শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১০:৫২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শায়েস্তাগঞ্জে চাঁন্দের গাড়ির চাপায় নিহত ১ ব্যাংকার্স এসোসিয়েশনের এজিএম সম্পন্ন ॥ সেলিম সিদ্দিকী সভাপতি ও আব্দুল্লাহ সম্পাদক পুন: নির্বাচিত নবীগঞ্জে ভুয়া কাগজ দিয়ে রেজেষ্ট্রি ॥ ২ দলিল লিখক বরখাস্ত ড.রেজা কিবরিয়ার হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে গণফোরামে যোগদান করলেন নবীগঞ্জের সাবেক ছাত্রনেতা আবুল হোসেন জীবন হবিগঞ্জ জেলার সর্বোচ্চ আয়কর পরিশোধকারী আহছান কবীর তানজীম ও সাইদাতুন্নিছাকে ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র প্রদান যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ জেলা সমিতির কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের স্কলারশিপ এ্যাওয়ার্ড প্রদান নবীগঞ্জ পৌর আইডিয়াল স্কুলে বিদায় অনুষ্ঠান ও অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্টিত হবিগঞ্জে বিশ্ব ডায়াবেটিক দিবস পালিত নবীগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় এক ব্যক্তি গুরুতর আহত মুজিব বর্ষ’ উদযাপনের লক্ষ্যে মেয়র মোঃ মিজানুর রহমানের মতবিনিময়
ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের দামামা বাজছে

ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের দামামা বাজছে

এক্সপ্রেম ডেস্ক ॥ পরমাণূ শক্তিধর ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনার পারদ চরমে উঠেছে। সীমান্তে দুই দেশের সৈন্য মোতায়েন, বিমানবন্দর-যুদ্ধ বিমান প্রস্তুত রাখা এবং পরমাণূ অস্ত্র ব্যবহারের পাল্টাপাল্টি হুমকির ঘটনায় কার্যত ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের দামামা বাজছে। পরিস্থিতি এখন এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে কোন সময় যুদ্ধ বেঁধে যেতে পারে চির বৈরী দু’দেশের মধ্যে।
পাকিস্তান ও ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবর, ভারতের সামরিক বাহিনী পাকিস্তানের সীমান্তের ঘাঁটিগুলোতে অবস্থান, দুই দিনে পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ঢুকে ২১ পাকিস্তানিকে হত্যা, যুদ্ধ বিমান ও অস্ত্র বহনকারী বিমান পাকিস্তান সীমান্তের ঘাঁটিতে নেয়া এবং তিন বাহিনীর প্রধানদেন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দুই ঘন্টা ‘যুদ্ধরুমে’ গোপন বৈঠকের পর ভারত যেকোনো মুহূর্তে পাকিস্তানে হামলা চালাতে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।
পাশাপাশি পাকিস্তানের সামরিক মহড়া, বিমান বাহিনীর টহল, যুদ্ধ বিমান প্রস্তুত রাখা, আজাদ কাশ্মীরে বিমানবন্দরগুলোতে ফ্লাইট বাতিল, প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফের মধ্যে আলোচনা, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হুঙ্কারের খবরেও পাল্টা হামলার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।
ভারত ও পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যম গুলোর খবর অনুযায়ী, প্রকাশ্যে সংযম দেখালেও গোপনে পুরো দমে চলছে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত। পাকিস্তানে হামলার প্রাথমিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে ভারত। ইতোমধ্যে সীমান্ত ঘাঁটিগুলোতে অবস্থান নিয়ে যুদ্ধ বিমান ও অস্ত্র বহনকারী বিমানও ঘাঁটিতে পৌঁছেছে। বুধবার ভারতের পররাষ্ট্র দপ্তর সাউথ ব্লকের ‘ওয়ার রুমে’ তিন বাহিনীর প্রধানদের নিয়ে দুই ঘন্ট গোপন বৈঠক করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, সেনা প্রধান দলবীর সিং সুহাগ, বিমান বাহিনীর প্রধান অরূপ রাহা ও নৌ বাহিনীর প্রধান সুনীল লাম্বা। যুদ্ধের সময় সাউথ ব্লকের এই ঘরটিকেই ব্যবহার করা হয় ‘কন্ট্রোল রুম’ হিসেবে। এটিকে সিক্রেট রুমও বলা হয়।
