রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
লাখাইয়ে পারিবারিক বিষয় নিয়ে বাকবিতন্ডা ॥ পুত্রের হাতে পিতা খুন হবিগঞ্জে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম ॥ রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনই উত্তম পন্থা শহরের বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের সামন থেকে ১২ রোমিও আটক পরিবারের মুছলেখায় মুক্তি ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে চুনারুঘাটের ১ জনের মৃত্যু নবীগঞ্জে বউ-শাশুড়ীর ঝগড়া প্রাণ গেল সবুর হোসেনের বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে দেশকে পিছিয়ে দিয়েছিল-এমপি মিলাদ গাজী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলা গড়াই হোক জাতীয় শোক দিবসের অঙ্গীকার-এমপি মজিদ খান পইলে শহীদ এনাম স্মৃতি সংঘের ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত তিতখাই-চান্দপুর সড়কটি সংস্কার কাজ বন্ধ ॥ জনদুর্ভোগ চরমে বানিয়াচঙ্গে চেক ডিজঅনার মামলার সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার
চুনারুঘাটে বিয়ের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা ॥ আহত ১০

চুনারুঘাটে বিয়ের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা ॥ আহত ১০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চুনারুঘাটের শ্রীকুটা গ্রামে বিয়ের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক অপহরণের চেষ্টা করা হয়েছে। এ সময় অপহরণকারীদের বাধা দিলে তাদের হামলায় নারীসহ ১০ জন আহত হয়। এদিকে উত্তেজিত এলাকাবাসী অপহরণকারীকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। গত ৩০ জুলাই শ্রীকুটা গ্রামের রায়হান ও তার সহযোগীরা শ্রীকুটা আদর্শ হাই স্কুলের নবম শ্রেনীর ছাত্রী (১৪) রেবেনা আক্তার রিতুকে অপহরণ করার চেষ্টা করে।
এজাহার সূত্রে জানা যায়, চুনারুঘাট উপজেলার শ্রীকুটা হাজী আবুল কালমের মেয়ে রেবেনা আক্তার রিতু শ্রীকুটা আদর্শ হাই স্কুলের নবম শ্রেনীর ছাত্রীর ছাত্রী। গত কয়েক মাস যাবত একই এলাকার মৃত আব্দুল হান্নানের পুত্র রায়হান আহমেদ রিতুর পরিবারের কাছে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু নাবালিকা হওয়ায় এবং নারী উত্যক্তকারী হিসেবে এলাকায় পরিচিত হওয়ায় মেয়ের পরিবার তার এ প্রস্তাব গ্রহণ করেনি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রেবেনার স্কুলে যাওয়ার আসার সময় প্রায়ই ইভটিজিং করতো রায়হান। এ নিয়ে এলাকায় সালিশ বৈঠকও অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিকে রায়হান কোন ভাবেই মেয়েটিকে বাগে আনতে না পারায় গত ৩০ জুলাই শেষ রাতে মেয়েটিকে অপহরণ করতে তার বাড়িতে যায়। এ সময় বাড়ির প্রধান ফটকের তালা ভাঙ্গার শব্দে বাড়ির লোকজন ঘুম থেকে উঠে পড়ে এবং রায়হানকে আটক করার চেষ্টা করে পরিবারের লোকজন। এ সময় রায়হান ও তার কয়েকজন সহযোগি রিতুর পরিবারের লোকজনের উপর হামলা চালায়। হামলায় রিতুর পিতা হাজী আবুল কালাম, চাচা জামাল আহমেদ, জয়নাল আহমেদ, লিমন মিয়া ও কামাল আহমেদসহ ১০ জন আহত হয়। এ সময় উত্তেজিত জনতা রায়হানকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় রেবেনা আক্তার রিতুর মা সৈয়দা আছমা আক্তার বাদী হয়ে চুনারুঘাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পর থেকে রায়হান পলাতক রয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com