মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২০, ১২:৩২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জে ছাত্রদলের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ ॥ আহত অর্ধশতাধিক ॥ চেয়ার ও মোটর সাইকেল-দোকান ভাংচুর ॥ আটক ২ নবীগঞ্জের চাঞ্চল্যকর জ্যোস্না হত্যা মামলায় ১৬ জনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ ॥ ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেছে ষড়যন্তকারীরা-মিজান মাধবপুর ও চুনারুঘাট সীমান্ত দিয়ে অবাধে আসছে ভারতীয় পণ্য ॥ সক্রিয় নারী পুরুষের বিশাল সিন্ডিকেট ॥ লোকসানে বাজার হারাচ্ছে দেশীয় পণ্য বাণিজ্য মেলায় বিক্রি হচ্ছে নকল কসমেটিকস ও মেয়াদউত্তীর্ণ ড্রিংকস এমপি আবু জাহির এর সভাপতিত্বে সংসদীয় সাব কমিটির সভা অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জে প্যানেল চেয়ারম্যানের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন মহাসড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ চুনারুঘাট থেকে ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক ॥ বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়ন আ.লীগের কমিটি গঠন শহরের পুরান মুন্সেফী এলাকায় ২ শতাধিক অসহায় লোকদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সকল ইউনিট কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা
মাধবপুরে দীর্ঘদিন ধরে প্রকৌশলী না থাকায় উন্নয়ন কাজে স্থবিরতা

মাধবপুরে দীর্ঘদিন ধরে প্রকৌশলী না থাকায় উন্নয়ন কাজে স্থবিরতা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাধবপুর উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা প্রকৌশলী না থাকায় উন্নয়ন কাজে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। উন্নয়ন কাজে সঠিক তদারকির অভাব এবং উপজেলা পরিষদের সাথে প্রকৌশল বিভাগের সমন্বয় না থাকার সুযোগে ঠিকাদাররা নিজেদের মতো করে নিম্নমানের কাজ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিশ্বস্থ সূত্রে জানা যায়-২০১২ সালের ১ জুলাই তৎকালীন উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুর রাজ্জাক বদলী হওয়ার পর জনৈক নেতার আস্থাভাজন হিসাবে পরিচিত সহকারী প্রকৌশলী আহম্মেদ তানজীর উল্লাহ সিদ্দীকি জুমানকে প্রধান প্রকৌশলীর কার্যালয় থেকে প্রকৌশলী চলতি দায়িত্ব দেয়া হয়। ওই সময় এ দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়ে তানজীর আইন কানুনের তোয়াক্কা না করে নিজের খেয়াল খুশী মতো প্রকৌশল বিভাগকে চালাতে থাকেন। তিনি নেতার পছন্দের লোক হওয়ায় কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস করতেন না। বিগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সৈয়দ মোঃ শাহজাহান উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথমে তার আনুকল্য পাওয়ার চেষ্টা করেন ওই প্রকৌশলী। কিন্তু উপজেলা চেয়ারম্যান বিরোধীদলীয় প্ল্যাটফর্ম থেকে নির্বাচিত হওয়ায় তার সাথে দূরত্ব সৃষ্টি করে স্থানীয় সংসদ সদস্যের আনুকল্য পাওয়ার জন্য সরকারী দলের কয়েকজন নেতাকে ম্যানেজ করেন। এবং নিজস্ব বলয় তৈরী করে আবারও পূর্বের স্টাইলে চলতে থাকে। সম্প্রতি ধর্মঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামসুল ইসলাম কামালে বিরুদ্ধে একটি গাছ চুরির অভিযোগে মামলা দায়ের করলে ১১ জন চেয়ারম্যান তাকে বদলীসহ বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে পরিষদের সকল সভা থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নেয় এবং কয়েকটি সভায় অংশ গ্রহন থেকে বিরত থাকে। পরবর্তীতে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের আহবানে সকল চেয়ারম্যান তাদের আন্দোলন কর্মসূচি স্থগিত রেখে সভায় অংশ গ্রহন করার সিদ্ধান্ত নেয়। এর পরপরই মিনা আহম্মেদ নামে জনৈক মহিলা তানজীর উল্লাহ সিদ্দীকি জুমানের স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে প্রধান প্রকৌশলীসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। যা জাতীয় পত্রিকাসহ বিভিন্ন সংবাদ-পত্রে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। গাজীপুর থেকে একটি বিশ্বস্থ সূত্র জানায়-আহম্মেদ তানজীর উল্লাহ সিদ্দিকী জুমান বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন অবস্থায় বিএনপির ছাত্র সংগঠন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন এবং একজন সক্রিয় ক্যাডার হিসাবে গাজীপুরে তার পরিচিতি রয়েছে। কিন্তু এ সরকার ক্ষমতায় আসার পর নিজেকে আওয়ামী লীগের কর্মী হিসাবে পরিচয় দিয়ে সরকারী দলের আনুকল্য পাওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা যায়-উপজেলা পরিষদের সাধারণ সভা বা অন্যান্য সভায় আহম্মেদ তানজীর উল্লাহ সিদ্দিকী জুমান উপস্থিত না থেকে ওই সভাগুলিতে প্রতিনিধি পাঠিয়ে থাকেন। এ ব্যাপারে হবিগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী (এলজিইডি) মোঃ রবিউল ইসলাম বলেন-আহম্মেদ তানজীর উল্লাহ সিদ্দিকী জুমান মূলত সহকারী প্রকৌশলী, তাকে হেড অফিস চিঠির মাধ্যমে প্রকৌশলী চলতি দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এ বিষয়গুলো নিয়ে আমরা বিব্রত। মাননীয় সংসদ সদস্যের সাথে পরামর্শ করে অচিরেই একজন প্রকৌশলী নিয়োগ দেয়া হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com