সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১০:১৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শ্রীমঙ্গলে যুবলীগ নেতা সেলিমের উদ্যোগে সাড়ে ৫শ অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ নবীগঞ্জের বিভিন্ন গ্রামে ড. রেজা কিবরিয়ার পক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ হবিগঞ্জে শেষ হয়েছে ৫দিন ব্যাপি ইয়ূথ এসোসিয়েশন অব ইউকে এর খাদ্য সহায়তা বিতরণ নবীগঞ্জে গৃহহীন দুই বীর সেনা মুক্তিযোদ্ধাকে সেনাবাহিনীর বাসস্থান উপহার আলমগীর চৌধুরীর সৌজন্যে নবীগঞ্জে ১৬৫ পরিবারকে ঈদ উপহার প্রদান নবীগঞ্জে স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করায় ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা “বঙ্গবন্ধু ছাত্র একতা পরিষদ” নেতা রায়হান এর উদ্যোগে ইফতার বিতরণ এখন প্রমান করার সময় মানুষ মানুষের জন্য-মোতাচ্ছিরুল ইসলাম অনাহারী মুখ খাবার তুলে দিচ্ছেন হবিগঞ্জ ছাত্র সমন্বয় ফোরাম বাগুনিপাড়া ডিফেন্স হোল্ডার এ্যাসোসিয়েশন ঈদ উপহার বিতরন
হবিগঞ্জে পানসী রেস্টুরেন্টের নামে প্রতারণার চেষ্টা ॥ থানায় জিডি পৌরসভায় অভিযোগ ॥ “কয়েকজন চাকুরীচ্যুত কর্মচারী প্রতারণা করছে”

হবিগঞ্জে পানসী রেস্টুরেন্টের নামে প্রতারণার চেষ্টা ॥ থানায় জিডি পৌরসভায় অভিযোগ ॥ “কয়েকজন চাকুরীচ্যুত কর্মচারী প্রতারণা করছে”

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সিলেট মহানগরীর ঐতিহ্যবাহী খাবার হোটেল পানসী রেস্টুরেন্ট এর নাম ব্যবহার করে হবিগঞ্জে একটি রেস্টুরেন্ট চালু করা হয়েছে। সিলেটের পানসী রেস্টুরেন্ট এর মতোই খাবার আইটেম সিলেক্ট করে ইতিমধ্যে লিফলেটও বিতরণ করা হয়েছে। শহরের পুরাতন পৌরসভা রোডে আগামীকাল সোমবার থেকে এ খাবার হোটেল চালু করার কথা। সিলেটের পানসী হোটেলের মালিকপক্ষ তাদের নাম ব্যবহার করে হবিগঞ্জে হোটেল প্রতিষ্ঠার নামে প্রতারণা করায় ইতিমধ্যে হবিগঞ্জ পৌরসভায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন। ওই অভিযোগে হবিগঞ্জে পানসী রেস্টুরেন্ট এর নামে কোনো ট্রেড লাইসেন্স না দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। একই ধরনের অভিযোগ দেয়া হয়েছে হবিগঞ্জের ভ্যাট অফিস ও ইনকাম ট্যাক্স অফিসে। হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবগত করা হলে হবিগঞ্জের পানসী রেস্টুরেন্ট এর মালিকপক্ষকে থানায় ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। সিলেটের পানসী রেস্টুরেন্টের মালিকপক্ষের অভিযোগের বিষয়টি তাদেরকে অবগত করা হয়। গত বৃহস্পতিবার হবিগঞ্জে পানসী রেস্টুরেন্ট এর সামনে থেকে সকল সাইনবোর্ড, ব্যানার ফেস্টুন সরিয়ে ফেলা হয়। কিন্তু এর একদিন পর গত শুক্রবার আবারও পানসী রেস্টুেেরন্ট এর নামে লিফলেট বিতরণ করা হয় শহরে। রেস্টুরেন্ট এর সামনে লাগানো হয়েছে সাইনবোর্ড। এ ব্যাপারে সিলেটের পানসী রেস্টুরেন্ট এর মালিক আবু বকর জানান- আমাদের রেস্টুরেন্ট এর নামে ট্রেড মার্কস রয়েছে। আমরা নিয়মিত সরকারকে ট্যাক্স দেই, ভ্যাট দেই। বৃহত্তর সিলেটে পানসী রেস্টুরেন্টকে সবাই এক নামে চিনেন। আমাদের নাম ব্যবহার করে কেউ প্রতারণা করলে তা হবে আইনের লংঘন। আমরা আইনগতভাবে ও সামাজিকভাবে এর প্রতিকার চাইব। কেউ আমাদের নাম ব্যবহার করে প্রতারণা করলে স্থানীয় মানুষও এর প্রতিবাদ করতে পারেন। হবিগঞ্জ শহরে পানসী রেস্টুরেন্ট এর কোনো শাখা নেই উল্লেখ করে তিনি জানান-কয়েকজন চাকুরীচুত্য কর্মচারী আমাদের নাম ব্যবহার করে হবিগঞ্জে প্রতারণার চেষ্টা করছে। এ ব্যাপারে সিলেট পানসী রেস্টুরেন্ট এর লিগ্যাল এডভাইজার এডঃ তাজ উদ্দিন জানান-আমরা ইতিমধ্যে হবিগঞ্জ শহরে প্রতারণার মাধ্যমে গড়ে তুলা পানসী রেস্টুরেন্ট এর মালিক পক্ষকে লিগ্যাল নোটিশ দিয়েছি। লিগ্যাল নোটিশের জবাব সন্তুষ্টজনক না হলে পরবর্তীতে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে। গতকাল পৌরসভায় যোগাযোগ করা হলে-ট্রেড লাইসেন্স শাখা থেকে জানানো হয় গতকাল পর্যন্ত পানসী রেস্টুরেন্টকে কোনো ট্রেড লাইসেন্স দেয়া হয়নি। ফলে ট্রেড লাইসেন্স ছাড়াই উদ্বোধন হতে যাচ্ছে হোটেলটি।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com