সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জের নদী খোকোদের তালিকা প্রকাশ ॥ শীঘ্রই উচ্ছেদ অভিযান মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের পিটুনীতে বড় ভাই খুন এমপি আবু জাহিরের প্রচেষ্টায় হবিগঞ্জ সদর ও শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ ॥ আজ এক যোগে উদ্বোধন নবীগঞ্জে সন্ত্রাসী মুছা ১০ দিনেও অধরা কর আদায়ের উপর নির্ভর করে পৌরসভার উন্নয়ন-মেয়র ছাবির চৌধুরী নবীগঞ্জে নারী প্রতারক গ্রেপ্তার মানুষ বাঁচে তার কর্মে, বয়সের মধ্যে নয়-মিলাদ গাজী এমপি নবীগঞ্জে সাবেক ইউপি সদস্যের দাফন সম্পন্ন ॥ শোক প্রকাশ ‘হবিগঞ্জের মানুষ অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-মেয়র মিজান দুর্নীতি আর লুটপাটের মহাসাগরে নিমজ্জিত আওয়ামীলীগের পতন হবেই- জিকে গউছ
হবিগঞ্জ নিউ ফিল্ডে আওয়ামীলীগের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ॥ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ ও শায়েস্তাগঞ্জকে উপজেলা করার আশ্বাস

হবিগঞ্জ নিউ ফিল্ডে আওয়ামীলীগের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ॥ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ ও শায়েস্তাগঞ্জকে উপজেলা করার আশ্বাস

আবু হাসিব খান চৌধুরী পাবেল/মোঃ ছানু মিয়া/এম কাউছার আহমেদ ॥ প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০২১ মালের মধ্যে আমরা বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করবো। বাংলাদেশকে আমরা সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলবো। বর্তমান সরকার দেশের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা গ্রামের গরীব জনসাধরণের জন্য একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প চালু করেছি। পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক স্থাপন করেছি। প্রত্যেক গ্রামের গরীব মানুষকে একটি করে ঘর তৈরী করে দেয়া হবে। আমাদের লক্ষ্য মানুষের কল্যাণ করা। আমরা স্বল্প সুদে ঋণের এবং কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছি। যাতে একজন যুবকও বেকার না থাকে। সিলেটে বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে রূপান্তরিত করেছি। তিনি বলেন, বিগত নির্বাচনে বিএনপি না আসায় একটি শান্তিপূর্ণ সংসদ প্রতিষ্টিত হয়েছে। এখন সংসদে আর অশালিন বক্তব্য শুনা যায় না। তিনি বলেন, ঘরে ঘরে ক্ষুধা-দারিদ্র থাকবে না এটাই আওয়ামীলীগ সরকারের প্রতিজ্ঞা। প্রধানমন্ত্রী গতকাল বিকেলে হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।
গতকাল শনিবার সকাল থেকেই জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে লোকজন এবং আওয়ামীলীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিল সহকারে হবিগঞ্জ নিউ ফিল্ডে জনসভাস্থলে আসতে থাকেন। জনসভার নির্ধারিত সময় বেলা ২টায় হলেও দুপুর ১২ টার পূর্বেই জনসভাস্থল কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। জনসভাস্থলে মানুষের ঠাঁই না হওয়ায় পার্শ্ববর্তী বাইপাস সড়কে অবস্থান নেয়। জনসভাস্থলের বাইরে অবস্থানরত জনতার সুবিধার্থে বিভিন্ন স্থানে বড় পর্দা সাটানো হয়। জনসভাস্থলের চারদিকে প্রায় ২ কিলোমিটার পর্যন্ত মাইক স্থাপন করা হয়। এছাড়া স্থানীয় এয়ারলিংক টিভি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে স্থানীয়ভাবে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। এতে বাসা-বাড়িতে অবস্থানরত লোকজন প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য সরাসরি শুনতে পান।
Habiganj Pic copyহবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি সদর-লাখাই আসনের এমপি এডঃ মোঃ আবু জাহির এর সভাপতিত্বে ও জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক এডঃ আব্দুল মজিদ খান এমপি, সহসভাপতি এডঃ আবুল ফজল ও আলমগীর চৌধুরীর সঞ্চালনায় জনসভায় বক্তব্য রাখেন, সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর এমপি, উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডঃ মিছবাউদ্দিন সিরাজ, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হক, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী মনসুর হামিদ বিপু, অর্থ প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান এমপি, মহিবুর রহমান মানিক এমপি, হুইপ সাহাবুদ্দিন আহমেদ এমপি, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বিরেন শিকদার, সাবেক চীপ উইপ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ, মৌলভীবাজারের সাবেক এমপি আজিজুর রহমান, চুনারুঘাট-মাধবপুর আসনের এমপি এডঃ মাহবুব আলী, হবিগঞ্জ জেলা পরিষদ প্রশাসক ডাঃ মুশফিক হোসেন চৌধুরী,  সিলেট সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমেদ কামরান, মৌলভী বাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিছবাউদ্দিন, সিলেটের সাবেক এমপি সফিকুর রহমান চৌধুরী, মৌলভীবাজারের সাবেক এমপি হোসেনে আরা ওয়াহিদ, চুনারুঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের, লাখাই উপজেলা চেয়ারম্যান মুশফিউল আলম আজাদ, বাহুবল উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল হাই, আজমিরীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আতর আলী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেলাল