শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:২৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জে নৌকার জয় হলে শেখ হাসিনার জয় হবে-ব্যরিস্টার শেখ ফজলে নাঈম একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে বিএনপির প্রার্থী সেলিমকে ধানের শীষে ভোট দিন-জিকে গউছ শায়েস্তাগঞ্জ সড়কে দুর্ঘটনায় যুবক নিহত ॥ আহত ৫ ভয়ভীতির উর্ধে উঠে নারিকেল গাছ প্রতীকে ভোট দিন-মেয়র প্রার্থী মিজান হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন ॥ স্বশিক্ষিতের ভিড়ে ব্যতিক্রম ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী কৌশিক আচার্য্য পায়েল এডঃ এনামুল হক সেলিমের সমর্থনে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি পরিবারের ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্টিত ব্যাংকার মওদুদ হত্যার প্রতিবাদে হবিগঞ্জে মানববন্ধন ও শোক র‌্যালী মেয়র প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিমকে হবিগঞ্জ জেলা ন্যাপের সমর্থন গণসংযোগকালে পান্না কুমার শীল আমি বিজয়ী হলে ৩নং ওয়ার্ডকে একটি আধুনিক ও বাসযোগ্য হিসেবে গড়ে তুলব বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসাবে স্বীকৃতির দাবিতে হবিগঞ্জে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্টিত
চেক ডিজঅনার মামলায় নবীগঞ্জের লন্ডনী হেলাল চৌধুরীর ১ বছরের জেল ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা

চেক ডিজঅনার মামলায় নবীগঞ্জের লন্ডনী হেলাল চৌধুরীর ১ বছরের জেল ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একটি চেক ডিজঅনার মামলায় হেলাল উদ্দিন চৌধুরী নামে এক ব্যক্তিকে ১ বছরের শস্ত্রম কারাদন্ড ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে। হবিগঞ্জের যুগ্ম দায়রা জজ ১ম আদালত এর বিজ্ঞ বিচারক মোহাম্মদ শহীদুল আমিন গত ১১ জানুয়ারী এ রায় প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্ত হেলাল উদ্দিন চৌধুরী নবীগঞ্জ উপজেলার গাবদেও গ্রামের আব্দুর রউফ চৌধুরী ওরফে সুরুজ মিয়ার পুত্র।
মামলা সূত্রে জানা যায়, হবিগঞ্জ শহরের দক্ষিণ অনন্তপুর এলাকার খন্দকার আব্দুল বারীর ছেলে লন্ড অবস্থান করায় সেখানে দন্ডপ্রাপ্ত হেলাল উদ্দিন চৌধুরীর সাথে পরিচয় হয়। সে সুবাধে খন্দকার আব্দুল বারীর নিকট থেকে হেলাল উদ্দিন চৌধুরী ১০ লাখ কর্জ নেন। উক্ত কর্জ নেয়া টাকা পরিশোধের জন্য দন্ডপ্রাপ্ত হেলাল উদ্দিন চৌধুরী ২০১৭ সনের ৪ ডিসেম্বর এবি ব্যাংক হবিগঞ্জ শাখার (চেক নং-১৭৯৮৪৬) ১০ লাখ টাকার একটি চেক প্রদান করেন। চেকটি ব্যাংকে জমা দিলে টাকা না থাকায় ২০১৮ সনের ২৩ জানুয়ারী চেকটি ডিজঅনার হয়। পরে আইনজীবীর মাধ্যমে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করা হয়। ২০১৮ সনের ১১ ফেব্রুয়ারী নোটিশ গ্রহণ করলেও তিনি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে টাকা পরিশোধের কোন ব্যবস্থা করেননি। ফলে খন্দকার আব্দুল বারী বাদী হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে খন্দকার আব্দুল বারী ইন্তেকাল করায় তার স্ত্রী জাহানারা বেগম মামলা পরিচালনা করেন। মামলা স্বাক্ষ্য প্রমাণে প্রমাণিত হওয়ায় বিজ্ঞ বিচারক মোহাম্মদ শহীদুল আমিন গত ১১ জানুয়ারী অভিযুক্ত হেলাল উদ্দিন চৌধুরীকে উপরোল্লিখিত দন্ড প্রদান করেন। রায় প্রদান কালে দন্ডপ্রাপ্ত হেলাল উদ্দিন চৌধুরী পলাতক থাকায় গ্রেফতার কিংবা স্বেচ্ছায় আদালতে আত্মসমর্পণের দিন থেকে সাজার মেয়াদ গণনা করা হবে বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com