শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১১:১৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
ভারতীয় নাগরিকের পিটুনীতে বাংলাদেশী খুন ॥ লাশের অপেক্ষায় স্বজনরা বানিয়াচংয়ের বিভিন্ন বাজারে সেনাবাহিনীর জনসচেতনতামূলক প্রচারাভিযান শ্রীমঙ্গলে ৬৭ টি মামলায় ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা নবীগঞ্জে সরকারের অর্থ সহায়তার তালিকায় নারী কাউন্সিলরের পরিবারের ৬ সদস্যের নাম শচীন্দ্র লাল সরকারের সমাধীতে জেলা সিপিবি, উদীচী, কিবরিয়া ফাউন্ডেশন, সচেতন নাগরিক কমিটি ও মাতৃছায়া কেজি এন্ড হাইস্কুলের পুষ্পস্তবক অর্পন দৈনিক খোয়াই পত্রিকার সার্কুলেশন ম্যানেজার সাইফুলের পিতার ইন্তেকাল নবীগঞ্জে ভাতিজার হাতে চাচা খুন শ্রীমঙ্গলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শ্রীমঙ্গল পৌরসভার কাউন্সিলর আব্দুল আহাদের মৃত্যু বানিয়াচঙ্গের হাওর থেকে অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার হবিগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১
নবীগঞ্জে আলোচিত জোৎস্না হত্যা মামলা ॥ কাউন্সিলর জাকিরসহ ৭জনের বিরুদ্ধে সিআইডির চার্জশীট

নবীগঞ্জে আলোচিত জোৎস্না হত্যা মামলা ॥ কাউন্সিলর জাকিরসহ ৭জনের বিরুদ্ধে সিআইডির চার্জশীট

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নবীগঞ্জে আলোচিত জোৎস্না হত্যা মামলার এজাহারভূক্ত আসামীদের বাদ দিয়ে নবীগঞ্জ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার জাকির হোসেনসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে পুনরায় চার্জশীট দিয়েছে সিআইডি।
চার্জশীটভূক্ত আসামীরা হচ্ছে-নবীগঞ্জের মদনপুর গ্রামের আব্দুল্লাহ মিয়ার পুত্র আল-আমিন, মায়ানগর গ্রামের জামাল উদ্দিনের পুত্র ছদর মিয়া, একই গ্রামের মৃত টেনাই মিয়ার পুত্র জামির মিয়া ওরফে জমির, পুরুরোষত্তমপুর গ্রামের কুবাদ আলীর পুত্র তাজ উদ্দিন, গন্ধ্যা গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের পুত্র কানা আকবর উদ্দিন, একই গ্রামের মৃত হাজী সামছুদ্দিনের পুত্র মহিউদ্দিন আহমেদ ওরফে সুফি মিয়া লন্ডনী, মৃত আব্দুল লতিফ মাষ্ঠারের পুত্র কাউন্সিলর জাকির হোসেন।
ঘটনার বিবরণের জানা যায়, ২০১৪ সালের ১০ ডিসেম্বর সাবেক কাউন্সিলর যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমানের বাড়ির সীমানা প্রাচীরের সামনে জোৎস্না বেগম নামে এক গৃহবধূর লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। তার গ্রামের বাড়ি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার উচাইল চারিনাও গ্রামে। এ ঘটনায় জোৎস্নার ভাই রজব আলী ফকির বাদী হয়ে সাবেক কাউন্সিলার মিজানুর রহমানকে প্রধান আসামী করে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে নবীগঞ্জ থানায় মামলা করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা দীর্ঘ তদন্ত শেষে উল্লেখিত আসামীরা ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় তাদের বিরুদ্ধে চার্জশীট প্রদান করেন।
কিন্তু মামলার বাদী দাখিলকৃত চার্জশীটের বিরুদ্ধে আদালতে নারাজী আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত আবেদন নামঞ্জুর করেন। পরবর্তীতে বাদী হবিগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে রিভিশন মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ দায়রা জজ শোনানী শেষে মামলাটি পুনরায় তদন্তের জন্য মামলাটি সিআইডিতে প্রেরণের আদেশ দেন।
সিআইডির তদন্তকারী কর্মকর্তা দীর্ঘ তদন্ত শেষে পূর্বের চার্জশীটের অভিযুক্তদের বহাল রেখে পুনরায় উল্লেখিত ৭জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। ইতিমধ্যে অত্র মামলায় আসামী ছদর মিয়া ও তাজ উদ্দিন বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।
তদন্তে প্রকাশ পায় যে, কাউন্সিলর মিজানুর রহমানের সঙ্গে একই গ্রামের মহিউদ্দিন আহমেদ ওরফে সুফি মিয়া লন্ডনীর জায়গায় জমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। সুফি মিয়া মিজানুর রহমাকে ফাঁসাতে আসামীদের নিয়ে বিভিন্ন ফন্দি করে। এক পর্যায়ে ৫ লাখ টাকার বিনিময়ে আসামীরা উক্ত হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটায়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com