শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৩:৩১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি মাধবপুরে গাছ এবং বৈদ্যুতিক খুঁটি ॥ প্রাণ বাঁচাল শিশু ও বৃদ্ধসহ ৪০-৫০ জন বাস যাত্রীর চুনারুঘাটের স্ত্রী-বিজয়নগরের স্বামী বিপুল গাঁজাসহ ভৈরব রেলওয়ে পুলিশের খাঁচায় হবিগঞ্জে আরো ৭০৩ জন করোনা টিকা নিয়েছেন চুনারুঘাট এসোসিয়েশন ইউকে ও শায়েস্তাগঞ্জ সমিতি ইউকের ভার্চুয়াল শোক সভা ও দোয়া মাহফিল হবিগঞ্জে জাতীয় জীবন বীমা দিবস উপলক্ষে র‌্যালী নব নির্বাচিত মেয়র সেলিমের সাথে আইনজীবীদের শুভেচ্ছা বিনিময় শহরের মাদক ব্যবসায়ী সৈয়দ আলী কারাগারে ॥ রিমান্ডের আবেদন কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু মাধবপুরে মাদক বিরোধী জনসচেতনতার লক্ষ্যে বিটং পুলিশিং এর সভা অনুষ্টিত
কিশোরগঞ্জ থেকে পাঁচার করে নিয়ে আসা ৬ শিশুকে দিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি ॥ নবীগঞ্জের যুবক আটক ॥ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

কিশোরগঞ্জ থেকে পাঁচার করে নিয়ে আসা ৬ শিশুকে দিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি ॥ নবীগঞ্জের যুবক আটক ॥ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাদ্রাসায় পড়ানোর কথা বলে কিশোরগঞ্জ থেকে ছয় শিশুকে পাঁচার করে নিয়ে এসে ভিক্ষাবৃত্তিতে নামানোর অভিযোগে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। সেই সাথে পুলিশ ওই ছয় শিশুকে উদ্ধার করেছে। উদ্ধার হওয়া শিশুরা হলো-কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার সেকেন্দারনগর গ্রামের মালিপাড়া এলাকার কালা মিয়ার ছেলে সোহাদ (১০), একই গ্রামের গিরিপাড়ার আলো মিয়ার ছেলে জুয়েল (১১), ভোরগাঁওয়ের কাঞ্চন মিয়ার ছেলে জুনায়েদ (১৬), কুড়েরপাড় এলাকার আব্দুল লতিফের ছেলে নাঈম (৯), সেকেন্দারনগর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে রেজাউল (১২) ও বজেন্দ্রপুর গ্রামের তাহের মিয়ার ছেলে বরুজ মিয়া (১৩)। যে যুবকটি এসব শিশুদের ভিক্ষাবৃত্তিতে নামিয়েছে সে যুবকের নাম রাসেল মিয়া (২৫)। সে নবীগঞ্জ উপজেলার ফুলতলী এলাকার আব্দুল অদুদের ছেলে। শায়েস্তাগঞ্জ Shishuke_pachar01_252758346 copyনতুন ব্রিজ এলাকার এসআর আবাসিক হোটেলের ম্যানেজার।
এ ব্যাপারে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে ছয় শিশুর উপস্থিতিতে প্রেস ব্রিফিং দেন পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্র। প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি জানান, কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার সেকেন্দারনগর গ্রামের শহীদ মিয়া (৪০) ও সৈয়দ হিরু মিয়ার ছেলে এমরান (৩৫) ওই ছয় শিশুকে মাদ্রাসায় পড়ানোর কথা বলে প্রায় এক বছর আগে শায়েস্তাগঞ্জে নিয়ে আসে। পরে, শায়েস্তাগঞ্জের এসআর হোটেলে রেখে মারধর করে ভিক্ষাবৃত্তিতে নামানো হয়। প্রতিদিন ফজরের নামাজের পর ওই শিশুরা মাদ্রাসার ড্রেস পড়ে জেলার বিভিন্ন স্থানে ভিক্ষা করে। ভিক্ষার স্থান ও এলাকা ভাগ করে গাড়িতে করে নামিয়ে দিয়ে আসে শহীদ ও এমরান। দিনভর ভিক্ষা শেষে আবারো নির্দিষ্ট স্থান থেকে তাদের গাড়িতে করে তুলে নিয়ে আসা হয়। দিন শেষে প্রত্যেক শিশু ৩/৪শ টাকা পাচারকারীদের হাতে তুলে দেয়। ভিক্ষার টাকা কম হলে শিশুদের মারধর করা হয়। সোমবার সকালে বাহুবল উপজেলার কালুটোলা গ্রামের মক্তবের কাছে ভিক্ষা করতে যায় শিশু সোহাদ, জুয়েল ও জুনায়েদ। বিষয়টি স্থানীয় মাওলানা ফারুকের সন্দেহ হলে তিনি তাদের আটক করে থানায় খবর দেন। পরে, পুলিশ তিন শিশুকে উদ্ধার করে। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী রাতে শায়েস্তাগঞ্জ এস আর হোটেলে অভিযান চালিয়ে আরও তিন শিশুকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় হোটেল ম্যানেজার রাসেলকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় বাহুবল মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল্লাহ আল-মামুন বাদী হয়ে চার জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। উদ্ধার শিশু সোহাদ জানায়, সে প্রতিদিন ৩/৪শ টাকা ভিক্ষা করে পাচারকারী শহীদ ও এমরানের হাতে তুলে দিত। টাকা কম হলে তাদের মারপিট করা হতো।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com