মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:১২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
গ্রীসে নিহত নবীগঞ্জের দু’ব্যক্তিকে শেষ বিদায় জানালো এলাকাবাসী চুনারুঘাটে রাস্তার কাঁদায় ধান রোপন করে প্রতিবাদ নবীগঞ্জে হত্যা মামলার ৭০ আসামীর জামিন নামঞ্জুর কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ শহরের গাণিংপার্ক থেকে নতুন বিবাহিত যুবকের লাশ উদ্ধার বাঙ্গালীর আশার বাতিঘর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-এমপি আবু জাহির হবিগঞ্জে নতুন করে ৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শহরে নকল সোনা বিক্রেতা আটক আমার হবিগঞ্জের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জেলা কৃষক লীগের নব নির্বাচিত সভাপতি শরীফ উল্লাহকে শচীন্দ্র কলেজের রোভার স্কাউট গ্রুপের ফুলেল শুভেচ্ছা নবীগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ
তেঘরিয়া গ্রামের মৃত শিশুর পিতা দাবি করে দুই ব্যক্তির মাঝে রশি টানাটানি

তেঘরিয়া গ্রামের মৃত শিশুর পিতা দাবি করে দুই ব্যক্তির মাঝে রশি টানাটানি

স্টাফ রিপোর্টার \ হবিগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া গ্রামের মৃত শিশুর পিতা দাবিদার নিয়ে দুই ব্যক্তির মাঝে রশিটানাটানি শুরু হয়েছে। সমাধান না হওয়ায় অবশেষে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরে এ ঘটনা নিয়ে মূল পিতা দাবীদার ওই গ্রামের আঞ্জব আলীর পুত্র সহিদ মিয়া বাদি হয়ে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ মামলা দায়ের করেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, ৫ বছর পূর্বে একই গ্রামের মৃত মর্তুজ আলীর কন্যা সেলিনা আক্তার (৩০) এর সাথে প্রেমের মাধ্যমে সহিদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের কোলজুড়ে একটি পুত্র সন্তান জন্মগ্রহণ করে। সহিদ জীবিকার তাগিদে বিভিন্ন স্থানে চলে যায়। এ সুযোগে একই গ্রামের ইছাক আলীর পুত্র তার চাচাতো ভাই সেলিনার দেবর জামাল মিয়া (২২) এর সাথে সেলিনা পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে। বিষয়টি সহিদের নজরে আসলে সেলিনাকে শাসন করে। ২ মাস আগে সেলিনা ৮ মাসের অন্তঃসত্তা থাকাবস্থায় জামালের সাথে পালিয়ে যায় এবং ঢাকায় এফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে করে স¤প্রতি বাড়ি ফিরে আসে। বর্তমানে সে জামালের সাথে সংসার করতে থাকে। এদিকে সহিদ সুন্দরী স্ত্রী হারিয়ে শিশুপুত্রকে নিয়ে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে। গত বৃহস্পতিবার সেলিনা একটি পুত্র সন্তান জন্ম দেয়। ২ দিন পর ওই শিশুটি মারা যায়। এদিকে ওই মৃত শিশুটিকে জামাল দাবি করছে তার সন্তান। অপরদিকে সহিদ দাবি করছে তার সন্তান। গ্রাম্য সালিশে বিষয়টি সুরাহা না হওয়ায় সহিদ আদালতে তার শিশুকে হত্যা করেছে মর্মে মামলা করেন। বিচারক মামলাটি আমলে হবিগঞ্জ সদর থানার ওসিকে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com