বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১২:১২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
ফেইসবুকে সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী প্রচারণা ॥ লাখাইর সাবেক কৃষি কর্মকর্তা আহসান হাবিবের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন নবীগঞ্জের চেয়ারম্যান মুকুলের বরখাস্তের আদেশ বহাল সমৃদ্ধ দেশ গড়তে যুব সমাজকে কাজে লাগাতে হবে-এমপি আবু জাহির চাঁদাবাজির মামলায় স্বাক্ষী হওয়ায় বাস শ্রমিককে হুমকির অভিযোগ দুই লন্ডনীর বিরুদ্ধে মামলা বিএনপি নেতা নাজমুল হুদা এখন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা পইলে সৈয়দ আহমদুল হক ফুটবল টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল শুরু পাঁচপাড়িয়া গ্রামে মরহুম আরফান আলী ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্ট ও আলোচনা সভা বানিয়াচঙ্গের হিয়ালায় জুয়া খেলার অপরাধে ৪ জনের প্রত্যেককে ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদ- প্রদান নবীগঞ্জের বাউসি গ্রামে দুর্বৃত্তের হামলায় রবি পরিবার গৃহহারা হবিগঞ্জ জেলা ট্রাক ও ট্যাংকলড়ী শ্রমিক ইউনিয়ন নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম বিতরণ
মাধবপুরে স্বামীর বিরুদ্ধে প্রবাস ফেরত স্ত্রীর যৌতুক মামলা দায়ের

মাধবপুরে স্বামীর বিরুদ্ধে প্রবাস ফেরত স্ত্রীর যৌতুক মামলা দায়ের

মাধবপুর প্রতিনিধি ॥ মাধবপুরে স্বামীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন প্রবাস ফেরৎ স্ত্রী। বাদীর নাম আজিদা বেগম। তিনি উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের আয়লাবই গ্রামের মতি মিয়া স্ত্রী এবং একই গ্রামের মৃত আব্দুল মন্নাফ মিয়ার মেয়ে। মামলার বিবরণে জানা যায়, বিয়ের কিছুদিন পর আজিদা বেগমকে তার স্বামী মতি মিয়া গৃহকর্মীর কাজ দিয়ে দুবাই পাঠিয়ে দেন। দুবাইয়ে ৫ বছর থেকে আজিদা বেগম দেশে চলে আসেন। দুবাই থাকার সময় সব টাকা স্বামীর নিকট প্রেরণ করেন। দেশে আসার পর তাদের দুটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। ছোট মেয়ের বয়স যখন ৯ মাস তখন তার স্বামী তাকে গৃহকর্মীর কাজ দিয়ে পুনরায় জর্ডান পাঠিয়ে দেয়। সেখানে আজিদা ২ বছর থাকে এবং উপার্জিত টাকা স্বামীর কাছে প্রেরণ করে। ২ বছর পর আজিদা দেশে ফিরে আসলে তার স্বামী মতি মিয়া আবারো গৃহকর্মীর কাজ দিয়ে আজিদাকে কাতার পাঠান। সেখানে আজিদা ৩ বছর অবস্থান করে উপার্জিত টাকা স্বামীর কাছে প্রেরণ করে। ৩ বছর পর আজিদা দেশে ফিরে আসে। দুবাই, জর্ডান, কাতার ৩ দেশ মিলিয়ে প্রায় ১০ বছর আজিদা বেগম বিদেশ গৃহকর্মীর কাজ করে স্বামীকে ২৯ লাখ টাকা দেয়। কিন্তু তাতে মতি মিয়ার মন ভরে নি। দেশে ফিরে আসার পর আরো টাকা দেয়ার জন্য মতি মিয়া আজিদার উপর নির্যাতন শুরু করেন। এই নিয়ে স্বামীর সঙ্গে আজিদার পারিবারিক বিরোধ দেখা দিলে এলাকার স্থানীয় লোকজন সালিশের মাধ্যমে বিরোধ নিষ্পত্তি করে দেন।
স্থানীয়দের সিদ্ধান্তমতে স্বামীর বাড়িতে আলাদা ঘর নির্মাণ করে ২ মেয়েকে নিয়ে বসবাস করতে থাকে। তখনো স্বামী মতি মিয়া ২ লাখ টাকা দিতে আজিদা বেগমকে চাপ দিতে থাকেন। আজিদা বেগম টাকা দিতে অস্বীকার করলে গত ১০ অক্টোবর সকালে মতি মিয়া ও তার অপর স্ত্রী ছায়েদা বেগম মিলে আজিদা বেগমকে মারপিট করে আহত করে।
এ ঘটনায় আজিদা বেগম গত ১২ অক্টোবর হবিগঞ্জ নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এ একটি মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে মাধবপুর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তাকে তদন্তক্রমে প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ দেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবু আসাদ ফরিদুল হক জানান, তদন্ত করে বিজ্ঞ আদালতকে প্রতিবেদন দেয়া হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com