ওয়ার রুমে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে পাওয়ার পয়েন্টে উপস্থাপন করে যুদ্ধের প্রস্তুতি দেখানো হয়। বালুর মডেলে জঙ্গি আস্তানা তৈরি করে বোঝানো হয়, কীভাবে আচমকা হামলায় ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া যায় পাকিস্তানকে। ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পরিকর জানিয়েছেন, পাকিস্তানকে চারদিক দিয়ে ঘিরে ফেলতে কূটনৈতিক থেকে সশস্ত্র হামলা সব ধরনের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছে মোদি সরকার। সেনারা আগেই জানিয়েছে, প্রত্যাঘাতের সময় ও স্থান স্থির করবে তারা। পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়, তাদের যুদ্ধবিমান ও অস্ত্রবহনকারী বিমান সীমান্ত ঘাঁটিতে পৌঁছেছে। তবে হামলার উপযুক্ত জবাব দিতে পূর্ণ প্রস্তুত পাকিস্তান। অবশ্য পাকিস্তান প্রথম আক্রমণ করবে না, কিন্তু ভারতকেও ‘রেড লাইন’ ক্রস করতে দেওয়া হবে না।
উর্দু দৈনিক পাকিস্তান জানায়, ভারতের হামলা ঠেকাতে পূর্ণ শক্তিমত্তা ব্যবহার করতে প্রস্তুত পাকিস্তান। ভারতীয় বাহিনীকে কোনোক্রমেই সীমান্ত রেখা অতিক্রম করতে দেওয়া হবে না। পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যম ডনের এক খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে ওয়ার রুমে আলোচনা করছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর ঠিক তখনই ভারতের হুমকি মোকাবেলায় এবং যে কোন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মহড়া শুরু করে দিয়েছে পাক-সেনাবাহিনী।
পাকিস্তান বিমান বাহিনীর এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ডন জানিয়েছে, সম্প্রতি ভারতের কাছে থেকে হুমকি পাওয়ার পর সর্বোচ্চ সতর্কতায় অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছে সেনাবাহিনী। গত কয়েকদিন ধরে সতর্ক অবস্থার স্তরে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি। পাকিস্তানের বেসরকারি টেলিভিশনের খবরে বলা হচ্ছে, ভারতের সম্ভাব্য হামলা ঠেকাতে পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলের রাস্তার ধারে যুদ্ধবিমান অবতরণ করছে। সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, নিয়মিত অনুশীলনের অংশ হিসেবে এসব যুদ্ধবিমান অবতরণ করছে। প্রতি ৫ বছর অন্তর বড় ধরনের অনুশীলন করে পাক বিমান বাহিনী, এর প্রস্তুতি নিতে এক মাস সময় প্রয়োজন হয়।
বুধবার পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলের আকাশসীমা ও এমওয়ান এবং এম-টু মোটর যান চলাচলে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আকাশসীমায় নিষেধাজ্ঞা আরোপের কারণে উত্তর পাকিস্তানের বিভিন্ন শহরগামী ফ্লাইট বাতিল করেছে সংস্থাটি। পাক-অধিকৃত কাশ্মির ও খাইবার-পাখতুনখাওয়া প্রদেশের কিছু এলাকায় বিমান চলাচল বাতিল করেছে কর্তৃপক্ষ। জানা যায়, ভারতের সম্ভাব্য হামলা মোকাবেলায় পাক সামরিক বাহিনীর প্রস্তুতির গুজবে দেশটির শেয়ার মার্কেটে ধস নেমেছে।
অন্যদিকে পাকিস্তানের সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল রেহমান মালিক বলেছেন, নরেন্দ্র মোদির সংক্রমিত মস্তিষ্কের চিকিৎসা করা প্রয়োজন। তিনি বলেন, এখন ২০১৬ সাল, ১৯৭১ নয়। আমাদের কাছে পারমানবিক অস্ত্র রয়েছে। এখন দেখার বিষয় জবাব কোথায় হবে পাকিস্তান না ভারতে তা দেখার বিষয়। বলে রাখা ভালো ভারতে নরেন্দ্র মোদি থাকতে কোনো শত্র“র প্রয়োজন নেই।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com