রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:৩২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
লাখাইয়ে পারিবারিক বিষয় নিয়ে বাকবিতন্ডা ॥ পুত্রের হাতে পিতা খুন হবিগঞ্জে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম ॥ রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনই উত্তম পন্থা শহরের বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের সামন থেকে ১২ রোমিও আটক পরিবারের মুছলেখায় মুক্তি ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে চুনারুঘাটের ১ জনের মৃত্যু নবীগঞ্জে বউ-শাশুড়ীর ঝগড়া প্রাণ গেল সবুর হোসেনের বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে দেশকে পিছিয়ে দিয়েছিল-এমপি মিলাদ গাজী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলা গড়াই হোক জাতীয় শোক দিবসের অঙ্গীকার-এমপি মজিদ খান পইলে শহীদ এনাম স্মৃতি সংঘের ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত তিতখাই-চান্দপুর সড়কটি সংস্কার কাজ বন্ধ ॥ জনদুর্ভোগ চরমে বানিয়াচঙ্গে চেক ডিজঅনার মামলার সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার
কারারুদ্ধ জিকে গউছ তৃতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত

কারারুদ্ধ জিকে গউছ তৃতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত

স্টাফ রিপোর্টার \ হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে কারারুদ্ধ বিএনপি নেতা জি কে গউছ ৩য় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। আর তার সাথে হাড্ডাহাডি লড়াই করে চমক দেখিয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমান মিজান। হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ১০ হাজার ৭৯৭ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হন জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব জিকে গউছ। নিকটতম প্রতিদ্ব›িদ্ব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী স্বতন্ত্র মিজানুর রহমান মিজান পেয়েছেন ৯ হাজার ২৬৪ ভোট। আর নৌকা প্রতীক নিয়ে IMG_2662আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী জেলা যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম ৭ হাজার ৪০৩ ভোট পেয়েছেন।
গতকাল সকাল ৮টা থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ শুরু হলেও দুপুরে জেলা পরিষদ, বিকেজিসি ও পিটিআই কেন্দ্রে বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে। জেলা পরিষদ কেন্দ্রে ৭১ টিভির প্রতিবেদক ফারহানা রহমান হামলার শিকার হন। এ সময় জেলা পরিষদ কেন্দ্রে কিছু সময় ভোট গ্রহন স্থগিত থাকে। এর পর পরই বিকেজিসি কেন্দ্রে শুরু হয় হট্টগোল। এ কেন্দ্রে এক কাউন্সিলর প্রার্থীর লোক ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছুড়ে।  পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হলে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। পরে পিটিআই কেন্দ্রে উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাকা গুলিশ ছুড়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।
তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে ছুটে যান হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্রসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এ সময় পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্টরা জেলা পরিষদের ভেতরে প্রবেশ করা মাত্রই কে বা কারা ভোট কেন্দ্রের ছাদের উপর পর পর তিনটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে।
হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ১ নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর আবুল হাসিম, ২ নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর জাহির উদ্দিন, ৩নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর দিলীপ দাস, ৪নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর জুনেদ মিয়া, ৫নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর গৌতম কুমার রায়, ৬নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর শেখ নুর হোসেন, ৭ নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর আব্দুল আউয়াল মজনু, ৮ নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর আলমগীর মিয়া ও ৯ নং ওয়ার্ডে নতুন মুখ উম্মেদ আলী শামীম।
মহিলা সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর পিয়ারা বেগম, ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে সাবেক কাউন্সিলর খালেদা জুয়েল এবং ৭, ৮ ও ৯ অর্পণা পাল।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com