মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জের নদী খোকোদের তালিকা প্রকাশ ॥ শীঘ্রই উচ্ছেদ অভিযান মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের পিটুনীতে বড় ভাই খুন এমপি আবু জাহিরের প্রচেষ্টায় হবিগঞ্জ সদর ও শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ ॥ আজ এক যোগে উদ্বোধন নবীগঞ্জে সন্ত্রাসী মুছা ১০ দিনেও অধরা কর আদায়ের উপর নির্ভর করে পৌরসভার উন্নয়ন-মেয়র ছাবির চৌধুরী নবীগঞ্জে নারী প্রতারক গ্রেপ্তার মানুষ বাঁচে তার কর্মে, বয়সের মধ্যে নয়-মিলাদ গাজী এমপি নবীগঞ্জে সাবেক ইউপি সদস্যের দাফন সম্পন্ন ॥ শোক প্রকাশ ‘হবিগঞ্জের মানুষ অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-মেয়র মিজান দুর্নীতি আর লুটপাটের মহাসাগরে নিমজ্জিত আওয়ামীলীগের পতন হবেই- জিকে গউছ
বাহুবলে হত্যা মামলার বাদী ও স্বাক্ষীরা নিরাপত্তা নিয়ে শংঙ্খিত

বাহুবলে হত্যা মামলার বাদী ও স্বাক্ষীরা নিরাপত্তা নিয়ে শংঙ্খিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হত্যার মামলা বাদী ও স্বাক্ষীদের জানমালের নিরাপত্তা নিয়ে শংঙ্কিত বাহুবল উপজেলার শিবপাশা (মুশরিবখলা) গ্রামের নিহত আব্দুর রশিদ এর পরিবার, স্বাক্ষী এবং স্বজনরা। গতকাল হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন এমন অভিযোগ করেন নিহত আব্দুর রশিদ হত্যা মামলা বাদী মোঃ মখলিছুর রহমান।
সংবাদ সম্মেলনে মখছিলুর রহমান বলেন, চলতি বছরের ২৫ জুলাই বিকাল ৫টার দিকে আমার পিতা আব্দুর রশিদকে নৃশংসভাবে হত্যা করে প্রতিপক্ষের লোকজন। হত্যাকারীরা আমার বাবার মেরুদন্ডের হাড়, আঙ্গুল, দু’পায়ের গোড়ালী ও হাত কেটে ফেলে। তিনি বলেন, আমার বাবা প্রাণে বাঁচার জন্য এমন কোন চেষ্টা নেই যা তিনি করেননি। কিন্তু হত্যাকারীদের হাত থেকে রক্ষা পাননি। তারা নৃশংসভাবে আমার বাবাকে হত্যা করেও ক্ষান্ত হয়নি। এখন আমাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরণের ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। আমরা মামলায় যাদের স্বাক্ষী করেছি লুৎফুর রহমানসহ তাদেরকেও আসামীরা অনবরত বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। তাদের উপর বিভিন্ন মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করবে বলে এলাকায় গুণজন রয়েছে। এমনতাবস্থায় আমরা নিরাপত্তা নিয়ে চরম শংঙ্কিত রয়েছি।
মুখলিছুর রহমান বলেন, ইতিপূর্বে আমার মানিত ১নং স্বাক্ষী লুৎফুর রহমান বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সহযোগি সংগঠন তরুণ লীগ ও বাহুবল থানা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সদস্য হওয়া সত্ত্বেও আসামীরা টাকার বিনিময়ে মিথ্যা অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করায়। কিন্তু গ্রেফতারের ৩ দিন পর অদৃশ্য কারণে লুৎফুর রহমানকে জামায়াত শিবিরের একটি মামলায় তাকে শ্যোন এ্যারেস্ট দেখানো হয়। তিনি বলেন, আসামীরা ও তাদের আত্মীয় স্বজনরা এলাকায় বলাবলি করছে লুৎফুর রহমানকে যেভাবে মিথ্যা মামলায় জেলে যেতে হয়েছিল একইভাবে অন্যান্য স্বাক্ষীদেরকেও জেলে যেতে হবে। তারা প্রচুর অর্থ সম্পত্তির মালিক হওয়ায় টাকার বিনিময়ে আমাদের বিভিন্নভাবে হয়রানীর চেষ্টা করছে।
মুখলিছুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, স্বাক্ষী লুৎফুর রহমানসহ অন্যান্য সাক্ষীগণ ও আত্মীয় স্বজনদের নিয়ে আতংকগ্রস্ত হয়ে দিনাতিপাত করছি আমরা।
এ ব্যাপারে আমি হবিগঞ্জের পুলিশ সুপারসহ প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন লুৎফুর রহমান, তোফাজ্জুল হক, আব্দুর রাজ্জাক প্রমূখ।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com