মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯, ০৬:৩৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
মাধবপুরে চা-বাগানে কাকাতো ভাইয়ের হাতে জেঠাতো ভাই খুন যুক্তরাজ্যে গাড়ির নাম্বার প্লেটের রেজিষ্ট্রেশন নিয়ে জটিলতা ॥ আইনি লড়াইয়ে জয়ী হলেন এনটিভির ইউরোপ ব্যুরো চিফ ফারছু আহমেদ চৌধুরী শহরে প্রকাশ্যে ছাত্রলীগ নেতা আসিফ চৌধুরীকে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করেছে দূর্বৃত্তরা আজমিরীগঞ্জে হাওর থেকে যুবতীর বিকৃত লাশ উদ্ধার নবীগঞ্জে ছাতল বিলের ইজারা সমিতির সদস্যদের স্বাক্ষর জাল ইউএনও বরাবর অভিযোগ বানিয়াচঙ্গের এক মহিলাকে বিদেশ পাঠানোর নামে পাচারের অভিযোগ স্কুল-কলেজের সামনে বখাটেদের উৎপাত বন্ধে পুলিশকে কঠোর হওয়ার নির্দেশ হবিগঞ্জে ‘বিবর্তন বিজ্ঞান চক্র’র উদ্যোগে ২ দিনব্যাপী জ্যোতির্বিজ্ঞান বিষয়ক কর্মশালা সম্পন্ন মাধবপুরে গাছ থেকে পড়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু বাহুবলে প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা আকবর আলী আর নেই
নবীগঞ্জের করগাঁও ইউপি নির্বাচনে মহিলা সদস্যের ফলাফলে কারচুপির অভিযোগ

নবীগঞ্জের করগাঁও ইউপি নির্বাচনে মহিলা সদস্যের ফলাফলে কারচুপির অভিযোগ

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ নবীগঞ্জে ৭ নং করগাঁও ইউনিয়নের নির্বাচনে ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রার্থীর ভোট গনণায় যোগফলে ভুল করে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের রিটার্নিং অফিসার নবীগঞ্জ উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী মোঃ সৈয়দুর রহমান বিজয়ী প্রার্থীকে পরাজিত দেখিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীকে বিজয়ী ঘোষনা করায় ৩টি ওয়ার্ডের ভোটার ও প্রার্থীর মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। নির্বাচনে ভোটারদের গোপন ব্যালটের মাধ্যমে বিজয়ী হয়েও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্বহীনতার কারনে পরাজিত দেখানোর ফলে করগাঁও ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের প্রার্থী শিপ্রা রানী দাশ কারচুপির অভিযোগ এনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ২৮ মে অনুষ্টিত নবীগঞ্জের ৭ নং করগাঁও ইউনিয়ন নির্বাচনে ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে শিপ্রা রানী দাশ (তালগাছ), মোছাৎ ওয়ারিশা বেগম (বক) এবং আয়শা আক্তার (মাইক) প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এ ইউনিয়নের রিটার্ণিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন নবীগঞ্জ উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী মোঃ সৈয়দুর রহমান। নির্বাচনে ৩ টি ওয়ার্ডের ৫টি কেন্দ্রের আলাদা আলাদা ফলাফল শীটে দেখা যায় ৪টি কেন্দ্রের ফলাফল ঠিক থাকলেও শুধু মাত্র ৭২নং শেরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ফলাফল শীটে কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মোঃ শাখায়াত হোসেন স্বাক্ষরিত প্রাপ্ত ভোটে শিপ্রা রানী দাশ (তালগাছ) ৫৪৫টি, মোছাঃ ওয়ারিশা বেগম (বক) ৯২৬ ভোট এবং আয়শা আক্তার (মাইক) পেয়েছেন ৬ ভোট। কিন্তু ৫টি কেন্দ্রের ফলাফল একত্রিত করে শীটে দেখা যায় ৭২ নং শেরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ফলাফলের জায়গায় শিপ্রা রানী দাশ (তালগাছ) প্রাপ্ত ভোট ৫৪৫ এর স্থলে ৩৪৫ ভোট দেখানো হয়েছে। এতে করে মোট ভোটের হিসাবে শিপ্রা রানী দাশ (তালগাছ) এর প্রাপ্ত ভোট হয় ১৮৫১, মোছাঃ ওয়ারিশা বেগম (বক) ১৮১১ ভোট এবং আয়শা আক্তার (মাইক) ১২৩২ ভোট। কিন্তু ভোটের যোগফল গনণাকারী দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটানিং অফিসার নবীগঞ্জ উপজেলা মোঃ সৈয়দুর রহমান যোগফলে ৭২ নং শেরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ফলাফলের জায়গায় ভুল করে শিপ্রা রানী দাশ (তালগাছ) প্রাপ্ত ভোট ৫৪৫ এর স্থলে ৩৪৫ ভোট দেখানোর কারনে শিপ্রা রানী দাশ মোট প্রাপ্ত ভোট হয় ১৮৫১ এর স্থলে ১৬৫১ দেখানো হয়েছে। ফলে শিপ্রা রানী দাশকে বিজয়ী ঘোষনা না করে ওয়ারিশা বেগমকে ১৮১১ ভোট প্রাপ্ত দেখিয়ে বিজয়ী ঘোষনা করা হয়। এ সময় প্রতারনা ও ভুলে স্বীকার প্রার্থী শিপ্রা রানী দাশ ও তার স্বামী অনন্ত দাশ প্রতিবাদ করলে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ উর্ধতন কর্মকর্তারা তা আমলে নেননি। পরদিনও প্রতারনার স্বীকার প্রার্থী শিপ্রা রানী দাশ নবীগঞ্জের উর্ধতন কর্মকর্তাদের নিকট ঐ কেন্দ্রের ভোট পুনঃগনণার জন্য আবেদন জানান।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com