বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন

ঐশীসহ তিনজন ৫ দিনের রিমান্ডে

ঐশীসহ তিনজন ৫ দিনের রিমান্ডে

ইন্সপেক্টর বাবা মাহফুজুর রহমান ও মা স্বপ্না রহমানকে হত্যার ঘটনায় মেয়ে ঐশীসহ তিনজনকে পাঁচদিন করে রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

রোববার বিকেলে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এসময় তাদের জামিনের আবেদন নাকচ করে দেন তিনি।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শহীদুল্লাহ প্রধান আসামিদের প্রত্যেককে ১০ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন।

রিমান্ডে যাওয়া ঐশী ছাড়া আরো দুইজন হলো তার বন্ধু মিজানুর রহমান রনি ওরফে জনি ও গৃহকর্মী খাদিজা খাতুন সুমি।

ঐশীকে আদালতে আনার পর তাকে এক নজর দেখার জন্য সাধারণ জনগণ, বিচারপ্রার্থী, আদালতের কর্মচারী, পুলিশ ও আইনজীবীরা ভিড় করেন। অনেকই এসময় নানান মন্তব্য ও তার দিকে থুতু ছুড়ে মারেন।

রিমান্ড শুনানিকালে প্রসিকিউশন পুলিশের এসআই গফফারুল আলম বলেন, ঐশী তার মা-বাবাকে বন্ধুদের সহযোগিতায় হত্যা করেছে মর্মে তথ্য প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। হত্যাকাণ্ডে তার আর কোন কোন বন্ধু অংশ নিয়েছিল এবং সে কোথা থেকে মাদক পেত তা জানার জন্য ১০ দিনের রিমান্ড প্রয়োজন।

অন্যদিকে, অ্যাডভোকেট প্রকাশ বিশ্বাস ও মাহাবুব হাসান রানা ঐশীর পক্ষে রিমান্ড বাতিল করে জামিন আবেদন করে বলেন, ঐশী স্বেচ্ছায় ধরা দিয়েছে। সে নাবালিকা, তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের কোন প্রয়োজন নাই। প্রয়োজনে কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেয়া যেতে পরে।

দুপুরে সংবাদ ব্রিফিংয়ে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) জানায়, ঐশী নিজেই ছুরি দিয়ে বাবা-মাকে খুন। আর এতে সহায়তা করে তার বন্ধুরা। ঐশীর আরো দুই বন্ধকে খুঁজছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে ইন্সপেক্টর মাহফুজুর রহমান ও তার স্ত্রী স্বপ্না রহমানকে তাদের চামেলীবাগের ভাড়া বাসায় হত্যা করা হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়।

হত্যাকাণ্ডের পর মাহফুজুর রহমানের মেয়ে ঐশী তার ছোট ভাই ওহিকে নিয়ে বান্ধবী তৃষার বাসায় চলে গিয়েছিল। শনিবার দুপুরে ঐশী পল্টন থানা পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করলে তাকে সঙ্গে নিয়ে অভিযানে চালিয়ে আরো পাঁচজনকে আটক করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ইয়াবা সেবনে বাধা দেওয়ায় মেয়ে ঐশীর পরিকল্পনাতেই হত্যার শিকার হন মাহফুজ দম্পতি। বাবা-মা খুন হয়ে যাওয়ার পরও একমাত্র মেয়ে আত্মগোপনে চলে গিয়েছিল।

মাহফুজুর রহমান ও স্বপ্না রহমানের দু’সন্তান। মেয়ে ঐশী রহমান (১৬) ও ছেলে ঐহী রহমান (৭)। ঐশী ধানমণ্ডির অক্সফোর্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ও লেভেলের শিক্ষার্থী। আর ঐহী রহমান রাজারবাগ পুলিশ লাইন স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com