মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৫৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ব বিদ্যালয় সম্পর্কে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করলেন আব্দুল মজিদ খান এমপি শহরে স্বস্তির বৃষ্টি হবিগঞ্জে নতুন করে ৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত নবীগঞ্জ চৌধুরী বাজারে ফিস সেড নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেছেন ডাঃ মুশফিক হুসেন চৌধুরী সুরতহাল ও ময়নাতদন্তে গড়মিল থাকায় মাধবপুরে ৩ মাস পর লাশ উত্তোলন শায়েস্তাগঞ্জে ভোক্তা অধিকারের অভিযান ॥ ৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা সাংবাদিক রাসেল চৌধুরী’র রোগমুক্তি কামনায় শাকিল চৌধুরীর মিলাদ ও দোয়া মাহফিল বাহুবলে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে এডভোকেসী সভা মাধবপুরে ৭ জুয়াড়িকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ২০ দিনের কারাদণ্ড ডাঃ মুশফিক হুসেন চৌধুরীর চুনারুঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন
বিবাহ বিচ্ছেদের প্রধান তিন কারণ

বিবাহ বিচ্ছেদের প্রধান তিন কারণ

এক্সপ্রেস ডেস্ক ॥ পরিণত বয়সের ছেলেমেয়েরা বিয়ে, সংসার, সন্তান জন্মদানের মধ্য দিয়ে জীবনের সফল পরিণতির সূচনা করবে। নিজের ইচ্ছায় হোক আর বাবা-মায়ের ইচ্ছাতেই হোক দাম্পত্য জীবনে সুখী হওয়ার আশায় শুরু করে একসঙ্গে পথচলা। তবে কখনো সে সুখে ছেদ পড়তে দেখা যায়। এমন কিছু ঘটনা ঘটে যাতে দুজনে আলাদা হয় বিয়ের সম্পর্ককে ছিন্ন করে। বিয়ের সম্পর্ক ছিন্নকারী ছেলেমেয়ের ওপর পরীক্ষা চালিয়ে বিয়ের সম্পর্ক ছেদ করার জন্য প্রধান তিনটি কারণকে দায়ি করা যায়।
অলসতা অলসতাকে বিবাহ বিচ্ছেদের প্রধান কারণ হিসেবে দেখা হয়েছে। অনেক ছেলেমেয়ে আছে যারা বিয়ের আগেও কর্মবিমুখ থাকে, বিয়ের পরেও সেই স্বভাবে পরিবর্তন আসে না। কর্মবিমুখতা একে অপরের প্রতি যতœশীল দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ করে দেয়। সংসারের প্রধান স্বামী যদি দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হন তবে স্ত্রী তার প্রতি শ্রদ্ধা হারায়। নিজের অভাব পূরণ না করতে পেরে স্ত্রী বেপরোয়া হয়ে ওঠে। সব কিছুই অসহ্য লাগে। কখনো তার মধ্যে পরকীয়ার প্রবণতাও দেখা দেয়। সংসারে শুরু হয় অশান্তি। তার জের ধরে সমাধান মেলে বিবাহ বিচ্ছেদে। যোগাযোগের অভাব
একে অপরের সঙ্গে মতের যথেষ্ট আদান-প্রদান ঘটাতে না পারলে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। কেউ কারো ওপর কোনো কর্তৃত্ব করার অধিকার ভোগ করতে না পারলে, দায়িত্ব পালনের চেষ্টা না থাকলে দূরত্ব বাড়ে। দিনের পর দিন দুজনের বেপরোয়া চলাফেরায় বিষিয়ে ওঠে সম্পর্ক। একে অপরের সঙ্গে মনের একান্ত কথা ভাগাভাগি করে নিতে না পারলে কেউ কারো প্রয়োজন বোঝে না। কেউ কারো প্রতি যতœশীল হয় না। ফলে গড়ে ওঠে মায়া মমতাহীন নামমাত্র সংসার। এক সময় দেখা যায় সে সম্পর্কে ছেদ পড়ে যায়।
উচ্চকাঙ্খা
বিয়ের পরও যদি কেউ কাউকে নিজের যোগ্য মনে না করেন তাহলে সম্পর্কে দুরত্ব বেড়ে চলে। দুজনের যে কারো মধ্যে উচ্চকাঙ্খা বা লোভের বসবাস শুরু হলে চাওয়া পাওয়া বেড়ে যায়। চাওয়া মেটানো সম্ভব না হলে একে অপরকে সহ্য করতে পারে না। উচ্চকাঙ্খায় একপক্ষের অন্ধ আচরণ অপরের প্রতি বিতৃষ্ণা বাড়িয়ে দেয়। ছোট খাটো ব্যপারে ঝগড়া বাধতে থাকে। একসময় তা রূপ নেয় বিবাহ বিচ্ছেদে। সূত্র ;হেলথবার্তা

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com