সোমবার, ০১ Jun ২০২০, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
ভারতীয় নাগরিকের পিটুনীতে বাংলাদেশী খুন ॥ লাশের অপেক্ষায় স্বজনরা বানিয়াচংয়ের বিভিন্ন বাজারে সেনাবাহিনীর জনসচেতনতামূলক প্রচারাভিযান শ্রীমঙ্গলে ৬৭ টি মামলায় ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা নবীগঞ্জে সরকারের অর্থ সহায়তার তালিকায় নারী কাউন্সিলরের পরিবারের ৬ সদস্যের নাম শচীন্দ্র লাল সরকারের সমাধীতে জেলা সিপিবি, উদীচী, কিবরিয়া ফাউন্ডেশন, সচেতন নাগরিক কমিটি ও মাতৃছায়া কেজি এন্ড হাইস্কুলের পুষ্পস্তবক অর্পন দৈনিক খোয়াই পত্রিকার সার্কুলেশন ম্যানেজার সাইফুলের পিতার ইন্তেকাল নবীগঞ্জে ভাতিজার হাতে চাচা খুন শ্রীমঙ্গলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শ্রীমঙ্গল পৌরসভার কাউন্সিলর আব্দুল আহাদের মৃত্যু বানিয়াচঙ্গের হাওর থেকে অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার হবিগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১
মহিলা মেম্বার ও চৌকিদারকে পেটালেন চেয়ারম্যান ধন মিয়া ॥ প্রতিকার চেয়ে ইউএনও বরাবরে অভিযোগ দায়ের

মহিলা মেম্বার ও চৌকিদারকে পেটালেন চেয়ারম্যান ধন মিয়া ॥ প্রতিকার চেয়ে ইউএনও বরাবরে অভিযোগ দায়ের

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এবার মহিলা মেম্বার ও চৌকিদারকে পেটালেন ২নং উত্তর পশ্চিম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা হায়দারুজ্জামান খান ধন মিয়া। প্রতিকার চেয়ে বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট অভিযোগ দায়ের করেছেন নির্যাতনের শিকার ইউনিয়নের সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার শিখা রাণী মোদক। গতকাল তিনি এ অভিযোগটি দাখিল করেছেন। এর অনুলিপি হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক এবং উপসচিব স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, পুলিশ সুপার হবিগঞ্জ ও অফিসার ইনচার্জ বানিয়াচং থানায়ও দেয়া হয়েছে।
অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, চেয়ারম্যান হায়দারুজ্জামান খান ধন মিয়া একজন প্রভাবশালী, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, পরদ্রব্য লোভী, নারী নির্যাতনকারী, সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী লোক হিসেবে চিহ্নিত। তিনি আরো উল্লেখ করেন, গত ১৭ জুন বিকালে অত্র ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ মিনাট নিবাসী অসুস্থ এখলাছ মিয়াকে দেখতে যান গরীব হোসেন মহল্লার মহিলা গ্রাম পুলিশ ছামিরুন্নেছা। পরক্ষণে আমিও এখলাছ মিয়াকে দেখতে তার বাড়ীতে যাই। অতঃপর হায়দারুজ্জামান খান ধন মিয়া সেখানে উপস্থিত হয়ে আমাদেরকে দেখে উত্তেজিত হয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন। এক পর্যায়ে তাদেরকে ঘর থেকে বাইরে এনে শত শত মানুষজনের সামনে মারধর শুরু করেন। এক পর্যায়ে তিনি মহিলা মেম্বারকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন ও গায়ে হাত তোলেন। প্রায় ১বছর পূর্বেও রাতের বেলায় ওই মহিলা মেম্বারকে অফিসে ডেকে এনে চুলে মুঠোয় ধরে মাটিতে ফেলে শারিরিকভাবে নির্যাতন করেছিলেন চেয়ারম্যান ধন মিয়া। এ ব্যাপারে মেম্বার শিখা রানী মোদক এর বক্তব্য চাওয়া হলে তিনি জানান, আমি একজন নিরীহ হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক, চেয়ারম্যান ধন মিয়ার অন্যায়কাজে সমর্থন না দেওয়া এবং ইউনিয়ন পরিষদের বিভিন্ন কাজের সঠিক হিসেব চাওয়ার কারণে তিনি আমার উপর একের পর এক নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com