বুধবার, ১৭ Jul ২০১৯, ১২:৪১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
মাধবপুরে ১৯ মাদক মামলার আসামী আকবর কারাগারে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অফিসে পিস্তল টেকিয়ে মোটর সাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা আদালতেও নিরাপত্তা জোরদার নবীগঞ্জে বন্যাাশ্রয়কেন্দ্রসহ ১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্লাবিত বন্ধ ঘোষণা, ত্রাণ বিতরণ বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শনে নবীগঞ্জে আসছেন দুই মন্ত্রী ক্যান্সার আক্রান্তদের মাঝে চিকিৎসা সহায়তার চেক বিতরণ করলেন এমপি আবু জাহির পৌর কর্মকর্তাদের অবস্থানের কারণে নাগরিক সেবা বন্ধ নবীগঞ্জে ছাত্রদল নেতা রায়েছ চৌধুরীরমুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল নবীগঞ্জে খালিক মঞ্জিলের স্বত্ত্বাধিকারীবেলাল চৌধুরীকে বিদায় সংবর্ধনা বানিয়াচং থেকে চোরাই মোটরসাইকেল সহ যুবক আটক
নিজের প্রাণ রক্ষা করতে না পারলেও শিশু সন্তানকে বাঁচালেন মমতাময়ী মা

নিজের প্রাণ রক্ষা করতে না পারলেও শিশু সন্তানকে বাঁচালেন মমতাময়ী মা

বাহুবল প্রতিনিধি ॥ নিজের প্রাণবাঁচাতে না পারলেও ৩ বছরের শিশু সন্তানকে ঠিকই বাঁচালেন মমতাময়ী মা। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (২২ মে) দুপুরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বাহুবল উপজেলার লষ্করপুর নামক স্থানে দুর্ঘটনায় কবলিত যাত্রীবাহী বাসে। পুলিশ ওই হতভাগা মা (অজ্ঞাত পরিচয়) এর মরদেহ এবং শিশুকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করেছে। ওই দুর্ঘটনায় অন্তত ৩০ যাত্রী আহত হয়েছে। আহতদের হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসাধীন অন্তত আরো ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার দুপুরে সিলেট থেকে ছেড়ে কুমিল্লাগামী একটি যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মেট্রো ব ১১-০৮৬৮) ঢাকা-সিলেট মহসড়কের লস্করপুর নামক স্থানে পৌঁছুলে  চাকা পামচার হয়ে উল্টে গিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে অন্তত ৩০ জন যাত্রী আহত হন। খবর পেয়ে বাহুবল থানা পুলিশ ও শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন। এরই মধ্যে স্থানীয় লোকজন অন্তত ৩০ জনকে বাসের ভিতর থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠান। পরে শায়েস্তাগঞ্জ ফায়ার স্টেশনের অফিসার জামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল উদ্ধারকর্মী ঘটনাস্থলে এসে ড্রিল মেশিন দিয়ে বাসের বডি কেটে অজ্ঞাত পরিচয় মহিলার (৩৫) মরদেহ উদ্ধার করে। একই সময় অজ্ঞাত পরিচয় (৫০) মহিলাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় কাইতপাড়া গ্রামের আব্দুস শহীদ বলেন, দুর্ঘটনার পরপর আমরা ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসি। তখন বাসটি অনেক যাত্রী আটকা পেড়ে আছেন। তারা চিৎকার করে বাঁচার আকুতি জানাচ্ছিলেন। হঠাৎ চোখে পড়লো পয়ত্রিশোর্ধ এক আহত মহিলা ভিতর থেকে তার ৩ বছরের শিশু সন্তানকে উপরে তোলে তাকে উদ্ধারে সাহায্য চাচ্ছেন। তখনও ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারীরা পৌছেননি। এ সময় স্থানীয় লোকজন উদ্ধার কাজ শুরু করলেও ওই মা ও শিশুর কাছে পৌঁছা যাচ্ছিল না। এক পর্যায়ে বাধ্য হয়ে আটকা পড়া মহিলা বহু কষ্টে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ির গ্লাস ভেঙ্গে ৩ বছরের শিশুটিকে বাহিরে বের করে দেন। এ সময় শিশুটি বাহিরে এসেই তার পিতাকে খোঁজতে শুরু করে। এ ঘটনার কয়েক মিনিটের মধ্যে আটকা পড়া আহত ওই মহিলার নিথর দেহ পড়ে থাকে।
সহকারী পুলিশ সুপার রাসেলুর রহমান (বাহুবল-নবীগঞ্জ সার্কেল) জানান, বৃষ্টি চলাকালীন সময়ে গাড়ীর গতিবেগ বেশি থাকায় চাকা পামচার হয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি উল্টে যায়। শিশুটির পরিচয় এবং তার পিতার কোন সন্ধান মেলেনি।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com