রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৮:৩০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ হবিগঞ্জে ড্যান্ডি নেশায় ঝুঁকছে টোকাই শিশুরা প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলীর সাথে মেয়র সেলিমের শুভেচ্ছা বিনিময় নয়া জেলা প্রশাসক ইসরাত জাহানের দায়িত্ব গ্রহণ এমপি পুত্র ইফাত জামিলের আইন বিষয়ে ¯œাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন হবিগঞ্জ পৌর নির্বাচন ৭দিন আগে অনুষ্ঠিত হলেও শহরে বিরাজ করছে নির্বাচনী আমেজ! পোষ্টারে পোষ্টারে ছেয়ে আছে হবিগঞ্জ শহর ! এগুলো পরিস্কারের দায়িত্ব কার ? জন দূর্ভোগ ॥ নবীগঞ্জ-মুক্তাহার ব্রীজ বানিয়াচংয়ে প্রেমিকের ব্যবসা প্রতিষ্টানে প্রেমিকার অনশন ॥ সালিশে নিষ্পত্তির শর্তে মুরুব্বীদের জিম্মায় নবীগঞ্জে খোলা জায়গায় পশু জবাই করে বিক্রি ॥ পরিবেশ দুষিত হচ্ছেন পত্রিকায় লিখে কোন লাভ হবে না। কর্তারা তাদের ম্যানেজ নবীগঞ্জে অসহায় ব্যক্তির অর্ধশতাধিক গাছ কর্তন
আজ মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন \ কাল প্রতীক বরাদ্দ \ সারা মিলেনি বিদ্রোহী প্রার্থীদের

আজ মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন \ কাল প্রতীক বরাদ্দ \ সারা মিলেনি বিদ্রোহী প্রার্থীদের

এম এ আই সজিব \ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বিএনপি আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বিদ্রোহী প্রার্থীদের বাগে আনতে হিমশিম খাচ্ছে। কেন্দ্রের নির্দেশনা উপেক্ষা করে নির্বাচনী মাঠে নেমেছেন এসব বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থীরা। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের জন্য ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটামের ৪৮ ঘণ্টা পার হলেও সাড়া মেলেনি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহীদের। অবশ্য বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন গতকাল শনিবার পর্যন্ত অপেক্ষা করার কথা ছিল। এর মধ্যে কেউ প্রত্যাহার না করলে বিদ্রোহীদের ওপর বহিষ্কারের খগড় নেমে আসতে পারে। জানা যায়, দুই দলেই কেন্দ্রীয় দায়িত্বপ্রাপ্তদের পাশাপাশি বিভাগীয় নেতারাও বিদ্রোহীদের সঙ্গে দফায় দফায় কথা বলছেন। তবে দল থেকে বহিষ্কারের খড়গ নিয়েও নির্বাচনে থাকতে চান বিদ্রোহীদের বড় একটি অংশ। তাই অনেকেই ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন বন্ধ রেখে প্রচারণা চালাচ্ছেন বলে জানা গেছে। আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা যায়, হবিগঞ্জের ৫ পৌরসভার মধ্যে ২টি পৌরসভায় আওয়ামী লীগে বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন। দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা বলছেন, বিদ্রোহীর সংখ্যা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা হবে। আশা করা হচ্ছে, এরই মধ্যে সব বিদ্রোহী প্রার্থীই দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুরোধে নৌকা প্রতীকের পক্ষে লড়বেন। অপরদিকে বিএনপি সূত্র জানায়, হবিগঞ্জ ও শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভায় দলের ২জন বিদ্রোহী প্রার্থীর মনোয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। তাদের বুঝিয়ে নির্বাচন থেকে সরাতে ঘাম ঝরাতে হচ্ছে।
সাড়া নেই বিদ্রোহীদের : পৌরসভা নির্বাচনে একক প্রার্থী করতে আওয়ামী লীগ নেতাদের দৌড়ঝাঁপ শেষ পর্যন্ত নিষ্ফলই হতে চলেছে। কঠোর আলটিমেটাম দেওয়ার পরও দুই পৌরসভায় আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ এখন আওয়ামী লীগই। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের জন্য ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম ৪৮ ঘণ্টা পার করেছে। তারপরও সাড়া মেলেনি বিদ্রোহীদের। দলীয় প্রার্থীদের চ্যালেঞ্জ করেই প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন তারা। ফলে পৌরসভা নির্বাচনে অনেকটাই বিপাকে পড়েছেন ক্ষমতাসীন দলের নেতারা। দলীয় প্রার্থীকে প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলের প্রার্থীর পাশাপাশি লড়তে হচ্ছে নিজ দলের বিদ্রোহী প্রার্থীর সঙ্গে। গত বুধবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, যারা এ নিদের্শনা অমান্য করবেন তাদের আজীবনের জন্য দল থেকে বহিষ্কার করা হবে। ওই রাতেই দলের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্বাক্ষরিত কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয় বিদ্রোহী প্রার্থীদের ঠিকানায়। এ ছাড়াও বিদ্রোহী প্রার্থীদের যারা মদদ দিচ্ছেন সেসব এমপি ও নেতাদের তালিকাও প্রস্তুত করছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। ওই ঘোষণার পর অনেকে বহিষ্কারের ভয়ে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলেও হবিগঞ্জের দুই পৌরসভার বিদ্রোহী প্রার্থীরা নির্বাচনে অংশগ্রহণের ব্যাপারে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, হবিগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী জেলা যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিমের বিপক্ষে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান আর শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি ছালেক মিয়ার বিপক্ষে শায়েস্তাগঞ্জের জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সহ-সভাপতি আতাউর রহমান মাসুক বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রচারণা চালিয়েছেন। কমিশন সূত্র জানায় আজ ১৩ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। গতকাল শনিবার পর্যন্ত পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। শত চেষ্টা করেও মন টলানো যাচ্ছে না আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের। শেষ পযন্ত টিকে থাকতে হবিগঞ্জের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থীরা কৌশলে কেন্দ্রের নির্দেশ এড়িয়ে চলছেন বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। তারা অনেকটা নিরবে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com