রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আগস্ট মাস আসলেই মনে দাগ কাটে-মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ পইলে ৭৭টি গরু কুরবানী বাড়িয়ে দিল ঈদের আনন্দ নবীগঞ্জ অপহরণের ৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুল ছাত্রী মাধবপুরে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত দুর্ধর্ষ ডাকাত এরশাদ আলী গ্রেপ্তার শায়েস্তাগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে এক ডাকাতকে গণধোলাই হবিগঞ্জ জেলা পুলিশ বনাম জেলা খেলোয়ার কল্যাণ সমিতির মধ্যে ফুটবল টুর্নামেন্ট কাশ্মিরী মুসলমানদের অধিকার অবিলম্বে ফিরিয়ে দিন ॥ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত সমন্বয় পরিষদ জ্যোতির্বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. দীপেন ভট্টাচার্য্যরে ॥ বক্তৃতা শুনে বিজ্ঞান চর্চায় আগ্রহ বেড়েছে হবিগঞ্জের শিক্ষার্থীদের ধুলিয়াখাল-মাহমুদপুর বাইপাস সড়ক টমটম চুরির অভিযোগে যুবক আটক হবিগঞ্জে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির রক্তদান কর্মসূচী ও শোক সভা
হবিগঞ্জ পৌরসভায় নিরব ভোট বিপ্লব

হবিগঞ্জ পৌরসভায় নিরব ভোট বিপ্লব

স্টাফ রিপোর্টার \ হবিগঞ্জ পৌরসভায় নিরব ভোট বিপ্লবে বিজয়ী হয়েছেন সাময়িক বরখাস্ত মেয়র কারান্তরীণ জিকে গউছ। নির্বাচনী ফলাফলে জিকে গউছ পেয়েছেন ১০ হাজার ৭৯৭ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্ব›িদ্ব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মিজানুর রহমান নারিকেল গাছ মার্কায় পেয়েছেন ৯ হাজার ২৬৩ ভোট। আওয়ামীলীগ প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিম পেয়েছেন ৭ হাজার ৪০৩ ভোট। কারাগার থেকেও জিকে গউছ নির্বাচিত হওয়ায় বিষয়টি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। তার কর্মী সমর্থকরা সঠিকভাবে প্রচারণাও করতে পারেননি। যদিও অনেককে প্রচারণা করতে দেখা গেছে তারাও নিজেরা অনেকটা গাঁ বাঁচিয়েই প্রচারণা করেছেন। নির্বাচনের শেষ পর্যায়ে এসে বিএনপির অনেক নেতা-কর্মী গ্রেফতার এড়াতে মাঠ থেকে চলে যেতে হয়েছে। গতকাল নির্বাচনের দিনেও বিএনপিকে মাঠে তেমন সরব দেখা যায়নি। অন্যান্য প্রার্থীর সমর্থকরা বুকে মার্কা ঝুলিয়ে যেভাবে ঘুরতে দেখা গেছে গউছের সমর্থকদের তেমনটাও দেখা যায়নি। যে দুয়েকটি ভোট কেন্দ্রে হাঙ্গামার ঘটনা ঘটেছে তাতেও বিএনপিকে নিরাপদ অবস্থানে থাকতে দেখা গেছে। সব মিলিয়ে নির্বাচনে গউছের বিজয়কে নিরব ভোট বিপ্লব বলেই মনে করছেন সচেতন মহল।
সাধারণ ভোটার ও সচেতন মহলের সাথে আলাপকালে তারা বলেন-জিকে গউছ জয়ী হওয়ার পেছনে নারী ভোটার ও আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী নিয়ামক হিসেবে কাজ করেছেন। তাকে ভোট দিয়ে অনেকেই সহানুভূতি দেখিয়েছেন। শুধুমাত্র ধানের শীষ প্রতিক দেখে নয়, গউছের ব্যক্তি ইমেজও অনেকাংশে তাকে এগিয়ে নিয়ে গেছে। এ নিয়ে জিকে গউছ তিনবার মেয়র নির্বাচিত হলেন।
এদিকে হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র (সাময়িক বরখাস্ত) ও হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব জি কে গউছের কারাবন্দির এক বছর পূর্ণ হয়েছে। সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা মামলায় তিনি কারাগারে আটক রয়েছেন। ২০১৪ সালের ১২ নভেম্বর দাখিলকৃত তৃতীয় দফা সম্পূরক চার্জশীটে জি কে গউছকে আসামী করা হয়। চার্জশীট আদালতে গৃহীত হলে কালবিলম্ব না করেই ২৮ ডিসেম্বর স্বেচ্ছায় আদালতে আত্মসমর্পন করেন তিনি। গত ঈদুল ফিতরের দিন হবিগঞ্জ কারাগারের ভিতরে ঈদের নামাজ শেষে নিজ কক্ষে যাওয়ার সময় সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন জি কে গউছ। ইলিয়াছ নামের একাধিক হত্যা মামলার এক আসামী লোহাড় রড দিয়ে জি কে গউছের উপর আঘাত করে। ওই দিনই তাকে নিয়ে যাওয়া হয় ঢাকা বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসা শেষে পাঠিয়ে দেয়া হয় সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে। সেই থেকে জি কে গউছ সিলেট কারাগারেই আছেন। এর পূর্বে হবিগঞ্জ কারাগারে ছিলেন ১৬২ দিন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com