হোসাইন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক আতিক, কেন্দ্রীয় নেতা সুব্রত পুরকায়স্থ, আওয়ামীলীগ জাতীয় পরিষদ সদস্য শহীদ উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভপতি মুক্তিযোদ্ধা এডঃ সিরাজুল হক চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী টিপু, আরব আলী, শেখ শামসুল হক, শরীফ উল্লাহ, এডঃ আলমগীর ভূইয়া বাবুল, মুকুল আচার্য্য, যুগ্ম সম্পাদক এড সালেহ আহমদ, মরতুজা হাসান, মরতুজ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন চৌধুরী অসীম, মশিউর রহমান শামীম, জেলা যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সবাপতি সৈয়দ কামরুল হাসান, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি হুমায়ূন কবির রেজা, পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি অ্যাডঃ নিলাদ্রী শেখর পুরকায়স্থ টিটো, সাধারণ সম্পাদক মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অ্যাডঃ মোহাম্মদ আলী পাঠান, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ, সাবেক সভাপতি মোস্তফা কামাল আজাদ রাসেল, বর্তমান সভাপতি ইশতিয়াক রাজ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মুকিদুল ইসলাম প্রমূখ।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরো বলেন, আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসলে দেশে শান্তি আসে। দেশের উন্নয়ন ও জনগণের কল্যান সাধিত হয়। আর বিএনপি ক্ষমতায় আসলে দেশে অশান্তি বিরাজ করে। জঙ্গীবাদের উত্থান ঘটে। বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে শেখ হাসিনা বলেন, স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিকে আশ্রয় দেয়ায় জনগণের আদালতে তাদেরও বিচার হওয়া উচিৎ। এরা সন্ত্রাসী লালন আর দুর্নীতি করে। তারা দুর্নীতি আর মানুষ খুন ছাড়া আর কিছুই করতে পারে না। তিনি বলেন, বিএনপি যুদ্ধাপরাধিদের হতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়েছিল। আর আমরা ওই যুদ্ধাপরাধিদের বিচার করছি। অনেকের রায়ও কার্যকর হয়েছে। তিনি বলেন, যোদ্ধাপরাধিদের সহযোগিতা করে বেগম জিয়া রাষ্ট্রদ্রোহ কাজ করেছেন। এজন্য তাকেও কাঠগড়ায় দাড়াতে হবে। বিএনপি-জামাত এক হয়ে ইসলাম কায়েমের নামে রাজনীতি করে। এরা নির্বাচন বন্ধের নামে বাসে-ট্রেনে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা করেছে। তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী তাদের আমলে উন্নয়নের জোয়ার বয়ে গিয়েছিল একথা বলে বেড়ান। কিন্তু উন্নয়নের জোয়ার কি তা তিনি বুঝেন না। তাদের উন্নয়নের জোয়ারে দেশে ৩ হাজার মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন কমে গিয়েছিল। তারা গ্রেনেড, হত্যা ও সন্ত্রাসের উন্নয়ন কায়েম করেছিল। তাদের আমলে বৃটিশ রাষ্ট্রদূতসহ শুধু সিলেট বিভাগেই ১০টি জায়গায় গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটানো হয়েছিল। শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি-জামাত সরকারের আমলে সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়াকে গ্রেনেড হামলায় হত্যা করা হয়েছিল। ওই হত্যাকান্ডের চার্জশীট আদালতে দাখিল হয়েছে। বিচার কাজ সম্পন্নের মাধ্যমে দোষীদের শাস্তি দেয়া হবে।Habiganj pm pic 5 copy
শেখ হাসিনা বলেন, জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চা শ্রমিকদের নাগরিকত্ব দিয়েছিলেন। আর বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় এতে চা শ্রমিকদের শিক্ষা স্বাস্থ্য সহ তাদের জীবনমান উন্নয়নের ব্যবস্থা করেছে। তিনি বলেন, দেশকে দারিদ্রমুক্ত করতে হলে জাতিকে শিক্ষিত করে তুলতে হবে। তাই ভবিষ্যত প্রজন্ম যাতে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নিতে পারে সে লক্ষে বছরের শুরুতে আমরা বিনা মূল্যে ছাত্রছাত্রীদের হতে ৩২ কোটি বই তুলে দিচ্ছি।
তিনি বলেন, বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকার প্রত্যেক জেলায় ১টি করে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের পরিকল্পনা গ্রহন করেছে। তাই হবিগঞ্জেও একটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হবে। এছাড়া হবিগঞ্জে একটি মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্টা ও শায়েস্তাগঞ্জকে উপজেলা করার আশ্বাস প্রদান করেন। তিনি বলেন, হবিগঞ্জে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট আধুনিক হাসাতাল ও বানিয়াচঙ্গ-আজমিরীগঞ্জ শরীফ উদ্দিন সড়ক উন্নয়ন কাজ দ্রুত সম্পন্ন করা হবে।
জনসভার আগে প্রধানমন্ত্রী নবনির্মিত হবিগঞ্জ আধুনিক স্টেডিয়াম, হবিগঞ্জ ডায়াবেটিক হাসপাতাল, হবিগঞ্জ নার্সিং ইন্সটিটিউট, হবিগঞ্জ জেলা পরিষদ অডিটরিয়াম ও কমিউনিটি সেন্টার, হবিগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমি ভবন, হবিগঞ্জ ফায়ার স্টেশন, আলেয়া জাহির কলেজ, জেলা আনসার ও ভিডিপি অফিস ভবন, বানিয়াচঙ্গ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন, শায়েস্তাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন, হবিগঞ্জ কে›ন্দ্রীয় ঈদগাহ উন্নয়ন কার্যক্রম উদ্বোধন এবং আজমিরীগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন ও শাহজীবাজার ৩৩০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল পাওয়ার প্ল্যান্ট এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com