সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০২:৩৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ হবিগঞ্জে ড্যান্ডি নেশায় ঝুঁকছে টোকাই শিশুরা প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলীর সাথে মেয়র সেলিমের শুভেচ্ছা বিনিময় নয়া জেলা প্রশাসক ইসরাত জাহানের দায়িত্ব গ্রহণ এমপি পুত্র ইফাত জামিলের আইন বিষয়ে ¯œাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন হবিগঞ্জ পৌর নির্বাচন ৭দিন আগে অনুষ্ঠিত হলেও শহরে বিরাজ করছে নির্বাচনী আমেজ! পোষ্টারে পোষ্টারে ছেয়ে আছে হবিগঞ্জ শহর ! এগুলো পরিস্কারের দায়িত্ব কার ? জন দূর্ভোগ ॥ নবীগঞ্জ-মুক্তাহার ব্রীজ বানিয়াচংয়ে প্রেমিকের ব্যবসা প্রতিষ্টানে প্রেমিকার অনশন ॥ সালিশে নিষ্পত্তির শর্তে মুরুব্বীদের জিম্মায় নবীগঞ্জে খোলা জায়গায় পশু জবাই করে বিক্রি ॥ পরিবেশ দুষিত হচ্ছেন পত্রিকায় লিখে কোন লাভ হবে না। কর্তারা তাদের ম্যানেজ নবীগঞ্জে অসহায় ব্যক্তির অর্ধশতাধিক গাছ কর্তন
৪ শিশু হত্যা মামলার চার্জশিট শীঘ্রই

৪ শিশু হত্যা মামলার চার্জশিট শীঘ্রই

পাবেল খান চৌধুরী \ বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামের চার শিশুকে হত্যার ঘটনায় শিগগিরই চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করা হবে। গতকাল রোববার দুপুরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মোকতাদির হোসেন রিপন এ তথ্য জানান।
তিনি জানান, হত্যা মামলাটির তদন্ত এখনো শেষ হয়নি, তবে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। শিগগিরই প্রতিবেদন দাখিল করা হবে। ইতোমধ্যে পুলিশ এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত অভিযোগে প্রধান অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সর্দার আব্দুল আলী বাগাল, তার দুই ছেলে জুয়েল ও রুবেল, একই গ্রামের শাহেদ, সালেহ আহমেদ ছায়েদ, আরজু ও বশির নামে সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বর্তমানে আসামীরা হবিগঞ্জ কারাগারে রয়েছেন। এর মধ্যে অভিযুক্ত জুয়েল, রুবেল, আরজু ও শাহেদ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এছাড়া হত্যা মামলার আরেক আসামী অটোরিকশা চালক বাচ্চু মিয়া র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে। নিহত শিশুরা হলো- বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামের ওয়াহিদ মিয়ার ছেলে সুন্দ্রাটিকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র জাকারিয়া আহমেদ শুভ (৮), আবদাল মিয়ার ছেলে প্রথম শ্রেণির ছাত্র মনির মিয়া (৭), আব্দুল আজিজের ছেলে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র তাজেল মিয়া (১০) ও সুন্দ্রাটিকি আনোয়ারুল উলুম ইসলামিয়া মাদ্রাসার নুরাণী প্রথম শ্রেণির ছাত্র আব্দুল কাদিরের ছেলে ইসমাইল মিয়া (১০)। তাদের মধ্যে শুভ, মনির ও তাজেল একে অপরের চাচাতো ভাই।
উলে­খ্য, গত ১২ ফেব্র“য়ারি সন্ধ্যায় ওই চার শিশুকে অপহরণ করা হয়। এর পাঁচদিন পর ১৭ ফেব্র“য়ারি বুধবার সকালে গ্রামের পাশের ইছারবিল খালের পাশে বালুমিশ্রিত মাটিচাপা অবস্থায় তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
শিশু মনির, শুভ ও তাজেলের বাবার সঙ্গে গ্রামের পঞ্চায়েত সর্দার নিয়ে ও একটি বড়ই গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের পঞ্চায়েত আব্দুল আলী ওরফে বাগাল মিয়ার বিরোধ ছিল। ওই বিরোধের জের ধরে শিশুদের অপহরণের পর হত্যা করা হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com