বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৭:২৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
সাতছড়িতে বিজিবির অভিযান রকেট লাঞ্চারের ১৮টি গোলা উদ্ধার হবিগঞ্জে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ম্যারাথন এর উদ্বোধন সাতছড়ি উদ্যানে পূর্বের ৬ অভিযানে যা যা মিলেছে উদ্ধার হওয়া রকেট লাঞ্চারের গোলাগুলো খুব বিপজ্জনক আলোচনায় কাহালু ও চট্টগ্রামের ১০ ট্রাক অস্ত্র নোয়া হাটি সংবর্ধনা সভায় মেয়র সেলিম ॥ আমি হবিগঞ্জ পৌরবাসীর ভালবাসা কুড়িয়ে নিতে চাই হবিগঞ্জ পৌরসভার নব-নির্বাচিত ২ কাউন্সিলরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নবীগঞ্জে মাদকাসক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা ॥ হুমকির মুখে নিরিহ পরিবার পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়রের সঙ্গে ব্যাংকারদের শুভেচ্ছা বিনিময় নবীগঞ্জে শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ প্রতিযোগীতায় ॥ ২৩ বিজয়ী
নছরতরপুরে জনতার হাতে ৩ ডাকাত আটক ॥ গণধোলাই

নছরতরপুরে জনতার হাতে ৩ ডাকাত আটক ॥ গণধোলাই

এম এ আই সজীব ॥ হবিগঞ্জ শহরতলীর নছরতরপুর গ্রামের সৌদি প্রবাসীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। এ সময় গ্রামবাসীর সাথে ডাকাতদের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় ৩ ডাকাতকে আটক করা হয়েছে। এদিকে ডাকাতের হামলায় আহত ২ জনকে গুরুতর অবস্থায় সিলেট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ডাকাতরা স্বর্ণালংার, নগদ টাকাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার দিনগত রাত আড়াই টার দিকে ওই গ্রামের মৃত হিরা মিয়ার পুত্র সৌদি প্রবাসী জাহির মিয়ার পরিবারের লোকজন শহরে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে বাড়িতে গিয়ে অন্যান্য দিনের মত ঘুমিয়ে পড়েন। রাত অনুমান আড়াই টার দিকে ১৫/২০ জনের একদল মুখোশধারী ডাকাত ঘরের পেছনের দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে। এরা ঘরে ঘুমন্ত লোকজনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বেঁধে ফেলে। ডাককাতের হামলায় জাহির উদ্দিনের মেয়ে আফিয়া খাতুন (২০) ও ছেলে ইসমাইল আহমদ (২২) আহত হয়। ডাকাতরা ঘরে থাকা মালামাল হাতিয়ে নেয়। ডাকাতের হামলাকালে বাড়ির লোকজন চিৎকার শুরু করে। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ডাকাতরা পালিয়ে যাবার চেষ্টা করে। এ সময় ডাকাতদের সাথে গ্রামবাসীর ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এক পর্যায়ে দুই ডাকাতকে জনতা আটক করে গণধোলাই দেয়। অন্যান্যরা পালিয়ে যায়। আটককৃত ডাকাতরা হচ্ছে-সুনামগঞ্জ জেলার মধ্যনগর থানার বংশকুন্ডা গ্রামের মৃত হামিদ উদ্দিনের ছেলে বিলাল (৩০) ও অপর আটককৃত ডাকাত অজ্ঞান অবস্থায় চিকিৎসাধিন। তার পরিচয় পাওয়া যায়নি।
খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি নাজিম উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পুলিশ গ্রামের পার্শ্ববর্তী হাওর থেকে জামাল ওরপে রাজু (১৯) আটক করে। সে বাহুবল উপজেলার ফর্দখোলা গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে।
ডাকাতের হামলায় আহত আফিয়া খাতুনকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ও কলেজের ছাত্র ইসমাইল আহমদকে সিলেট এমএজি ওসমানি মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। সকালে সহকারি পুলিশ সুপার মাসুদুর রহমান মনির সদর হাসপাতালে আহত ও আটককৃত ডাকাতদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।
আটক ডাকাত সুনামগঞ্জের বিল্লাল জানায়, তারা সংখ্যায় ১৬ জন ছিল। বাকী ১৩ জন পালিয়ে গেছে। সে জানায় হবিগঞ্জের ডাকাত আশিক মিয়া সিলেটের সানু ডাকাতের সাথে যোগাযোগ করে। সানুর ডাকে সারা দিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে সিলেট থেকে সে সহ ৬ ডাকাত শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজ আসে। সেখানে দেখা হয় আশিক সহ অন্যান্যদের। বিকেলে এরা শহরতলীর নছরতপুর এলাকায় গিয়ে জাহির মিয়ার বাড়ি প্রবেশের রাস্তাঘাট প্রত্যক্ষ করে। রাত আড়াইটার দিকে এরা জাহির মিয়ার ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com