রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন

আগামী রবিবার থেকে সীমানা চিহ্নিতকরণ শুরু পুরাতন খোয়াই নদী দখলকৃত এলাকাগুলো পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

আগামী রবিবার থেকে সীমানা চিহ্নিতকরণ শুরু পুরাতন খোয়াই নদী দখলকৃত এলাকাগুলো পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জের পুরাতন খোয়াাই নদীর দখল হয়ে যাওয়া স্থানগুলো পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপা হবিগঞ্জ শাখার আবেদনের প্রেক্ষিতে তাঁরা পরিদর্শন করেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দিলীপ কুমার বণিক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রফিকুল ইসলাম স্টাফ কোয়ার্টার এলাকা থেকে শ্যামলী এলাকা পর্যন্ত পুরাতন খোয়াই নদীটি পরিদর্শন করেন। এ সময় বাপা হবিগঞ্জ শাখার সভাপতি অধ্যাপক মোঃ ইকরামুল ওয়াদুদ, বিশিষ্ট সাংবাদিক এডভোকেট মনসুর উদ্দিন আহমেদ ইকবাল, ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাবেক সভাপতি আলাউদ্দিন আহমেদ, সাবেক পৌর কমিশনার হাবিবুর রহমান, বাপা জাতীয় পরিষদ সদস্য তোফাজ্জল সোহেল, সাহিত্য ও সংবাদকর্মী সিদ্দিকী হারুন, রোটারী ক্লাব অব হবিগঞ্জের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এস এস আল আমিন সুমন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
পরিদর্শনকালে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, নদীটি অনেক জায়গায় ভরাট ও দখল হয়ে গেছে। যারা নদীর উপর ঘরবাড়ি নির্মাণ করেছেন তারা কিভাবে এগুলো নির্মাণ করলেন এটা খুঁজে নেয়া হচ্ছে। পুরাতন খোয়াই নদীর সীমানা নির্ধারণে আগামী রবিবার থেকে কাজ শুরুর জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, একই দিন বাপা হবিগঞ্জ শাখার একটি প্রতিনিধি দল জেলা প্রশাসক মনীন্দ্র কিশোর মজুমদারের সঙ্গে দেখা করে পুরাতন খোয়াই নদীর সীমানা চিহ্নিতকরণ, দখল উচ্ছেদ ও নদীর দুপাশে ওয়াকওয়ে নির্মাণের দাবীতে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন। ওই সময় বাপা-র প্রতিনিধিদলে ছিলেন বাপা হবিগঞ্জ শাখার সভাপতি অধ্যাপক মোঃ ইকরামুল ওয়াদুদ, সদস্য তাহমিনা বেগম গিনি ও জাতীয় পরিষদ সদস্য তোফাজ্জল সোহেল।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com