মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ১১:১২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
ফেইসবুকে সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী প্রচারণা ॥ লাখাইর সাবেক কৃষি কর্মকর্তা আহসান হাবিবের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন নবীগঞ্জের চেয়ারম্যান মুকুলের বরখাস্তের আদেশ বহাল সমৃদ্ধ দেশ গড়তে যুব সমাজকে কাজে লাগাতে হবে-এমপি আবু জাহির চাঁদাবাজির মামলায় স্বাক্ষী হওয়ায় বাস শ্রমিককে হুমকির অভিযোগ দুই লন্ডনীর বিরুদ্ধে মামলা বিএনপি নেতা নাজমুল হুদা এখন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা পইলে সৈয়দ আহমদুল হক ফুটবল টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল শুরু পাঁচপাড়িয়া গ্রামে মরহুম আরফান আলী ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্ট ও আলোচনা সভা বানিয়াচঙ্গের হিয়ালায় জুয়া খেলার অপরাধে ৪ জনের প্রত্যেককে ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদ- প্রদান নবীগঞ্জের বাউসি গ্রামে দুর্বৃত্তের হামলায় রবি পরিবার গৃহহারা হবিগঞ্জ জেলা ট্রাক ও ট্যাংকলড়ী শ্রমিক ইউনিয়ন নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম বিতরণ
আউশকান্দি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হারুন ও মেম্বার দুলালের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

আউশকান্দি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হারুন ও মেম্বার দুলালের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বারসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ এনে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ১৮ অক্টোবর হবিগঞ্জ নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে ৩ কার্য দিবসের মধ্যে এফআইআর করার জন্য নবীগঞ্জ থানাকে নির্দেশ প্রদান করেন। এদিকে গতকাল নবীগঞ্জ থানায় মামলাটি এফআইআর করা হয়েছে।
মামলাটি দায়ের করেছেন নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের পারকুল গ্রামের মহিবুর রহমানের স্ত্রী। মামলার অভিযুক্তরা হচ্ছেন- নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন (৪৫), ওই ইউনিয়নের সদস্য পারকুল গ্রামের দুলাল মিয়া (৪২), ঘোলডোবা গ্রামের সেবুল মিয়া (২৮), সহিদুল মিয়া (২৫) ও জিবু মিয়া (২৭) সহ অজ্ঞাত আরো ৩জন।
মামলার বিবরণে জানা যায়-নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের পারকুল গ্রামের মহিবুর রহমানের স্ত্রী গত ৮ অক্টোবর বিকেলে রিক্সাযোগে শেরপুর বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পারকুল গ্রামের মেম্বার দুলাল মিয়ার বাড়ির সামনে আসা মাত্র মামলায় অভিযুক্তরা রিক্সাটির গতিরোধ করে তাকে জোরপূর্বক একটি সিএনজিতে তুলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাকে ঘোলডোবা গ্রামের সহিদুল মিয়ার বাড়িতে ৩দিন আটক রেখে আসামীরা পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ৪দিন পর আসামীরা আউশকান্দি বাজারের একটি রেস্টুরেন্টের সামনে সিএনজি থেকে নামিয়ে দিয়ে চলে যায়। খবর পেয়ে ভিকটিমের স্বামী মুহিবুর রহমান এসে তাকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা করায়।
গত ১৮ অক্টোবর নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল এর বিচারক হবিগঞ্জ জেলা দায়রা ও জেলা জজ মোহাম্মদ হালিম উল্লাহ চৌধুরীর আদালতে গত ১৮ অক্টোবর নালিশকারীর দরখাস্ত ও জবানবন্দী পর্যালোচনা করে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জকে তিন কার্য দিবসের মধ্যে মামলা এফ.আই.আর করার নির্দেশ দেন।
মামলা বাদীর স্বামী মুহিবুর রহমান অভিযোগ করেন, মামলার সাক্ষীদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারের পক্ষ থেকে হুমকি ধামকি ও চাপ সৃষ্টি করে তাদের কাছ থেকে এফিডেভিট করার চেষ্টা করছেন। তাকে মামলা তোলার জন্য নানাভাবে হুমকি দিচ্ছেন, যার কারণে আমি নিজ বাড়িতে যাওয়ার সাহস পাচ্ছি না।
এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন বলেন, এটা সম্পূর্ণ রূপে একটি নাটক। এটা নির্বাচনের প্রতিহিংসা, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা, ন্যায় বিচারের প্রতিহিংসা। তিনি বলেন, গত ১৭ অক্টোবর শনিবার ইউনিয়ন অফিস প্রাঙ্গণে বিট পুলিশিং এর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সমাবেশে এলাকাবাসী মামলার বাদীনীর স্বামী মহিবুর রহমানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ আনেন। সে মানুষকে পুলিশে ধরিয়ে দেয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকা আদায় করে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগের জন্য সে আমাকে (চেয়ারম্যানকে) সন্দেহ করে। তিনি বলেন, তার ৪ স্ত্রী রয়েছে। এদের দিয়ে সে ব্যবসা করে। এলাকাবাসী প্রতিবাদ করলে নারী নির্যাতন মামলা করার হুমকী দেয়। মামলার বাদীনীর বিয়ের কাবিনই নেই।
ইউপি সদস্য দুলাল মিয়া বলেন, এ রকম জঘন্য কাজের সাথে আমার কোনো সম্পর্ক নেই, আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়ানো হয়েছে।
নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান জানান, মামলাটি থানায় এফআইআর করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com