ গ্রামে একটি পরিবারকে সমাজচ্যুত রাস্তাঘাটে চলাফেরা ও হাট-বাজারে যাওয়া বন্ধ

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ নবীগঞ্জে একটি পরিবারকে সমাজচ্যুত করা হয়েছে। গত ১৪ ফেব্র“য়ারী দেবপাড়া ইউনিয়নের জালালসাফ গ্রামের ফরাজ মিয়ার পরিবারকে সমাজচ্যুত করা হয়। এর পর থেকে পরিবারের লোকজন রাস্তাঘাটে চলাচল করতে পারছেনা। হাট-বাজারে যাতায়াত বন্ধ রয়েছে। এমনকি কোন ঔষধ পর্যন্ত আনতে পারছেনা। এতে করে পরিবারের লোকজন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে। একটি সালিস বৈঠকে অযৌক্তিক সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করায় ফরাজ মিয়ার পরিবারকে সমাজচ্যুত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন করেছেন ফরাজ মিয়া।
আবেদন সূত্রে জানা গেছে-গত ১২ ফেব্র“য়ারী জালালসাফ গ্রামের এলেমানের ছেলে মুজিব মিয়া এবং তালেবান মিয়ার ছেলের মধ্যে গোপলার বাজারে হাতাহাতি হয়। এ ঘটনাটি ফরাজ মিয়া তাৎক্ষনিক মিমাংসা করে দেন। এ ঘটনা নিয়ে পরদিন ১৩ ফেব্র“য়ারী এলেমান মিয়ার বাড়িতে সালিস বসে। এতে সভাপতিত্ব করেন গোলাম মস্তোফা। সভার শুরুতে সভাপতি এ ঘটনার জন্য উভয় যুবকের পরিবারকে ৩০ হাজার টাকা করে শালিসে জমা দিতে বলেন। এ জমা টাকা দেয়ার বিষয় নিয়ে প্রতিবাদ করেন ফরাজ মিয়া। এতে সভাপতি গোলাম মস্তোফা ক্ষিপ্ত হয়ে সালিস বৈঠক ত্যাগ করে চলে যান। এর পরদিন ১৪ ফেব্র“য়ারী গোলাম মস্তোফার নেতৃত্বে একটি বৈঠক ডাকা হয়। বৈঠকে প্রতিবাদকারী ফরাজ মিয়ার পরিবারকে সমাজচ্যুত করা হয়। পরিবারের কেউ যাতে রাস্তাঘাটে চলাফেরা করতে না পারে এবং হাটবাজারে কোন দোকানদার যাতে কোন জিনিসপত্র ওই পরিবারের কাছে বিক্রি না করেন এজন্য সবাইকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। এর পর ওই পরিবারটির রাস্তাঘাটে চলাফেরা এবং হাট-বাজারে যাওয়া বন্ধ রয়েছে। পরিবারটি চরম নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটাচ্ছে বলে ফরাজ মিয়া জানান। তিনি জেলা প্রশাসকসহ মানবাধিকার সংস্থার কাছে দাবী জানাচ্ছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com