মঙ্গলবার, ০২ Jun ২০২০, ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
এমপি আবু জাহির এর প্রচেষ্টায় হবিগঞ্জে হতে যাচ্ছে করোনা পরীক্ষার ল্যাব জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক নবীগঞ্জে মাসিক আইনশৃংঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত লাখাইয়ে পরীক্ষায় ফেল করায় কিশোরী আত্মহত্যা করোনায় চুনারুঘাটে সেলুন ব্যবসায়ীরা দিশেহারা নবীগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষায় পাশের হার ৭৯.৩১% জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭৬ জন ভারতীয় নাগরিকদের হাতে নিহত বাংলাদেশীর লাশ ৬ দিন পর বিজিবির কাছে হস্তান্তর হবিগঞ্জে দুই গ্রামবাসির সংঘর্ষে আহত ৫০ নবীগঞ্জে পুলিশের হস্তক্ষেপে সংঘাত থেকে রক্ষা পেল গ্রামবাসী বানিয়াচঙ্গে কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা ॥ লম্পট গ্রেফতার
মিষ্টি কুমড়া চাষ ॥ হবিগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া গ্রামের শতাধিক কৃষকরা স্বাবলম্বী

মিষ্টি কুমড়া চাষ ॥ হবিগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া গ্রামের শতাধিক কৃষকরা স্বাবলম্বী

আবু ছালেহ মোঃ নুরুজ্জামান চৌধুরী ॥ হবিগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া ইউনিয়নের তেঘরিয়া এলাকার কৃষকরা খোয়াই নদীর চরে মিষ্টি কুমড়া চাষ করে ভাগ্যের পরিবর্তন করেছেন এবং হয়েছেন স্বাবলম্বী। এই মিষ্টি কুমড়া জেলার বিভিন্ন স্থানে ও জেলার বাহিরে সরবরাহ করে স্বাবলম্বী হয়েছেন অনেকেই। চলতি মৌসুমে প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকার মিষ্টি কুমড়া বিক্রয় করেছেন কৃষকরা। ভবিষ্যতে অর্ধ লাখ টাকার কুমড়া বিক্রি করবেন বলে কৃষকরা জানিয়েছেন। তাদের কে অনুসরন করে কুমড়া চাষের দিকে ঝুঁকেছেন ওই এলাকার অন্যান্য কৃষকরা।
হবিগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া ইউনিয়নে ব্যাপকভাবে সবজি চাষের পাশাপাশি উন্নত মানের মিষ্টি কুমড়া চাষ হয়ে আসছে। জেলায় শহরতলীর খোয়াই নদীর দুই তীরের চরে ২০ হেক্টর জমিতে মিষ্টি কুমড়া আবাদ করা হয়েছে। কৃষি সম্পসারণ বিভাগ হবিগঞ্জ জানায় প্রায় ৩০ মেঃ টন কুমড়া উৎপাদন হবে আবাদকৃত জমিতে। তেঘরিয়া গ্রামের শতাধিক পরিবার মিষ্টি কুমড়া চাষ করে আসছেন। নদীর চরে কুমড়া চাষের ফলন ভাল হওয়ায় তেঘরিয়া গ্রামের কৃষকরা মিষ্টি কুমড়া আবাদ দিকে দিন দিন ঝুঁকছেন। মিষ্টি কুমড়া বিক্রি করে ওই এলাকার কৃষকরা সাবলম্বী হয়েছেন। ইতিমধ্যে এলাকার কৃষকরা প্রায় ১০ লাখ টাকার কুমড়া বিক্রি করেছেন। এবং বেশি মূল্য পাওয়ার আশায় মিষ্টি কুমড়া বসত ঘরে মজুদ করে রেখেছেন ৪ থেকে ৫ মাস পরে উচ্চ মূল্যে তা তারা বাজারে বিক্রি করবেন। তারা জানিয়েছে মজুদকৃত মিষ্টি কুমড়া ও ক্ষেতে থাকা কুমড়া ৪০ থেকে ৫০ লাখ টাকা বিক্রি হবে বলে ধরনা। তাদেরকে অনুসরণ করে আশে পাশের এলাকার অন্যান্য চাষীরা মিষ্টি কুমড়া চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন।
সদর উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মাহাবুবুল হক তেঘরিয়া গ্রাম বাসিকে মিষ্টি কুমড়া চাষে আগ্রহী করে তুলেন। তিনি জেলা কৃষি সম্পসারণ বিভাগের তত্ত্বাবধানের মাঠ পর্যায়ে কৃষকদেরকে পরামর্শ দিয়ে আসছেন। চাষীরা জানান, বিগত কয়েক বছর ধরে মিষ্টি কুমড়া চাষ করে লাভের মুখ দেখায় কৃষকরা উন্নত মানের বীজ সংগ্রহ ও জৈব সার প্রয়োগ করে মিষ্টি কুমড়া চাষ করে আসছেন। বিগত দিনের চেয়ে অধিক পরিমাণের জমিতে কুমড়া চাষ করে হয়েছে। মৌসুমের শুরুতেই মোহাম্মদ আলী, আব্দুল হাই, আব্দুল মতিন, আকবর আলী, মন্নর আলী, হাজী খুরশেদ আলী, আব্দুল জলিল, কুতুব আলী, সজিব আলী, নাহার আক্তার, জুলেনা বেগম, সাহেদা বেগম, রাবেয়া বেগম, মরতুজ আলী, আহাম্মদ আলী সহ আরো অনেক কুমড়া চাষ করেছেন। লাভের আশায় তাদের দেখা দেখি আরো অনেকে মিষ্টি কুমড়া আবাদ করতে এগিয়ে আসছেন। ক্ষেতে এক একটি মিষ্টি কুমড়া ২০ থেকে ৩০/৩৫ কেজি ওজনের হয়ে থাকে। মোঃ শাহ্ আলম, উপ-পরিচালক, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ, হবিগঞ্জ জানান সঠিক দিক-নির্দেশনা ও সার্বিক সহযোগীতায় ওই এলাকার কৃষকরা স্বল্প খরচ ও অল্প পরিশ্রমে মিষ্টি চাষের দিকে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন দিন দিন। জেলার কৃষি সম্পসারণ বিভাগ বিষ মুক্ত জৈব সার প্রয়োগ করে সেক্স হরমোন পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে কি ভাবে মিষ্টি কুমড়া আবাদ করা যায় সে ব্যাপারে তাদের সার্বিক পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে মাঠে। তিনি আরও জানান খোয়াই নদীর দু’পাড়ে উর্বর জমিতে মিষ্টি কুমড়া চাষের জন্য উপযোগী। কৃষকরা জানান নিয়মিত কৃষি বিভাগ উন্নত মানের বীজ সরবরাহ ও ইদুর দমনে সার্বিক সহযোগীতা দিলে কৃষকরা এ চাষে আরও আগ্রহী হয়ে উঠবেন। কৃষি বিভাগ জানায় তারা ওই এলাকার কৃষকদেরকে নদীর তীরের চরে উর্বর মাটিতে মিষ্টি কুমড়া চাষে উন্নত বীজ সরবরাহ সহ সার্বিক পরামর্শ ও সহযোগীতা দিয়ে আসছে। অদূর ভবিষ্যতে তাদের পরামর্শ ও সহযোগীতা অব্যহত থাকবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com