বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শহরে বিভিন্ন ব্যান্ডের বিপুল পরিমাণ ভারতীয় পন্যসহ চুনারুঘাটের যুবক আটক জেলা যুবলীগের আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলে এমপি আবু জাহির ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র অবদান হবিগঞ্জবাসী ভুলতে পারবে না সিলেট স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা মামলায় হবিগঞ্জের যুবকসহ ৩ জন গ্রেফতার জাতীয়তাবাদী ওলামাদল এর ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন হবিগঞ্জ পৌরসভার কর মেলায় সাড়ে ৪০ লক্ষ টাকা আদায় হবিগঞ্জে নতুন করে ২ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবিগঞ্জে সাড়ে ৩ লাখ শিশুকে ভিটামিন এ খাওয়ানো হবে হবিগঞ্জ জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি মুরাদের পিতার ইন্তেকাল ॥ দাফন সম্পন্ন জি কে গউছের নাকে সফল অস্ত্রোপচার পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া কামনা নবীগঞ্জের জাহির হত্যা মামলায় আরও ৭ আসামীর জামিন না-মঞ্জুর
কাপড় ব্যবসায়ী সন্তোষ হত্যাকান্ডের মুল আসামী হারুন ড্রাইভার গ্রেফতার

কাপড় ব্যবসায়ী সন্তোষ হত্যাকান্ডের মুল আসামী হারুন ড্রাইভার গ্রেফতার

রিফাত উদ্দিন, মাধবপুর থেকে ॥ হবিগঞ্জ শহরের কাপড় ব্যবসায়ী আজমিরীগঞ্জের সন্তোষ চৌধুরী হত্যাকান্ডের মূল হোতা হারুন অর রশিদ ওরুপে হারুন ড্রাইভারকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মাধবপুর থানার ওসি তদন্ত মোঃ সাজেদুল ইসলাম পলাশ শ্রীমঙ্গল শহরের পূর্বাশায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃত হারুন ড্রাইভার শ্রীমঙ্গল শহরের পূর্বাশা এলাকার ছনব মিয়ার ছেলে।
পুলিশ জানায়, ২০১৫ সালের ১৯ ডিসেম্বর রাতে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার মৃত মনোরঞ্জন চৌধুরীর ছেলে সন্তোষ চৌধুরীসহ ৩ কাপড় ব্যবসায়ী নরসিংদীর বাবুর হাট থেকে কাপড় কিনে ট্রাকযোগে হবিগঞ্জ ফিরছিলেন। পথে সায়েদুর নামের এক ব্যক্তি সরাইল বিশ্বরোড থেকে ওই ট্রাকে উঠে চালক ও হেলপারের সহযোগিতায় ৩ ব্যবসায়ীকে চায়ের সঙ্গে চেতনানাশক ঔষধ খাওয়ায়। এরই মধ্যে গাড়ির পেছনে থাকা দুই ব্যবসায়ী অজ্ঞান হয়ে গেলে রাস্তায় তাদের ফেলে দেয় তারা। কিন্তু সন্তোষ চৌধুরী পুরোপুরি অজ্ঞান হয়নি। এক পর্যায়ে সে জেগে উঠে সঙ্গী দুই ব্যবসায়ীকে দেখতে না পেয়ে তারা কোথায় জানতে চায়। এ সময় সায়েদুর ট্রাক চালক হারুন ও হেলপর মিলে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে মাধবপুর উপজেলার নারায়নপুর এলাকার একটি ধান ক্ষেতে কাদামাটিতে পুঁতে রেখে কাপড় নিয়ে পালিয়ে যায় ঘাতকরা। পরদিন মাধবপুর থানা পুলিশ ব্যবসায়ী সন্তোষের মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় তার ভায়রা ভাই তপন দাস বাদী হয়ে মাধবপুর থানায় অজ্ঞাতদের আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com