মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জের নদী খোকোদের তালিকা প্রকাশ ॥ শীঘ্রই উচ্ছেদ অভিযান মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের পিটুনীতে বড় ভাই খুন এমপি আবু জাহিরের প্রচেষ্টায় হবিগঞ্জ সদর ও শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ ॥ আজ এক যোগে উদ্বোধন নবীগঞ্জে সন্ত্রাসী মুছা ১০ দিনেও অধরা কর আদায়ের উপর নির্ভর করে পৌরসভার উন্নয়ন-মেয়র ছাবির চৌধুরী নবীগঞ্জে নারী প্রতারক গ্রেপ্তার মানুষ বাঁচে তার কর্মে, বয়সের মধ্যে নয়-মিলাদ গাজী এমপি নবীগঞ্জে সাবেক ইউপি সদস্যের দাফন সম্পন্ন ॥ শোক প্রকাশ ‘হবিগঞ্জের মানুষ অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-মেয়র মিজান দুর্নীতি আর লুটপাটের মহাসাগরে নিমজ্জিত আওয়ামীলীগের পতন হবেই- জিকে গউছ
মাধবপুরে সোনাই নদী এখন সুর খাল মাটি ভরাট করে গড়ে উঠেছে স্থাপনা

মাধবপুরে সোনাই নদী এখন সুর খাল মাটি ভরাট করে গড়ে উঠেছে স্থাপনা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাটি ভরাট করে মাধবপুরে সোনাই নদী দখল কাজ চলছে। কেউ কেউ স্থাপনাও গড়ে তুলেছেন। ফলে এককালের নদী এখন সরু খালে পরিণত হয়েছে। প্রশাসন এ ব্যাপারে কোন পদক্ষেপই নিচ্ছেনা। স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, উপজেলার সদরে অবস্থিত প্রসিদ্ধ বাজারটি এক সময় সোনাই নদীর তীর ঘেষে গড়ে উঠেছিল। ব্যবসায়ীরা নদীকেই পণ্য আনা নেওয়ার প্রধান মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছিল। কৃষকরা নদী থেকে পানি নিয়ে জমি চাষাবাদ করত। সেই খরস্রোতা সোনাই নদী দিনে দিনে ভরাট হয়ে এখন সরু খালে পরিণত হয়েছে। মাধবপুর পৌর শহরের গংগানগর থেকে কাটিয়ারা-গোয়ালনগর পর্যন্ত নদীর দু’তীরে জায়গা দখল করে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন অবৈধ স্থাপনা। প্রতিদিন বাজারের বর্জ্য ময়লা পলিথিন ফেলে নদীর পানিকে দুষণ করা হচ্ছে। নদীতে বর্জ্য পলিথিন পড়ে পানি প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, এক সময় এ নদী দিয়ে দুর দুরান্তের বাজার থেকে নৌকা ও জাহাজযোগে ব্যবসায়ীরা পণ্য আনা নেয়া করতেন। এখন এ নদী পথে কোনো পণ্য আনা নেওয়া যায় না। স্থানীয় কৃষকরা জানান, এক সময় নদী থেকে পানি নিয়ে বোরো মৌসুমে ধান চাষাবাদ করা হতো। এখন নদীতে পানি খুব কম। নদীর দু’তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে নদীটি খনন করা হলে আবারো সোনাই নদী তার যৌবন ফিরে পেত। নদী খননের উদ্যোগ নেই যুগ যুগ ধরে। এ ধারা চলতে থাকলে এক সময় খরস্রোতা ঐতিহ্যবাহী এ নদীর চিহ্ন মুছে যাবে। এতে পরিবেশও বিপর্যয়ের মধ্যে পড়বে। মাধবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুখলেছুর রহমান বলেন, যারা নদীর জায়গা দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করেছে তা উচ্ছেদ করা হবে এবং পরিবেশ দুষণকারীর বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com