মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ হবিগঞ্জে ড্যান্ডি নেশায় ঝুঁকছে টোকাই শিশুরা প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলীর সাথে মেয়র সেলিমের শুভেচ্ছা বিনিময় নয়া জেলা প্রশাসক ইসরাত জাহানের দায়িত্ব গ্রহণ এমপি পুত্র ইফাত জামিলের আইন বিষয়ে ¯œাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন হবিগঞ্জ পৌর নির্বাচন ৭দিন আগে অনুষ্ঠিত হলেও শহরে বিরাজ করছে নির্বাচনী আমেজ! পোষ্টারে পোষ্টারে ছেয়ে আছে হবিগঞ্জ শহর ! এগুলো পরিস্কারের দায়িত্ব কার ? জন দূর্ভোগ ॥ নবীগঞ্জ-মুক্তাহার ব্রীজ বানিয়াচংয়ে প্রেমিকের ব্যবসা প্রতিষ্টানে প্রেমিকার অনশন ॥ সালিশে নিষ্পত্তির শর্তে মুরুব্বীদের জিম্মায় নবীগঞ্জে খোলা জায়গায় পশু জবাই করে বিক্রি ॥ পরিবেশ দুষিত হচ্ছেন পত্রিকায় লিখে কোন লাভ হবে না। কর্তারা তাদের ম্যানেজ নবীগঞ্জে অসহায় ব্যক্তির অর্ধশতাধিক গাছ কর্তন
স্টেডিয়াম এলাকা আবর্জনার ভাগাড় ॥ দু’দফা জমি কিনেও থমকে আছে হবিগঞ্জ পৌরসভার ডাম্পিং স্টেশন নির্মাণ

স্টেডিয়াম এলাকা আবর্জনার ভাগাড় ॥ দু’দফা জমি কিনেও থমকে আছে হবিগঞ্জ পৌরসভার ডাম্পিং স্টেশন নির্মাণ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দু’দফা জমি কিনেও নানা জটিলতায় থমকে আছে হবিগঞ্জ পৌরসভার ডাম্পিং স্টেশন নির্মাণ। জমি কিনে দফায় দফায় চেষ্টা করে কয়েক বছরেও এটি নির্মান করা যায়নি। শুরুতে স্থানীয় বাসিন্দা আর জনপ্রতিনিধিদের আপত্তির কারণে তা থমকে দাঁড়ায়। কিন্তু এখন হবিগঞ্জ-বানিয়াচং সড়কটি দুই লেন করার পরিকল্পনায় এটি আরও জটিল হয়ে উঠেছে। পূর্বের কেনা জমিটিও এখন কাজে আসছেনা। তাই আবারও জমি কেনা হয়েছে। এদিকে ডাম্পিং স্টেশন না থাকায় পৌর এলাকার বর্জ্য ফেলা হচ্ছে আধুনিক স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকা। ফলে দুর্গন্ধে চলাচল অনুপযোগি হয়ে পড়েছে বাইপাস সড়কটি। দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, আদালতসহ আশপাশের কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে। এতে ক্ষোভের অন্তঃনেই স্থানীয়দের মাঝে। অপরদিকে এ স্থানে ময়লা ফেলা বন্ধ করতে তাগিদ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। কিন্তু তাতেও কোন ফল মিলছেনা।
এ বিষয়ে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ হোসেন কলি জানান, পৌরসভার ফেলা বর্জ্যে আধুনিক স্টেডিয়াম এলাকায় দুর্গন্ধময় পরিবেশ বিরাজ করছে। ফলে জাতীয় পর্যায়ের অনেক প্রতিযোগিতা স্টেডিয়ামে আয়োজন করা সম্ভব হয় না। এ সমস্যা সমাধানের জন্য বিভিন্ন সময় পৌর কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হলেও কোন কাজ হয়নি। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান জানান, এখানে ময়লা ফেলা বন্ধ করতে বার বার পৌর কর্তৃপক্ষকে তাগিদ দেয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে তাদেরকে লিখিত চিঠিও দেয়া হয়েছে।
পৌর মেয়র মো. মিজানুর রহমান মিজান জানান, পৌরসভার ময়লা ফেলার ডাম্পিং স্পট স্থাপনের জন্য কয়েক বছর পূর্বে বানিয়াচং উপজেলার আতুকুড়া মৌজায় হবিগঞ্জ-বানিয়াচং সড়কের পাশে ২ একর ২০ শতাংশ ভূমি ক্রয় করা হয়েছিল। কিন্তু স্থানীয় জনসাধারণের আপত্তির কারণে উক্ত ভূমির দখল পায়নি পৌর কর্তৃপক্ষ। ফলে ডাম্পিং স্টেশন স্থাপন করা সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় আধুনিক স্টেডিয়ামের পাশে ময়লা ফেলা হচ্ছে। তিনি বলেন, সম্প্রতি উক্ত সড়কটি দুই লেন করার প্রক্রিয়া চলছে। তাই উক্ত জমিটি তেমন কাজেও আসছেনা। উক্ত জমিটি রাস্তায় পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে রাস্তা থেকে ৫শ’ ফিট ভেতরে আরও ৩ একর জমি নিয়ে ডাম্পিং স্টেশনের নকশা করে বানিয়াচং ভূমি অফিসে পাঠানো হয়েছে। এটি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে অনুমোদন হলেই ডাম্পিং স্টেশন স্থাপন করা হবে।
সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, শহরের পশ্চিম পাশ ঘেঁষে কামড়াপুর-নসরতপুর বাইপাস সড়ক। এ সড়কের পাশেই শহরতলীর সুলতান মাহমুদপুর গ্রাম সংলগ্ন আধুনিক স্টেডিয়াম। এর ঠিক উল্টো পাশে রয়েছে জেলার সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ বৃন্দাবন সরকারি কলেজ, দি রোজেস কেজি স্কুল, আনসার ভিডিপি কার্যালয়, শাহ এএমএস কিবরিয়া অডিটরিয়াম, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্টেট আদালতসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। আধুনিক স্টেডিয়াম এবং এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যবর্তী বাইপাস সড়কের দু’পাশে দীর্ঘদিন ধরে জেলা শহরের ময়লা আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। পৌরসভার বিভিন্ন আবাসিক এলাকা, হোটেল-রেস্তোরা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, ক্লিনিকের বর্জ্য ফেলায় বাইপাস সড়কের পাশর্^বর্তী খাল ভরাট হয়ে ময়লা আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। ফলে এসব প্রতিষ্ঠানে যাতায়াতকারী শিক্ষার্থীসহ পথচারীদের চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। প্রতিদিনই অব্যাহতভাবে ময়লা ফেলায় এখানে ময়লা-আবর্জনার পাহাড় জমেছে। কোন কোন সময় আগুন দিয়ে ময়লা-আবর্জনা পুড়িয়ে ফেলা হয়। এতে দুর্গন্ধে এলাকায় বসবাসকারী এবং নিকটবর্তী সড়ক দিয়ে চলাচলকারী নাগরিকেরাও চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। এ কারণে আধুনিক স্টেডিয়ামের সামনের এলাকার সৌন্দর্য্যহানী যেমন ঘটেছে, তেমনি এখানে বড় ধরণের কোন ক্রীড়া প্রতিযোগিতাও আয়োজন করা সম্ভব হচ্ছেনা। মারাত্মকভাবে দূষণ ও বিপর্যস্ত হচ্ছে ওই এলাকার পরিবেশ। এ অবস্থায় বাইপাস সড়কের পাশে ওই স্থানে ময়লা আবর্জনা ফেলা বন্ধ করতে গত ২০ আগস্ট পৌর কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেয় জেলা প্রশাসন।
চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, সড়ক ও জনপথ বিভাগের এ সড়কটি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সাথে যুক্ত রয়েছে। উক্ত সড়কটি জেলার লাখাই, বানিয়াচং, নবীগঞ্জ উপজেলার সাথে সদর উপজেলার যোগাযোগে ব্যবহৃত হয়। বিপুল সংখ্যক মানুষ প্রতিদিন রাস্তাটি ব্যবহার করে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে জনগুরুত্বপূর্ণ এ সড়কের কামড়াপুর থেকে নতুন বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত অংশে রাস্তার দু’পাশে শহরের আবর্জনা ডাম্পিং করা হয়। দুর্গন্ধ ও নোংরায় এ জায়গার পরিবেশ ন্যুনতম নাগরিক স্বাচ্ছন্দ্যটুকুও হারিয়েছে। এমতাবস্থায় বাইপাস সড়কের পাশের স্থপিকৃত আবর্জনা পরিস্কারকরণ, নির্দিষ্ট স্থানে শহরের আবর্জনা ফেলার পদক্ষেপ গ্রহণসহ নতুন করে যেন ময়লা আবর্জনা না ফেলা হয় সে ব্যাপারে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার জন্যও চিঠিতে অনুরোধ জানানো হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com