বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শহরের বিভিন্ন স্থানে অবৈধ ভ্রাম্যমান ফাষ্টফুডের দোকান শেখ হাসিনা একের পর এক উদাহরণ সৃষ্টি করে যাচ্ছেন-এমপি আবু জাহির হবিগঞ্জের বাজারে প্রতিনিয়ত বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম লন্ডন মহানগর যুুবদলের পক্ষ থেকে হবিগঞ্জে দলীয় নেতাকর্মীদেরকে আর্থিক সহায়তা প্রদান সিলেট বিভাগী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসোসিয়েশনের কমিটিতে মর্তজা হাসান সহ-সভাপতি ও সেলিম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনোনীত হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নুর উদ্দিন চৌধুরী বুলবুলের দলীয় মনোনয়পত্র জমা বানিয়াচঙ্গের ৭নং বড়ইউড়ি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক কমিটি গঠন চুনারুঘাটের বিএনপির সমাবেশে হামলা ॥ পুলিশের মামলা দায়ের মাধবপুরে বাংলাদেশ উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশনের মতবিনিময় সভা হবিগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগের পিয়ন রাহিয়া বাসা বরাদ্দ নিয়ে বাস করেন অন্যত্র
সদর হাসপাতালে স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য ৬ হাজার টাকায় সন্তান বিক্রি ॥ পুলিশের সহায়তায় উদ্ধার

সদর হাসপাতালে স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য ৬ হাজার টাকায় সন্তান বিক্রি ॥ পুলিশের সহায়তায় উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টর ॥ দারিদ্রতার কষাঘাতে জর্জরিত হয়ে মাত্র ৬ হাজার টাকায় নবজাতককে দত্তক দেয় মন্দরী গ্রামের রহিম মিয়া ও আকলিমা বেগম। কিন্তু স্ত্রীর কান্নাকাটির কারণে আবার সেই নবজাতককে ফিরিয়ে এনে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিয়েছে রাহিম মিয়া। তবে এই নবজাতককে ফেরত আনতে নিতে হয়েছে তাকে পুলিশের সহযোগিতা। যদিও দত্তক নেয়া তেঘরিয়া গ্রামের চরগাও গ্রামের আসকর মিয়া বলছেন, পুলিশ না পাঠালেও তিনি সন্তান ফেরত দিতেন। তিনি জানান, তার স্ত্রী নিঃসন্তান হওয়ায় গতকাল শনিবার সকালে বানিয়াচং উপজেলার মন্দরী গ্রামের রাহিমের নিকট থেকে তার সদ্যজাত নবজাতক দত্তক নেন। এ সময় রাহিম তার দারিদ্র্যতার কথা বলে তার স্ত্রীর চিকিৎসাবাবদ ৬ হাজার টাকা নেয়। কিন্তু বিকালে হঠাৎ তার বাড়িতে সদর থানার এসআই নাজমুল হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গিয়ে জানায় দত্তক নেয়া সন্তান ফেরত দিতে হবে। এক পর্যায়ে তিনি ওই নবজাতককে ফিরিয়ে দেন। এ বিষয়ে এসআই নাজমুল হাসান জানান, বাচ্চাটিকে এনে তার পিতা-মাতার জিম্মায় দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com